বেরিংটন-লিস্কের ব্যাটে চড়ে নামিবিয়ার বিপক্ষে স্কটল্যান্ডের ‘প্রথম’

আন্তর্জাতিক টি-টোয়েন্টিতে নামিবিয়ার বিপক্ষে চারবারের দেখায় এটাই তাদের প্রথম জয়। আগের তিনবারই হেরেছিল তারা।
ছবি: এএফপি

ব্র্যাড হোয়েল ও ব্র্যাড কারির দারুণ বোলিং নামিবিয়াকে দেড়শর পর বেশিদূর এগোতে দিল না। জবাব দিতে নেমে চাপে পড়লেও রিচি বেরিংটন ও মাইকেল লিস্ক গড়লেন অসাধারণ একটি জুটি। তাদের নৈপুণ্যে চলমান টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপে প্রথম জয়ের স্বাদ পেল স্কটল্যান্ড।

বার্বাডোজের কেনসিংটন ওভালে বৃহস্পতিবার 'বি' গ্রুপের ম্যাচে নামিবিয়ার বিপক্ষে স্কটল্যান্ড ৫ উইকেটে জিতেছে। টস জিতে আগে ব্যাটিংয়ে নেমে ৯ উইকেটে ১৫৫ রান করে নামিবিয়া। এরপর ৯ বল হাতে রেখে ১৫৭ রান তুলে লক্ষ্য পেরিয়ে যায় স্কটল্যান্ড। আন্তর্জাতিক টি-টোয়েন্টিতে নামিবিয়ার বিপক্ষে চারবারের দেখায় এটাই তাদের প্রথম জয়। আগের তিনবারই হেরেছিল তারা।

স্কটল্যান্ডের পক্ষে সর্বোচ্চ রান করেন অধিনায়ক বেরিংটন। ৩৫ বলে দুটি করে চার ও ছক্কায় ৪৭ রানের ইনিংস খেলে দলকে জিতিয়ে মাঠ ছাড়েন তিনি। তার সঙ্গে পঞ্চম উইকেটে ৪৮ বলে ৭২ রানের গুরুত্বপূর্ণ জুটি গড়েন লিস্ক। মাত্র ১৭ বলে চারটি ছক্কায় তিনি ব্যাট হাতে করেন ৩৫ রান। পাশাপাশি বল হাতে একটি উইকেট নিয়ে ম্যাচের সেরা খেলোয়াড়ের পুরস্কার জেতেন তিনি।

এক পর্যায়ে ১১ ওভারে ৭৩ রানে ৪ উইকেট হারিয়ে ধুঁকছিল স্কটল্যান্ড। সেই চাপের মুহূর্তে হাল ধরে ঝড় তোলেন বেরিংটন ও লিস্ক। তাদের কল্যাণে শেষ ৪ ওভারে ৪০ রানের সমীকরণ অনায়াসে মিলে যায়। মূলত ডেভিড ভিসার করা ১৭তম ওভার ম্যাচের গতিপথ নির্ধারণ করে দেয়। ওই ওভারে আসে ১৯ রান। লিস্ক হাঁকান দুই ছক্কা, বেরিংটন মারেন একটি চার।

এর আগে ৫৫ রানে ৪ উইকেট খুইয়ে ফেলা নামিবিয়াকে টানেন অধিনায়ক গেরহার্ড এরাসমাস। তিনি ছাড়া দলটির আর কেউ ত্রিশ ছাড়াতে পারেননি। ৩১ বলে পাঁচটি চার ও দুটি ছক্কায় ৫২ রান করেন তিনি। হোয়েল তিনটি ও কারি দুটি উইকেট শিকার করেন।

আসরে নিজেদের প্রথম ম্যাচ বৃষ্টির কারণে পণ্ড হওয়ায় ইংল্যান্ডের সঙ্গে পয়েন্ট ভাগাভাগি করতে হয়েছিল স্কটল্যান্ডকে। অন্যদিকে, নামিবিয়া নিজেদের প্রথম ম্যাচে সুপার ওভারের রোমাঞ্চে হারিয়েছিল ওমানকে।

Comments