এশিয়া কাপ ২০২৩

সুস্থ হয়ে উঠেছেন লিটন, এশিয়া কাপে যেতে পারবেন কি?

গত ২৭ অগাস্ট এশিয়া কাপ খেলতে যায় বাংলাদেশ দল। কিন্তু জ্বরে পড়ে লিটন যেতে পারেননি। তার সুস্থ হওয়ার অপেক্ষা করা হয়। কিন্তু গ্রুপ পর্বের দুই ম্যাচ খেলার সম্ভাবনা না থাকায় তার বদলে পাঠানো হয় বিজয়কে।
এশিয়া কাপে লিটন দাস

এশিয়া কাপে খেলতে যাওয়ার দিন ভাইরাস জ্বরে পড়ে পরে ছিটকে গিয়েছিলেন লিটন দাস। তার বদলে নেওয়া হয়েছিল এনামুল হক বিজয়কে। তবে লিটন এখন পুরোপুরি সুস্থ হয়ে উঠেছেন, দলেও আছে কিছু চোট সমস্যা। তাই তাকে সুপার ফোরে দলে যুক্ত করার একটা চিন্তা করছেন নির্বাচকরা।

গত ২৭ অগাস্ট এশিয়া কাপ খেলতে যায় বাংলাদেশ দল। কিন্তু জ্বরে পড়ে লিটন যেতে পারেননি। তার সুস্থ হওয়ার অপেক্ষা করা হয়। কিন্তু গ্রুপ পর্বের দুই ম্যাচ খেলার সম্ভাবনা না থাকায় তাকে রুলড আউট করে পাঠানো হয় বিজয়কে। 

গ্রুপ পর্ব পেরিয়ে বাংলাদেশ এখন নিশ্চিত করেছে সুপার ফোর। সেখানে ভারত-পাকিস্তানের মতো দলের বিপক্ষে আছে লড়াই। প্রধান নির্বাচক মিনহাজুল আবেদিন নান্নু দ্য ডেইলি স্টারকে জানিয়েছেন, দলে আরও কিছু চোট সমস্যা আছে। সব মিলিয়ে লিটনকে পাঠানো নিয়ে আলাপ করছেন তারা,  'লিটন সুস্থ আছে। তাকে পাঠানো যায় কিনা সেটা নিয়ে আমরা আলাপ করছি। কারণ ওখানেও অনেকগুলো খেলোয়াড়ের ইনজুরি কনসার্ন আছে।'

দলে নতুন করে চোট সমস্যা না থাকলে লিটনকে নিয়ম অনুযায়ী যুক্ত করা যাবে না। কারণ তাকে আগেই পুরো টুর্নামেন্টেই রুলড আউট করা হয়েছিল। এখন অন্য কারো চোটই কেবল ফেরাতে পারে এই তারকাকে। দলে দু'একজন খেলোয়াড়ের কিছু চোট সমস্যা থাকায় এই চিন্তা বাস্তবে রূপ পেতে পারে।  

লিটন না থাকায় এবার এশিয়া কাপে ওপেনিং নিয়ে ভুগতে হয় বাংলাদেশকে। দুই আনকোরা ওপেনার নাঈম শেখ আর তানজিদ হাসান তামিমক শ্রীলঙ্কার বিপক্ষে নামিয়ে ফল হয়নি। আফগানিস্তানের বিপক্ষে মেইক শিফট ওপেনার হিসেবে নাঈমের সঙ্গে পাঠানো হয় মেহেদী হাসান মিরাজকে। মিরাজ বাজিমাত করে সেঞ্চুরিতে রাঙালেও নাঈমের ব্যাটে রান আসেনি। কঠিন ম্যাচে তাই অভিজ্ঞ লিটনকে চাইছে দল।

সুপার ফোরে আগামী বুধবার লাহোরে স্বাগতিক পাকিস্তানের মুখোমুখি হবে বাংলাদেশ।

Comments