ক্রিকেট

‘আমার অনেক ব্যথা হয়’, সুজনকে বলেছিলেন তামিম

সংবাদ সম্মেলনে নির্বাচকরা ব্যাখ্যায় জানান, চোট নিয়ে সংশয় থাকায় বিশ্বকাপে তামিমকে রাখা হয়নি।
তামিম ইকবালের ফিটনেস

ফিটনেসের কারণে বিশ্বকাপ দলে থাকতে না পারা তামিম ইকবালের জন্য সহানুভূতি ঝরছে খালেদ মাহমুদ সুজনের। টিম ডিরেক্টর হিসেবে বিশ্বকাপে যাওয়া এই প্রভাবশালী বিসিবি পরিচালক জানান, বিপিএলের প্লেয়ার্স ড্রাফটের দিনই তামিম তাকে জানিয়েছিলেন তার পিঠের ব্যথার সর্বশেষ অবস্থা।

গতকাল মঙ্গলবার রাতে অনেক নাটকীয়তার পর জানানো হয় বাংলাদেশের বিশ্বকাপ স্কোয়াড। সেখানে সবচেয়ে বড় চমক ছিল তারকা বাঁহাতি ওপেনার ও সাবেক অধিনায়ক তামিমের না থাকা। পরে সংবাদ সম্মেলনে নির্বাচকরা ব্যাখ্যায় জানান, চোট নিয়ে সংশয় থাকায় তাকে রাখা হয়নি।

বুধবার বিকেলে ভারতের গৌহাটির উদ্দেশে দেশ ছাড়ার আগে বিমানবন্দরে কথা বলেন সুজন। তিনি জানান, গত রোববার অনুষ্ঠিত বিপিএলের প্লেয়ার্স ড্রাফটের দিনই তামিম তার পিঠের ব্যথার তীব্রতা জনিয়েছিলেন তাকে, 'তামিমের সঙ্গে ড্রাফটের দিনই কথা হয়েছে। ও বলছিল, ওর চোটটা আছে। "ব্যথা করছে, পিঠে ব্যথা আছে। আমাকে ম্যানেজ করেই খেলতে হবে, (বিশ্বকাপে) খেলতে চাই। সেটা আমি পরিষ্কার করে দেব বোর্ডে, জানিয়ে দেব।"'

সুজন যোগ করেন, 'সে বলে গেল এইটুকুই যে, "আমার ব্যথা হচ্ছে। ব্যথাটা খুব বেশি।" আমি বললাম, "পরবর্তী পরিচর্যাটা কী?" ওর আরেকটা ইনজেকশনের সুযোগ থাকতে পারে হয়তো-বা।' এরপর তামিম সুজনকে বলেন, 'আমার আসলে এভাবেই যাবে। ভালো কিছু হবে না। আমার ব্যথা হয়, অনেক ব্যথা হয়।'

তবে তামিম এভাবে বাদ পড়ায় চলছে নানান আলোচনা, সমালোচনার ঝড়। সেসব কথায় কান দিতে চান না টিম ডিরেক্টর। তার কাছে এটাই স্বাভাবিক বাস্তবতা, 'কথা হবেই। কেউ বাদ পড়বে, কেউ ঢুকবে। এটা আমাদের সময় হয়েছে। সব সময়ই ছিল।'

Comments