কৃত্রিম বুদ্ধিমত্তার সংবাদ পাঠক, আশীর্বাদ না অভিশাপ

সম্প্রতি বেশ কিছু টিভি চ্যানেলে কৃত্রিম বুদ্ধিমত্তার সংবাদ পাঠকের আবির্ভাবে নতুন করে বিতর্ক দেখা দিয়েছে। এ খাতের সংশ্লিষ্টরা প্রশ্ন তুলেছেন, এটি আশীর্বাদ না অভিশাপ। 
বিশ্বের নানা দেশে ব্যবহার হচ্ছে এআই সংবাদ পাঠক। বাম থেকে ডানে ভারতের লিসা, চীনের ইংলিশ এআই অ্যাংকর, কুয়েতের ফেদা ও চীনের রেন শাওরং। ছবি: সংগৃহীত
বিশ্বের নানা দেশে ব্যবহার হচ্ছে এআই সংবাদ পাঠক। বাম থেকে ডানে ভারতের লিসা, চীনের ইংলিশ এআই অ্যাংকর, কুয়েতের ফেদা ও চীনের রেন শাওরং। ছবি: সংগৃহীত

সাম্প্রতিককালে সবচেয়ে আলোচিত কয়েকটি বিষয়ের মধ্যে কৃত্রিম বুদ্ধিমত্তা (এআই) অন্যতম। এরই মধ্যে কৃত্রিম বুদ্ধিমত্তার অনেক ধরনের ইতিবাচক সুবিধার পাশাপাশি নেতিবাচক কিছু বিষয়ও উঠে এসেছে। যার মধ্যে রয়েছে কোটি কোটি মানুষের চাকরি কৃত্রিম বুদ্ধিমত্তার কাছে চলে যাওয়ার ভয়।

সম্প্রতি বেশ কিছু টিভি চ্যানেলে কৃত্রিম বুদ্ধিমত্তার সংবাদ পাঠকের আবির্ভাবে নতুন করে বিতর্ক দেখা দিয়েছে। এ খাতের সংশ্লিষ্টরা প্রশ্ন তুলেছেন, এটি আশীর্বাদ না অভিশাপ। 

ভারতের ওডিশার টিভি চ্যানেল ওটিভি প্রথমবারের মতো কৃত্রিম বুদ্ধিমত্তা দ্বারা পরিচালিত সংবাদ উপস্থাপিকা 'লিসা' কে অন এয়ারে এনেছে, যা ভারতের এই রাজ্যে প্রথম। ৯ জুলাই রাজ্যের রাজধানী ভুবনেশ্বরের এক অনুষ্ঠানে 'লিসা'-কে উন্মোচন করে চ্যানেলটি।

ওডিশা অঞ্চলের সূক্ষ্ম হাতের কাজে তৈরি শাড়ি পরিহিত লিসাকে দেখলে বোঝার উপায় নেই তিনি আসল মানুষ নন; বরং কৃত্রিম বুদ্ধিমত্তার তৈরি একজন ভার্চুয়াল নারী। কৃত্রিম বুদ্ধিমত্তা খাতের দ্রুত অগ্রগতির মধ্যে, এই নতুন উদ্যোগের মাধ্যমে ওটিভি দেশটিতে সম্প্রচার মাধ্যমে আরেকটি মাইলফলক স্থাপন করেছে।

তবে লিসাই প্রথম কৃত্রিম বুদ্ধিমত্তার সংবাদ উপস্থাপক নয়।

২০১৮ সালের নভেম্বরে, চীন বিশ্বের সর্বপ্রথম কৃত্রিম বুদ্ধিমত্তাসম্পন্ন সংবাদ উপস্থাপক নিয়ে আসে। দেশটির সরকারি টেলিভিশন চ্যানেল শিনহুয়া 'ইংলিশ এআই অ্যাঙ্কর' নামক এই সংবাদ উপস্থাপককে আন্তর্জাতিক ইন্টারনেট সম্মেলনে উন্মোচন করে।

শিনহুয়ার উপস্থাপক ঝাং ঝাওয়ের আদলে এই কৃত্রিম বুদ্ধিমত্তার উপস্থাপককে তৈরি করা হয়। যা এক নাগাড়ে ২৪ ঘণ্টা ও বছরে ৩৬৫ দিনই কাজ করতে সক্ষম।

অপরদিকে, কুয়েত টাইমসের সংসৃষ্ট কুয়েত নিউজ চলতি বছরে 'ফেদা' নামক এক সংবাদ উপস্থাপিকা উন্মোচন করে। ফেদা কুয়েতি উচ্চারণ করতে পারে এবং অনলাইন নিউজ বুলেটিনও পড়তে পারে।

কুয়েত, চীন, মার্কিন যুক্তরাষ্ট্র, দক্ষিণ কোরিয়া এবং ভারত সহ অনেক দেশই কৃত্রিম বুদ্ধিমত্তার সংবাদ উপস্থাপক তৈরি করছে। তবে সম্প্রতি তাইওয়ানও কৃত্রিম বুদ্ধিমত্তার সংবাদ উপস্থাপক নিয়ে এসেছে। যেটি আবহাওয়ার পূর্বাভাস পাঠ করতে পারে। পাশাপাশি তাইওয়ানের এই সংবাদ উপস্থাপকটির অতীতের সম্প্রচারগুলো থেকে শেখার ক্ষমতা রয়েছে; যা থেকে এটি এর বক্তৃতা, বিরতি, ধ্বনির উত্থান-পতন এবং সামগ্রিক উপস্থাপনাকে উন্নত করতে পারে।

তবে বলা হচ্ছে, এখন পর্যন্ত কৃত্রিম বুদ্ধিমত্তার সংবাদ উপস্থাপন একজন মানব উপস্থাপকের মতো ততটা সাবলীল হয়ে উঠতে পারেনি। একজন মানুষের আদলে কৃত্রিম বুদ্ধিমত্তা তৈরি করে তাকে দিয়ে সংবাদ পাঠ করানোর নৈতিকতা নিয়েও প্রশ্ন তুলেছেন অনেকে। এ বিষয়ে সুষ্ঠু নীতিমালা তৈরির দাবি এসেছে সাংবাদিকতা গবেষণার সঙ্গে সংশ্লিষ্ট বিভিন্ন মহল থেকে।

তবে এসব বিতর্ক সত্ত্বেও এ খাতে বিনিয়োগ কমার সম্ভাবনা নেই বললেই চলে।

চলতি বছরে বিনিয়োগকারী ব্যাংক গোল্ডম্যান স্যাকসের এক প্রতিবেদনে বলা হয়, ভবিষ্যতে কৃত্রিম বুদ্ধিমত্তা প্রযুক্তিটি ৩০ কোটি চাকরি প্রতিস্থাপন করতে পারে। তারা জানায়, এই প্রযুক্তি মার্কিন যুক্তরাষ্ট্র এবং ইউরোপের এক চতুর্থাংশ কাজ দখল করে নিতে পারে।

Comments

The Daily Star  | English
 foreign serial

Iran-Israel tensions: Dhaka wants peace in Middle East

Saying that Bangladesh does not want war in the Middle East, Foreign Minister Hasan Mahmud urged the international community to help de-escalate tensions between Iran and Israel

9h ago