রাজনীতি

গাইবান্ধায় বিএনপি-পুলিশ সংঘর্ষ, আহত অন্তত ২৩

গাইবান্ধার পলাশবাড়ী উপজেলায় জুনদহ এলাকায় বিএনপি নেতাকর্মীদের সঙ্গে পুলিশের সংঘর্ষ হয়েছে। এ ঘটনায় তিন পুলিশসহ অন্তত ২৩ জন আহত হয়েছেন।
বর্তমানে ঘটনাস্থলে আইনশৃঙ্খলা রক্ষাকারী বাহিনীর সদস্যরা অবস্থান করছেন। ছবি: সংগৃহীত

গাইবান্ধার পলাশবাড়ী উপজেলায় জুনদহ এলাকায় বিএনপি নেতাকর্মীদের সঙ্গে পুলিশের সংঘর্ষ হয়েছে। এ ঘটনায় তিন পুলিশসহ অন্তত ২৩ জন আহত হয়েছেন।

আজ মঙ্গলবার দুপুরে বগুড়া-রংপুর মহাসড়কে এ ঘটনা ঘটে।

গাইবান্ধার সহকারী পুলিশ সুপার উদয় কুমার সাহা দ্য ডেইলি স্টারকে বলেন, 'দুপুর সাড়ে ১২টার দিকে জুনদহ এলাকায় বিএনপি নেতাকর্মীরা মিছিল নিয়ে মহাসড়কে উঠে যানবাহন ভাঙচুর শুরু করে। এসময় বগুড়া থেকে গাইবান্ধাগামী একটি বাস ভাঙচুর করা হয়। খবর পেয়ে পুলিশ সেখানে গেলে বিএনপি নেতাকর্মীদের সঙ্গে ধাওয়া-পাল্টা ধাওয়া হয়। এসময় বিএনপি নেতাকর্মীদের ছোড়া ইট-পাটকেলে পলাশবাড়ী থানার এক সব-ইন্সপেক্টর ও দুজন কনস্টেবল আহত হন।'

তিনি বলেন, 'পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে আনতে পুলিশ টিয়ারশেল ও শটগানের ফাঁকা গুলি করে।'

স্থানীয়রা জানান, হরতালের সমর্থনে বিএনপি নেতাকর্মীরা সকাল থেকেই ওই এলাকায় জড়ো হতে থাকেন। পরে দুপুর সাড়ে ১২টা থেকে ১টা পর্যন্ত তারা মহাসড়কে বাসসহ কয়েকটি যানবাহন ভাঙচুর করেন।

এ বিষয়ে গাইবান্ধা জেলা বিএনপির যুগ্ম-সম্পাদক ও পলাশবাড়ী পৌর-বিএনপির সভাপতি আবুল কালাম আজাদ ডেইলি স্টারকে বলেন, 'আমরা সড়কে মিছিল করার সময় বাসটি আমাদের মিছিলে ঢুকে পড়ে। এসময় বিক্ষুব্ধ কয়েকজন বাসটি ভাঙচুর করে। পরে ঘটনাস্থলে পুলিশ আসলে তাদের সঙ্গে দুপুর ১টা থেকে ৩টা পর্যন্ত ধাওয়া-পাল্টা ধাওয়া হয়। এসময় বিক্ষুব্ধ নেতাকর্মীরা আরও কিছু যানবাহন ভাঙচুর করেন।'

পুলিশের টিয়ারশেল ও শটগানের গুলিতে বিএনপির অন্তত ২০ নেতাকর্মী আহত হয়েছেন বলেও জানান তিনি।

Comments