দেশের প্রথম ইংরেজি সিনেমা ‘দ্য গ্রেভ’

বাংলাদেশের চলচ্চিত্রের ইতিহাসে ইংরেজি চলচ্চিত্র হিসেবে এই প্রথম সেন্সর ছাড়পত্র পেলো ‘দ্য গ্রেভ’। গাজী রাকায়েত পরিচালিত এই সিনেমাটি ইংরেজি ও বাংলা ভাষায় তৈরি করা হয়েছে।
The Grave
‘দ্য গ্রেভ’ চলচ্চিত্রের একটি দৃশ্য। ছবি: সংগৃহীত

বাংলাদেশের চলচ্চিত্রের ইতিহাসে ইংরেজি চলচ্চিত্র হিসেবে এই প্রথম সেন্সর ছাড়পত্র পেলো ‘দ্য গ্রেভ’। গাজী রাকায়েত পরিচালিত এই সিনেমাটি ইংরেজি ও বাংলা ভাষায় তৈরি করা হয়েছে।

সিনেমাটি পরিচালনা ছাড়াও চিত্রনাট্য ও কাহিনী লিখেছেন গাজী রাকায়েত। একটি গুরুত্বপূর্ণ চরিত্রেও অভিনয় করেছেন তিনি।

সরকারি অনুদানে নির্মিত ‘দ্য গ্রেভ’ দুই ভাষার জন্য আলাদাভাবে শুটিং করা হয়েছে। ইংরেজি ও বাংলা ভাষায় দুটি চলচ্চিত্রেরই সেন্সর হয়েছে।

তবে, বাংলা সিনেমাটির নাম রাখা হয়েছে ‘গোর’।

১৫ জানুয়ারি সেন্সর ছাড়পত্র হাতে পান পরিচালক গাজী রাকায়েত। ওই দিন সন্ধ্যায় বিএফডিসির মান্না ডিজিটাল অডিটরিয়ামে আনুষ্ঠানিকভাবে পরিচালক গাজী রাকায়েত ও চ্যানেল আইয়ের ব্যবস্থাপনা পরিচালক ফরিদুর রেজা সাগরের হাতে সেন্সর ছাড়পত্র তুলে দেন তথ্য প্রতিমন্ত্রী ডা. মুরাদ হাসান।

এই সিনেমায় আরও অভিনয় করেছেন দিলারা জামান, মৌসুমী হামিদ, সুষমা সরকার, দীপান্বিতা, শামীমা তুষ্টি ও অর্থা। অতিথি চরিত্রে অভিনয় করেছেন মামুনুর রশীদ ও এসএম মহসীন।

গাজী রাকায়েত বলেছেন, “আন্তজার্তিকভাবে আমাদের সিনেমাটি সবাইকে দেখানোর জন্যই ইংরেজিতে কাজটি করেছি। আর নিজের দেশের জন্য করেছি বাংলা ভাষায়। তবে, দুই ভাষাতেই আমাদের দর্শকরা সিনেমাটি দেখতে পারবেন।”

‘দ্য গ্রেভ’ সিনেমার সময়সীমা দুই ঘণ্টা ১২ মিনিট।

এক প্রশ্নের জবাবে গাজী রাকায়েত বলেছেন, “সিনেমাটির আসল শক্তি হচ্ছে এর গল্প। এটি গল্প প্রধান।”

উল্লেখ্য, ‘দ্য গ্রেভ’র শুটিং হয়েছে দোহারে। সেখানে পুরোপুরি সেট সাজিয়ে সিনেমাটির শুটিং করা হয়।

সরকারি অনুদানের সিনেমা হলেও এর সঙ্গে যুক্ত হয়েছে ইমপ্রেস টেলিফিল্ম।

গাজী রাকায়েত ছয় বছর আগে নির্মাণ করেছিলেন ‘মৃত্তিকা মায়া’ শিরোনামের একটি সিনেমা। সেটি ১৭ ক্যাটাগরিতে জাতীয় চলচ্চিত্র পুরস্কার পেয়েছিলো। যা এদেশে একটি রেকর্ড।

Comments

The Daily Star  | English
Bank Asia plans to acquire Bank Alfalah

Bank Asia moves a step closer to Bank Alfalah acquisition

A day earlier, Karachi-based Bank Alfalah disclosed the information on the Pakistan Stock exchange.

2h ago