ইসির ‘তামাশার তফসিল ঘৃণাভরে’ প্রত্যাখ্যান বিএনপির

নির্বাচন কমিশন (ইসি) একতরফাভাবে তামাশার তফসিল ঘোষণা করেছে মন্তব্য করে তা ঘৃণাভরে প্রত্যাখ্যান করেছে বিএনপি।
ভার্চুয়াল প্রেস ব্রিফিংয়ে বক্তব্য রাখেন বিএনপির জ্যেষ্ঠ যুগ্ম মহাসচিব রুহুল কবির রিজভী। ছবি: ভিডিও থেকে নেওয়া

নির্বাচন কমিশন (ইসি) একতরফাভাবে তামাশার তফসিল ঘোষণা করেছে মন্তব্য করে তা ঘৃণাভরে প্রত্যাখ্যান করেছে বিএনপি।

আজ বুধবার দ্বাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচনের তফসিল ঘোষণার পর তাৎক্ষণিক প্রতিক্রিয়ায় এ কথা বলেন দলটির জ্যেষ্ঠ যুগ্ম মহাসচিব রুহুল কবির রিজভী।

সন্ধ্যা সাড়ে ৭টায় ভার্চুয়ালি এক প্রেস ব্রিফিংয়ে তিনি বলেন, 'প্রধান নির্বাচন কমিশনার জাতির সঙ্গে মশকরা করেছেন। প্রধানমন্ত্রী প্রধানমন্ত্রীত্বে থাকবেন, তার নেতৃত্বে সরকার থাকবে আর অবাধ, সুষ্ঠু ও অংশগ্রহণমূলক নির্বাচন হবে, এটা বিশ্বাস করা খুব কঠিন ব্যাপার। আমি মনে করি, এটি সম্পূর্ণরূপে ডাহা মিথ্যা, ভণ্ডামি এবং মেকি।'

'গোটা বাংলাদেশের প্রত্যাশা, জনমত ও আন্তর্জাতিক সম্প্রদায়ের উপর্যুপরি আহ্বান উপেক্ষা করে নিশিরাতের সরকারের তল্পিবাহক নির্বাচন কমিশন একতরফা নির্বাচনের তামাশা তফসিল ঘোষণা করেছে। শেখ হাসিনার নির্দেশে অতীতের মতোই আরেকটি প্রহসনের নির্বাচনের মাধ্যমে গণতন্ত্র ও জনগণের ভোটাধিকার হরণের জন্য মেরুদণ্ডহীন ও পক্ষপাতদুষ্ট নির্বাচন কমিশন যে তফসিল ঘোষণা করেছে, তা আমরা চরম ঘৃণাভরে প্রত্যাখ্যান করছি', বলেন তিনি।

বিএনপির জ্যেষ্ঠ যুগ্ম মহাসচিব বলেন, 'আমরা আবারও হুঁশিয়ার করে বলতে চাই, এই অবিমৃশ্যকারিতার পরিপ্রেক্ষিতে দেশে যে অচলাবস্থা ও চরম রাজনৈতিক অস্থিরতার সৃষ্টি হবে, তার পুরো দায়ভার নির্বাচন কমিশনকেই বহন করতে হবে, আওয়ামী লীগ সরকারকেই বহন করতে হবে।'

তিনি বলেন, 'মানুষ ১৫ বছরের অত্যাচারের জবাব দিতে ঘুরে দাঁড়িয়েছে, ভাত ও ভোটের অধিকারের জন্য মাঠে নেমেছে।'

জনগণের চলমান অগ্নিগর্ভ আন্দোলন আরও তীব্র, আরও কঠিন থেকে কঠিনতর হবে বলে হুঁশিয়ারি করে তিনি বলেন, 'বর্তমান কমিশন নিশিরাতের ভোটের সরকারের মনোনীত সিলেকশন কমিশন। তারা আওয়ামী লীগের নিয়োগপ্রাপ্ত কর্মকর্তা, জনগণের কেউ নন। এই কমিশন কেউ মানে না।'

'সিইসি কাজী হাবিবুল আউয়াল জাতির উদ্দেশে দেওয়া ভাষণে সিলেকশন ভোটের তফসিল ঘোষণা করে গোটা দেশকে অন্ধকারে নিক্ষেপ করেছেন এবং গোটা জাতির সঙ্গে ইয়ার্কি করেছেন', বলেন তিনি।

রিজভী আরও বলেন, 'এটা ২০১৪ কিংবা ২০১৮ নয়, তফসিল দিলেন আর পুলিশি ভোটের মাধ্যমে ক্ষমতার সিংহাসন রক্ষা করবেন, অত সহজ নয়। নির্বাচনের ঘোষণা দিলেন আর নির্বাচন হয়ে গেল, এই দিবাস্বপ্ন বাস্তবায়িত হবে না।'

'শেখ হাসিনার পদত্যাগ করতে হবে ও নির্দলীয়, নিরপেক্ষ সরকারের অধীনেই নির্বাচন হবে। এসব তফসিল বঙ্গোপসাগরে ভাসিয়ে দেবে জনগণ,' বলেন তিনি।

 

Comments

The Daily Star  | English

An April way hotter than 30-year average

Over the last seven days, temperatures in the capital and other heatwave-affected places have been consistently four to five degrees Celsius higher than the corresponding seven days in the last 30 years, according to Met department data.

10h ago