ক্রিকেট

তিন পেসার খেলানোর চিন্তায় বাংলাদেশ

আগের দিন অনুশীলনে লম্বা স্পেলে বল করলেন তিন পেসার খালেদ আহমেদ, নাহিদ রানা আর মুশফিক হাসান। এদিনও এই তিনজনকেই পাওয়া গেল অনুশীলনে। টানা খেলার মধ্যে থাকা শরিফুল ইসলাম ছিলেন না , তাকে দেওয়া হয় বিশ্রাম। প্রথম টেস্টে তার বিশ্রামেই থাকার সম্ভাবনা প্রবল।
Mushfiq Hasan, Khaled Ahmed & Nahid Rana
তিন পেসার হিসেবে সিলেট টেস্টে খেলার সম্ভাবনায় মুশফিক হাসান, খালেদ আহমেদ ও নাহিদ রানা। ছবি: ফিরোজ আহমেদ

আগের দিন অনুশীলনে লম্বা স্পেলে বল করলেন তিন পেসার খালেদ আহমেদ, নাহিদ রানা আর মুশফিক হাসান। এদিনও এই তিনজনকেই পাওয়া গেল অনুশীলনে। টানা খেলার মধ্যে থাকা শরিফুল ইসলাম ছিলেন না , তাকে দেওয়া হয় বিশ্রাম। প্রথম টেস্টে তার বিশ্রামেই থাকার সম্ভাবনা প্রবল। সেক্ষেত্রে খালেদের সঙ্গে দুই অভিষিক্ত নিয়ে খেলতে নামার দিকে হাঁটতে পারে বাংলাদেশ।

বিপিএলে এবার ঘণ্টায় ১৪৯ কিলোমিটার গতি তোলে আলোচনায় আসেন নাহিদ। ডানহাতি দীর্ঘকায় এই পেসার লিকলিকে গড়নের হলেও নিয়মিত ১৪০ কিমির বেশি গতি রাখতে পারেন। এক্স ফ্যাক্টর হিসেবে তাকে সবুজ উইকেটে নামানোর চিন্তা আছে প্রবলভাবে। নাহিদ এবার প্রথম টেস্ট দলে এলেও মুশফিক ছিলেন আগে একবার। আফগানিস্তানের বিপক্ষে স্কোয়াডে থাকলেও খেলা হয়নি তার। এবার মিলতে পারে টেস্ট ক্যাপ।

বৃহস্পতিবার সিলেট আন্তর্জাতিক ক্রিকেট স্টেডিয়ামের বাইশ গজে দেখা গেল ঘাসের আচ্ছাদন। ম্যাচের দিন সকালে ঘাস না কাটলে এই উইকেটে পেসাররাই বেশি সুবিধা পাবেন বলে ধরে নেওয়া যায়। উইকেটের সঙ্গে মেঘলা আবহাওয়াও কথা বলছে পেসারদের পক্ষে।

বাংলাদেশের টেস্ট স্কোয়াডে চার পেসারের মধ্যে সবচেয়ে অভিজ্ঞ খালেদ। তার অভিজ্ঞতাও স্রেফ ১২ টেস্টের। সম্প্রচারকারীদের সঙ্গে আলাপে বাংলাদেশের কোচ জানান, উইকেটে স্পিনারদের জন্য খুব বেশি কিছু আছে বলে তার মনে হয় না। পাঁচ বোলার নিয়ে খেললে দুই স্পিনারের সঙ্গে থাকবেন তিন পেসার।

সংবাদ সম্মেলনে চন্ডিকা হাথুরুসিংহে অভিষেকের অপেক্ষায় থাকা দুই তরুণের সম্ভাবনার কথা জানান,  'আমরা একাদশে দুজন বা তিনজকে (পেসার) যুক্ত করতে পারি। তারা প্রত্যেকেই উদ্দীপ্ত এবং বাংলাদেশের জন্য সম্ভাবনাময়। ১৪০ কি.মির গতিতে বোলিং করতে পারে। তবে তারা প্রত্যেকেই তরুণ, শক্তিশালী। প্রথম শ্রেণির ক্রিকেট ক্যারিয়ার দুজন ভালোভাবে শুরু করেছে। প্রচুর বোলিং করেছে তারা। আমি দুজনের যেকোনো একজনকে এই ম্যাচে দেখার অপেক্ষায় আছি। হয়তো দুজনকেও।'

উপমহাদেশের দল হওয়ায় শ্রীলঙ্কার বিপক্ষে স্পিন সহায়ক উইকেটে যাচ্ছে না বাংলাদেশ। পেস দিয়েই ঘায়েল করতে চায় প্রতিপক্ষকে। সেই আভাস আছে কোচের কথায়,  'আদর্শ সমন্বয় নির্ভর করছে আমাদের শক্তি এবং প্রতিপক্ষের সীমাবদ্ধতার ওপর।'

Comments