যুক্তরাষ্ট্রে ফিলিস্তিনি-আমেরিকান শিশুকে ছুরিকাঘাতে হত্যা, আটক ১

পুলিশ সন্দেহ করছে, মুসলিম বিদ্বেষ থেকে এই হামলা চালানো হয়েছে। হামাস ও ইসরায়েলের মধ্যে চলমান যুদ্ধ প্রভাব ফেলতে পারে বলে তারা মত দেন।
ফিলিস্তিনি-মার্কিন শিশু ওয়াদিয়া আল-ফাইউমি (৬) ও তার সন্দেহভাজন হত্যাকারী জোসেফ কুবা (৭১)। ছবি: রয়টার্স
ফিলিস্তিনি-মার্কিন শিশু ওয়াদিয়া আল-ফাইউমি (৬) ও তার সন্দেহভাজন হত্যাকারী জোসেফ কুবা (৭১)। ছবি: রয়টার্স

যুক্তরাষ্ট্রে ছয় বছরের এক ফিলিস্তিনি-আমেরিকান শিশুকে ছুরিকাঘাতে হত্যার অভিযোগে জোসেফ কুবা (৭১) নামের একজনকে গ্রেপ্তার করেছে পুলিশ। ছুরিকাঘাতে আহত শিশুটির মা হাসপাতালে চিকিৎসাধীন।

এএফপি ও আলজাজিরার প্রতিবেদনে এ তথ্য জানিয়েছে।

পুলিশ সন্দেহ করছে, মুসলিম বিদ্বেষ থেকে এই হামলা চালানো হয়েছে। হামাস ও ইসরায়েলের মধ্যে চলমান যুদ্ধ প্রভাব ফেলতে পারে বলে তারা মত দেন।

এ ঘটনায় মার্কিন প্রেসিডেন্ট জো বাইডেন সোমবার শোক জানিয়েছেন। এ ঘটনাকে ঘৃণার বিষবাষ্প হিসেবে উল্লেখ করেছেন।

এক বিবৃতিতে মার্কিন প্রেসিডেন্ট জো বাইডেন বলেন, 'এই ফিলিস্তিনি মুসলিম পরিবারটি যুক্তরাষ্ট্রে আশ্রয়ের খোঁজে এসেছিল—যা আমরা সবাই খুঁজি। জীবনধারণ, শিক্ষাগ্রহণ ও শান্তিতে প্রার্থনার জন্য একটি আশ্রয় চেয়েছিল।'

'যুক্তরাষ্ট্রে এ ধরনের ঘৃণার বশবর্তী হয়ে করা ভয়াবহ অপরাধের কোনো স্থান নেই এবং এটি আমাদের মৌলিক মূল্যবোধের বিরুদ্ধে যায়', যোগ করেন বাইডেন। তিনি যুক্তরাষ্ট্রের নাগরিকদের সব ধরনের ধর্মান্ধতা ও ঘৃণা থেকে দূরে থাকার আহ্বান জানান।

শিকাগোর উইল কাউন্টি শেরিফের কার্যালয় রোববার এক বিবৃতিতে জানায়, 'সন্দেহভাজন ব্যক্তি মধ্যপ্রাচ্যে হামাস ও ইসরায়েলের মধ্যে চলমান সংঘাতে প্রভাবিত হয়েছেন এবং মুসলিম মা ও সন্তানকে লক্ষ্য করে হামলা চালান।'

শনিবার সকালে পুলিশের কর্মকর্তারা মা ও শিশুকে তাদের বাসা থেকে উদ্ধার করেন। বাসাটি শিকাগো থেকে প্রায় ৬৫ কিলোমিটার দূরে অবস্থিত।

শেরিফের কার্যালয় ময়নাতদন্তের বরাত দিয়ে জানিয়েছে, শিশুটিকে ২৬ বার আঘাত করা হয়। শিশুটির মাকেও অনেকবার আঘাত করা হয়েছে। তবে গুরুতর আহত হলেও তার অবস্থা আশঙ্কাজনক নয়। রোববার হাসপাতালে ভর্তি ছিলেন তিনি।

দ্য কাউন্সিল অব আমেরিকান ইসলামিক রিলেশন্সের (সিএআইআর) শিকাগো চ্যাপ্টারের পরিচালক আহমেদ রিহাব এক বিবৃতিতে জানিয়েছেন, 'আমাদের হৃদয় আজ ভারাক্রান্ত। আমরা নিষ্পাপ শিশু ও তার মায়ের জন্য প্রার্থনা করছি।'

সংস্থাটি নিহত বালক ওয়াদিয়া আল-ফাইউমি ও তার মা হানান শাহিনের পরিচয় প্রকাশ করে। তারা জানায়, মাত্র কয়েক সপ্তাহ আগেই শিশুটি তার ষষ্ঠ জন্মদিন পালন করেছে।

সিএআইআর আরও জানায়, মা ও শিশুটি ওই বাসার নিচতলায় দুই বছর ধরে বসবাস করছিল। সন্দেহভাজন হামলাকারীকে বাড়ির মালিক হিসেবে চিহ্নিত করে সংস্থাটি।

Comments

The Daily Star  | English

UN rights chief urges probe on Bangladesh protest 'crackdown'

The UN rights chief called Thursday on Bangladesh to urgently disclose the details of last week's crackdown on protests amid accounts of "horrific violence", calling for "an impartial, independent and transparent investigation"

1h ago