‘পুরস্কার প্রাপ্তির কথা ভেবে কোনো শিল্পী কাজ করেন না’

দ্বিতীয়বারের মতো জাতীয় চলচ্চিত্র পুরস্কার পাচ্ছেন নুসরাত ইমরোজ তিশা। এবার পাচ্ছেন হালদা সিনেমায় অভিনয়ের জন্য, তাও আবার সেরা চলচ্চিত্র অভিনেত্রীর পুরস্কার। তারও আগে অস্তিত্ব সিনেমার জন্য তিনি এই পুরস্কার পেয়েছিলেন।
নুসরাত ইমরোজ তিশা। ছবি: শেখ মেহেদী মোর্শেদ

দ্বিতীয়বারের মতো জাতীয় চলচ্চিত্র পুরস্কার পাচ্ছেন নুসরাত ইমরোজ তিশা। এবার পাচ্ছেন হালদা সিনেমায় অভিনয়ের জন্য, তাও আবার সেরা চলচ্চিত্র অভিনেত্রীর পুরস্কার। তারও আগে অস্তিত্ব সিনেমার জন্য তিনি এই পুরস্কার পেয়েছিলেন। অন্যদিকে প্রথমবার সিনেমার প্রযোজক হিসেবেও আত্মপ্রকাশ করছেন। দুই বার জাতীয় চলচ্চিত্র পুরস্কার, সিনেমা প্রযোজনা এবং অন্যান্য বিষয় নিয়ে দ্য ডেইলি স্টারের সঙ্গে কথা বলেছেন তিশা।

সম্প্রতি ঘোষিত জাতীয় চলচ্চিত্র পুরস্কার প্রাপ্তদের তালিকায় সেরা অভিনেত্রী হিসেবে আপনার নাম রয়েছে, কেমন লাগছে?

যেকোনো পুরস্কারই ভালো লাগার বিষয়। আমিও যখন শুনেছি হালদা সিনেমার জন্য সেরা অভিনেত্রী হিসেবে পুরস্কারটি পাচ্ছি, তখন থেকেই অন্যরকম আনন্দ কাজ করছে। অনেক খুশি আমি। কাছের মানুষরা ফোন করে উইশ করছেন, চারদিক থেকে অভিনন্দন পাচ্ছি। এটা গুড ফিলিং জন্ম নিচ্ছে। আরও খুশি হয়েছি হালদা সিনেমার জন্য জাহিদ হাসান, তৌকীর আহমেদ, রুনা খান পুরস্কার পেয়েছেন।

সিনেমা করার সময় কি পুরস্কার প্রাপ্তির ভাবনাটি আপনার মধ্যে কাজ করে?

না, না। তা কখনোই করে না। শিল্পীর কাজ অভিনয় করা। পুরস্কারের কথা ভেবে কোনো শিল্পী কাজ করেন না। আমিও করি না। ভালো স্ক্রিপ্ট পেলে তা নিয়ে থাকি। হালদা সিনেমাটি অনেক কষ্ট করে কাজটি শেষ করেছিলাম। সারাক্ষণ গল্পে ও চরিত্রের ভেতরে ছিলাম। হালদা সিনেমায় চট্টগ্রামের আঞ্চলিক ভাষায় সংলাপ ছিল আমার। ওটার জন্য অনেক কষ্ট হতো। আরেকজনের কাছ থেকে ভাষা রপ্ত করে তারপর ক্যামেরার সামনে দাঁড়াতে হতো। যাই হোক, কাজ ভালো করার চেষ্টাটা থাকে যখন কোনো কাজ করি।

বড় কোনো প্রাপ্তি একজন শিল্পীকে কতটা দায়িত্ব বাড়িয়ে দেয়?

অনেকখানি দায়িত্ব বাড়িয়ে দেয়। কাজের জন্য প্রাপ্তি ঘটলে আরও ভালো কাজ করার জন্য প্রত্যাশা ও দায়িত্ব বেড়ে যায়। এটা আমার বেলায় ঘটে। নিজের প্রতি আস্থাটাও বাড়ে।

মোস্তফা সরয়ার ফারুকীর নতুন সিনেমা ‘নো ল্যান্ডস ম্যান’ এর আপনিও একজন প্রযোজক, হঠাৎ সিনেমা প্রযোজনায় আসা হলো কেন?

আমার কাছে মনে হয়েছে-নিজেরা উদ্যোগ না নিলে তো হবে না। আমরা যদি সিনেমা প্রযোজনার উদ্যোগ নিই তাহলে অনেক নতুন নতুন সিনেমা আসবে। আমাদের  সিনেমার উন্নতি হবে। এই ভেবেই নো ল্যান্ডস ম্যান প্রযোজনায় আসছি। তবে, এই সিনেমার আরও বড় বড় প্রযোজক আছেন। আমিও তাদের সঙ্গে আছি।

কবে থেকে শুটিং শুরু হচ্ছে?

এটা পরিচালক ভালো বলতে পারবেন।

টেলিভিশন নাটক ও সিনেমা দুটিই সমানতালে করছেন, নতুন কোনো সিনেমার খবর কি আপনার ভক্তদের জন্য অপেক্ষা করছে?

কিছুদিন আগে তো মায়াবতী মুক্তি পেল। নতুন সিনেমার কথা হচ্ছে। কোনোটাই ফাইনাল হয়নি। নো ল্যান্ডস ম্যান এর কাজ শুরু হলে করব। এখন কিছু ওয়েব সিরিজ করছি। ‘নৈবদ্য’ নামের একটি মুক্তিযুদ্ধের নাটকে কাজ করলাম। ১৫ নভেম্বর ‘ইতি তোমার ঢাকা’ মুক্তি পাচ্ছে। এটাও আমার জন্য নতুন কিছু। আমার ভক্তদের জন্য নতুন খবর এটিই। দর্শকদের বলব ‘ইতি তোমার ঢাকা’ সিনেমাটি দেখার জন্য।

Comments

The Daily Star  | English

Cyclones now last longer

Remal was part of a new trend of cyclones that take their time before making landfall, are slow-moving, and cause significant downpours, flooding coastal areas and cities. 

4h ago