ইউরোপ

তুরস্কে খনি বিস্ফোরণে নিহত ২৮, আটকে অন্তত ৪৯ শ্রমিক

তুরস্কের উত্তরাঞ্চলের বারতিন প্রদেশে একটি কয়লা খনিতে বিস্ফোরণে ২৮ জন মারা গেছেন এবং অন্তত ৪৯ জন শ্রমিক খনিতে আটকা পড়েছে।
বিস্ফোরণের পর তুরস্কের বারতিন প্রদেশের খনিটি। ছবি: রয়টার্স

তুরস্কের উত্তরাঞ্চলের বারতিন প্রদেশে একটি কয়লা খনিতে বিস্ফোরণে ২৮ জন মারা গেছেন এবং অন্তত ৪৯ জন শ্রমিক খনিতে আটকা পড়েছে।

গতকাল শুক্রবার বিস্ফোরণের সময় ওই খনিতে প্রায় ১১০ জন কাজ করছিলেন বলে বিবিসি তাদের এক প্রতিবেদনে উল্লেখ করেছে।

তুরস্কের রাষ্ট্রীয় সংবাদ এজেন্সি আনাদোলু বার্টিনের গভর্নর নুরতাক আর্সলানের উদ্ধৃত দিয়ে জানিয়েছে, ৪৪ জন কর্মী খনির প্রবেশপথের ৩০০ মিটার নীচে এবং আরও ৫ জন ৩৫০ মিটার নীচে আটকা পড়েছে।

স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী সুলেমান সোয়লুর বরাত দিয়ে আলজাজিরার প্রতিবেদনে বলা হয়েছে, বিস্ফোরণের পরে বেশিরভাগ কর্মী উঠে আসতে সক্ষম হলেও প্রায় ৪৯ জন খনির উচ্চ ঝুঁকিপূর্ণ এলাকায় আটকে পড়েছিলেন।

তুরস্কের স্বাস্থ্যমন্ত্রী ফাহরেটিন কোকা বলেছেন, আটকে পড়াদের মধ্যে ১১ জনকে উদ্ধার করা হয়েছে।

উদ্ধার কর্মীরা আটকে পড়াদের উদ্ধার প্রচেষ্টা চালিয়ে যাচ্ছে।

নিখোঁজদের পরিবার ও স্বজনরা খনি এলাকায় উদ্বেগের সঙ্গে অপেক্ষা করছে।

এই বিস্ফোরণের কারণ এখনও জানা যায়নি এবং স্থানীয় তদন্তকারীরা তদন্ত শুরু করেছে।

তুরস্কের জ্বালানিমন্ত্রী বলেন, প্রাথমিকভাবে ধারণা করা হচ্ছে, ফায়ারড্যাম্পের কারণে বিস্ফোরণ ঘটেছে।

তুরস্কের প্রেসিডেন্ট রিসেপ তাইয়েপ এরদোগান আজ ঘটনাস্থল পরিদর্শন করবেন।

এরদোগান এক টুইট বার্তায় বলেন, 'আশা করছি প্রাণহানির পরিমাণ আর বাড়বে না, আমাদের খনি শ্রমিকদের জীবিত পাওয়া যাবে।'

২০১৪ সালে তুরস্কে সবচেয়ে মারাত্মক কয়লা খনি বিস্ফোরণে ৩০১ জন নিহত হন।

Comments