রাজনীতি

নরসিংদীতে আওয়ামী লীগের দুপক্ষের সংঘর্ষ, গুলিবিদ্ধ ২

নরসিংদীর মাধবদী পৌর এলাকায় আওয়ামী লীগের দুই গ্রুপের সংঘর্ষ হয়েছে। এতে মাধবদী পৌরসভার সাবেক কমিশনার মো. জাকারিয়া (৪২) ও স্থানীয় নূরালাপুর ইউনিয়ন স্বেচ্ছাসেবক লীগের সদস্য সচিব আবুল কালাম (৩৮) গুলিবিদ্ধ হয়েছেন।
স্টার অনলাইন গ্রাফিক্স

নরসিংদীর মাধবদী পৌর এলাকায় আওয়ামী লীগের দুই গ্রুপের সংঘর্ষ হয়েছে। এতে মাধবদী পৌরসভার সাবেক কমিশনার মো. জাকারিয়া (৪২) ও স্থানীয় নূরালাপুর ইউনিয়ন স্বেচ্ছাসেবক লীগের সদস্য সচিব আবুল কালাম (৩৮) গুলিবিদ্ধ হয়েছেন।

এ ছাড়া, সংঘর্ষে অন্তত আরও ছয় জন আহত হয়েছেন। আজ বৃহস্পতিবার সকালে মাধবদী থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) সৈয়দুজ্জামান দ্য ডেইলি স্টারকে এ তথ্য নিশ্চিত করেছেন।

তিনি বলেন, ‘মিটিংয়ে দাওয়াত দেওয়া-না দেওয়াকে কেন্দ্র করে পৌরসভার মেয়রের সঙ্গে স্থানীয় নেতাদের কথা কাটাকাটির জেরে গত রাত সাড়ে ৮টার দিকে মাধবদী পৌরসভার মোড়ে এ ঘটনা ঘটে।’

ঘটনার প্রত্যক্ষদর্শীরা জানিয়েছেন, আগামী ২৩ জুন আওয়ামী লীগের প্রতিষ্ঠাবার্ষিকী উদযাপনকে কেন্দ্র করে কার্যকরী কমিটির সভা চলছিল। এ সময় মাধবদী শহর আওয়ামী লীগের সাবেক সাধারণ সম্পাদক ও বর্তমান পৌর মেয়র মোশাররফ হোসেন প্রধান মানিক সেখানে উপস্থিত হন। তিনি জানতে চান, কেন তাকে সভায় ডাকা হয়নি। এ নিয়ে উপস্থিত নেতাদের সঙ্গে তার বাগবিতণ্ডা হয়। এক পর্যায়ে দুই পক্ষের মধ্যে হাতাহাতি ও ধাওয়া-পাল্টা ধাওয়ার ঘটনা ঘটে।

এ ঘটনার প্রতিবাদে জেলা আওয়ামী লীগের সাংগঠনিক সম্পাদক আনোয়ার হোসেন ও তার ভাই সদর থানা ছাত্রলীগের সাবেক সভাপতি মো. জাকারিয়ার সমর্থকরা মিছিল বের করে। মিছিল দুটি পৌরসভার কাছে পৌঁছালে দুই পক্ষ সংঘর্ষে জড়িয়ে পড়ে। এতে দুজন গুলিবিদ্ধ ও ছয় জন আহত হন। পুলিশ ঘটনাস্থলে পৌঁছে পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে নেয়।

নরসিংদী সদর হাসপাতালের জরুরি বিভাগে কর্তব্যরত চিকিৎসক নাসিম আল ইসলাম ডেইলি স্টারকে বলেন, ‘গুলিবিদ্ধ দুই জনকে প্রাথমিক চিকিৎসা দিয়ে ঢাকায় পাঠানো হয়েছে।’

জেলা আওয়ামী লীগের সাংগঠনিক সম্পাদক আনোয়ার হোসেন বলেন, ‘পরিকল্পিতভাবে হত্যার উদ্দেশ্য পৌর মেয়র মোশাররফ ও তার লোকজন আমার ভাইকে গুলি করেছে।’

তবে এই অস্বীকার করেছেন মাধবদী পৌর মেয়র মোশাররফ হোসেন মানিক। তিনি বলেন, ‘তারা পূর্ব পরিকল্পিতভাবে মিছিল নিয়ে এসে আমার লোকজনের ওপর হামলা করেছে। এতে কয়েকজন আহত হয়েছেন।’

Comments

The Daily Star  | English

Hefty power bill to weigh on consumers

The government has decided to increase electricity prices by Tk 0.70 a unit which according to experts will predictably make prices of essentials soar yet again ahead of Ramadan.

14m ago