ইংল্যান্ড-বাংলাদেশ সিরিজ ২০২৩

সেই রিভিউর সময় উদ্বিগ্ন ছিলেন মালান

তখন ম্যাচের ১৫তম ওভার। তিন উইকেট হারিয়ে চাপে পড়া ইংল্যান্ডের ভরসা মালান। তাইজুল ইসলামের বলে স্লগ সুইপে ছক্কা মেরে দলের রান ৫৮ তে নেওয়ার পরই আউট হতে পারতেন তিনি। তাইজুলের বল টার্ন করে তার ব্যাট ফাঁকি দিয়ে লেগেছিল প্যাডে।
Dawid Malan
দাবিদ মালান

বলা চলে দাবিদ মালান একাই হারিয়ে দিয়েছেন বাংলাদেশকে। এক প্রান্তে পড়ছিল উইকেট, কিন্তু তিনি ছিলেন অবিচল। মিরপুরের অতি চেনা উইকেটের ধরণ বুঝে চালিয়েছেন ব্যাট। অপরাজিত সেঞ্চুরিতে দলকে জিতিয়ে মাঠ ছেড়েছেন। তবে একটু এদিক সেদিক হলে ৩২ রানেই থামতে হতো তাকে। ম্যাচের ফলও হতে পারত ভিন্ন।

তখন ম্যাচের ১৫তম ওভার। তিন উইকেট হারিয়ে চাপে পড়া ইংল্যান্ডের ভরসা মালান। তাইজুল ইসলামের বলে স্লগ সুইপে ছক্কা মেরে দলের রান ৫৮ তে নেওয়ার পরই আউট হতে পারতেন তিনি। তাইজুলের বল টার্ন করে তার ব্যাট ফাঁকি দিয়ে লেগেছিল প্যাডে।

আম্পায়ার জোরালো আবেদনে সাড়া দেননি। অনেক ভেবে একদম শেষ মুহূর্তে গিয়ে রিভিউ নেন বাংলাদেশ অধিনায়ক তামিম ইকবাল। বল ট্রেকিং প্রযুক্তিতে দেখা যায় বল লাগত লেগ স্টাম্পের বাইরের দিকে। আম্পায়ার্স কলে বেঁচে যান মালান। মাঠের আম্পায়ার আউট দিলে টিভি আম্পায়ারকেও সেটাই বহাল রাখতে হতো।

৩২ রানে জীবন পাওয়া মালান ম্যাচ শেষে অপরাজিত ১১৪ রানে। ইংল্যান্ড জেতে ৩ উইকেটে। সংবাদ সম্মেলনে এসে সেই রিভিউর সময়টা নিয়ে জানান, তখন আউট হওয়ার ভয় পেয়েছিলেন তিনি, 'আমি জসকে বলেছিলাম এটা ক্লোজ (আউট হওয়ার জন্য)। কিন্তু সে বলছিল তার সেরকম মনে হয় না। আমি যেখানে গার্ড নিয়েছিলাম ভেবেছিলাম হয়ত লাইনের কিছুটা বাইরে থাকবে, এরপর অ্যাঙ্গেল করে বেরিয়ে যাবে। তবে আমার ভাবনার চেয়েও অনেক ক্লোজ ছিল। কপাল ভালো মাঠের আম্পায়ার আউট দেননি।' 

Comments