টিকটক বিতর্কের মধ্যেই যুক্তরাষ্ট্রে জনপ্রিয়তা পাচ্ছে একই প্রতিষ্ঠানের অ্যাপ লেমন৮

অ্যাপটোপিয়া বলছে, তারা এখনো লেমন৮-এর জন্য অ্যাপ স্টোর এবং গুগল প্লে স্টোরে পেইড সার্চের হদিস পাননি, তবে ধারণা করা যাচ্ছে অ্যাপটির কর্তৃপক্ষ পেইড ইনস্টল ক্যাম্পেইন পরিচালনা করছে।
টিকটক বিতর্কের মধ্যেই যুক্তরাষ্ট্রে জনপ্রিয়তা পাচ্ছে একই প্রতিষ্ঠানের অ্যাপ লেমন৮
ছবি: সংগৃহীত

যুক্তরাষ্ট্রে টিকটক নিষিদ্ধ করা হবে কি না তা নিয়ে জোর জল্পনার মধ্যেই ওই সামাজিক মাধ্যমটির মূল প্রতিষ্ঠান বাইটড্যান্সের তৈরি আরেকটি সোশ্যাল মিডিয়া অ্যাপ যুক্তরাষ্ট্রের অ্যাপ স্টোরে শীর্ষ দশে স্থান করে নিয়েছে। লেমন৮ নামের এই অ্যাপকে বলা হচ্ছে ইনস্টাগ্রামের সম্ভাব্য প্রতিদ্বন্দ্বী। 

যুক্তরাষ্ট্রে প্রায় অপরিচিত একটি অ্যাপের হঠাৎ করে এমন নাটকীয় উত্থান অনেককেই বিস্মিত করেছে। মার্চের ২৮ তারিখের আগে যুক্তরাষ্ট্রে ডাউনলোড হওয়া অ্যাপগুলোর তালিকায় কখনো শীর্ষ দুই শ'র মধ্যেও স্থান পায়নি লেমন৮, যেটি এখন শীর্ষ দশে স্থান করে নিয়েছে। অর্থাৎ, বর্তমানে যুক্তরাষ্ট্রে ইউটিউব, ফেসবুক, জিমেইল এবং ফেসবুকের চেয়েও বেশি ডাউনলোড হচ্ছে এই অ্যাপটি। 

বাইটড্যান্স জানিয়েছে, তাদের প্রতিষ্ঠানের পক্ষ থেকে লেমন৮-এর ব্যবহারকারী বাড়ানোর ওপর যে জোর দেওয়া হয়েছে, এটি তারই ফলাফল। যুক্তরাষ্ট্রে তথ্য বিশ্লেষণকারী প্রতিষ্ঠানগুলোর কাছেও এই অ্যাপটি এতটাই নতুন যে, তারা এ সম্পর্কিত সব তথ্য এখনো আত্মস্থ করে উঠতে পারেনি। 

লেমন৮ মূলত খাবার, সৌন্দর্য্য, সুস্বাস্থ্য এবং ভ্রমণ বিষয়ক ছবি ও ভিডিও শেয়ারের মাধ্যম। যুক্তরাষ্ট্রের ব্যবহারকারীদের জন্য নতুন হলেও এটি একটি পুরোনো অ্যাপ। থাইল্যান্ড ও জাপানে বেশ জনপ্রিয়। 

সম্প্রতি বাইটড্যান্স যুক্তরাষ্ট্রের টিকটক ইনফ্লুয়েন্সারদের মাধ্যমে লেমন৮-এর প্রচারণা চালিয়েছে। এ জন্য দেশটির টিকটক ফিডে খুব সহজেই এখন লেমন৮-এর উপস্থিতি চোখে পড়বে। যার ফলাফল পড়েছে অ্যাপ ডাউনলোড এবং ব্যবহারকারীর সংখ্যায়। সোশ্যাল মিডিয়া ইনফ্লুয়েন্সাররা অ্যাপটিকে 'যেন পিনটারেস্ট এবং ইনস্টাগ্রামের বাচ্চা' হিসেবে বর্ণনা করেছেন। 

২০২০ সালের মার্চে অ্যাপটি বিশ্বব্যাপী চালু করা হয়। যুক্তরাষ্ট্রের অ্যাপ স্টোরে এটি আগে থেকেই ছিল। যদিও সম্প্রতি বাইটড্যান্স অ্যাপটিকে পরিচিত করার জন্য বিজ্ঞাপন বাবদ বড় অর্থ খরচ করেছে, ফলে এটি এখন সবার নজরে এসেছে। 

অ্যাপ সম্পর্কিত তথ্য বিশ্লেষণকারী প্রতিষ্ঠান অ্যাপটোপিয়ার তথ্য অনুসারে, ২০২০ সালের মার্চে আইওএস এবং অ্যান্ড্রয়েডের জন্য লেমন৮ অ্যাপটি চালু করা হয়। এখন পর্যন্ত বিশ্বব্যাপী ১.৬ কোটি বার ডাউনলোড করা হয়েছে অ্যাপটি। সবচেয়ে বেশি ডাউনলোড হয়েছে জাপানে, ৩৮ শতাংশ। যুক্তরাষ্ট্রে এই মুহূর্তে কত সংখ্যক সক্রিয় ব্যবহারকারী আছে, তা জানা সম্ভব না হলেও ধারণা করা হচ্ছে এই মুহূর্তে বিশ্বজুড়ে অ্যাপটির সক্রিয় ব্যবহারকারীর সংখ্যা প্রায় ৪৫ লাখ। 

অ্যাপটোপিয়া বলছে, তারা এখনো লেমন৮-এর জন্য অ্যাপ স্টোর এবং গুগল প্লে স্টোরে পেইড সার্চের হদিস পাননি, তবে ধারণা করা যাচ্ছে অ্যাপটির কর্তৃপক্ষ পেইড ইনস্টল ক্যাম্পেইন পরিচালনা করছে। আবার হতে পারে বাইটড্যান্সের মতো বড় প্রতিষ্ঠান তাদের কোনো না কোনো চ্যানেলে অ্যাপটির প্রচার করেছে। 

টিকটকেও অ্যাপটি নিয়ে উল্লেখযোগ্য প্রচারণা চোখে পড়ছে। যারা অ্যাপটির রিভিউ দিচ্ছেন, তারা শুধু এটি সম্পর্কে ভালো ভালো কথাই বলছেন। কিন্তু এগুলো কোনো বিজ্ঞাপন কি না, সে সম্পর্কে কেউ স্পষ্ট করে বলছেন না। 

যেমস গ্যাব্রিয়েল ভিক্টর (সাড়ে ৪ লাখ ফলোয়ার) নামের একজন টিকটক ভিডিও নির্মাতা তার ভিডিওতে বলেছেন, 'এটা খুবই দারুণ। সৌন্দর্যের দিক থেকে মোহনীয়। মনে হচ্ছে এটা পিনটারেস্ট এবং ইনস্টাগ্রামের একটা বাচ্চা।'

প্যাশন উইলেমস (৭৪ হাজার ফলোয়ার) নামের আরেকজন নির্মাতা বলেন, 'আপনি যদি এখনো অ্যাপটি সম্পর্কে না শুনে থাকেন, তাহলে অ্যাপ স্টোরে গিয়ে ডাউনলোড করুন।'

তবে হঠাৎ করে টিকটকে ব্যাপকভাবে লেমন৮-এর প্রচারণাকে সন্দেহের চোখেও দেখছেন অনেকে। আলেক্সান্দ্রিয়া ব্রুমফিল্ড নামে একজন ব্যবহারকারী বলেন, 'হঠাৎ করে টিকটকে শুধু এটির প্রচারণাই দেখছি। এটা কি কোনো ষড়যন্ত্র?'

এই সন্দেহের যৌক্তিক কারণও আছে। 

বিজনেস ইনসাইডারের ফেব্রুয়ারি মাসের এক প্রতিবেদনে বলা হয়, বাইটড্যান্স যুক্তরাজ্য এবং যুক্তরাষ্ট্রে গোপনে লেমন৮-এর প্রচারে কাজ করে যাচ্ছে এবং অ্যাপটির প্রচারণার জন্য সামাজিক মাধ্যমের নির্মাতাদের অর্থও প্রদান করছে। 

ইনফ্লুয়েন্সাররা অ্যাপটির প্রচারণায় যেসব শব্দ ব্যবহার করছে, তা সহজেই অনেকের নজর কাড়বে। প্রায় সবাই অ্যাপটিকে পিনটারেস্ট এবং ইনস্টাগ্রামের সঙ্গে তুলনা করেছেন, কেউ কেউ অ্যাপটিকে উল্লেখিত দুটি অ্যাপের সংমিশ্রন কিংবা এর চেয়েও ভালো বলে দাবি করেছেন। 

টেকক্রাঞ্চের প্রতিবেদনে বলা হয়েছে, অ্যাপটির প্রচারণায় নিয়োজিত নির্মাতাদের মধ্যে এমন একজনও পাওয়া যায়নি, যারা স্বীকার করেছেন যে তারা এজন্য কোনো অর্থ গ্রহণ করেছেন। টিকটকে #Lemon8 হ্যাশট্যাগে বিভিন্ন ভিডিও ২০০ কোটিরও বেশি ভিউ হয়েছে।  

যুক্তরাষ্ট্রে টিকটকে নিষেধাজ্ঞার প্রেক্ষাপটে লেমন৮-কে জনপ্রিয় করার চেষ্টা চালানো হলেও অ্যাপটি কোনোভাবেই টিকটকের বিকল্প নয়। আবার মার্কিন আইনপ্রণেতারা যে শুধু টিকটককেই নিষিদ্ধ করতে চাচ্ছে তাও-নয়। তারা চীনা সব অ্যাপেই কঠোর নিয়ন্ত্রণ আরোপ করতে চাইছে। এমন পরিস্থিতিতে লেমন৮-এর মতো নতুন একটি চীনা অ্যাপ মার্কিন বাজারে কীভাবে নিজেদেরকে দীর্ঘস্থায়ীভাবে প্রতিষ্ঠা করবে, তা দেখা যাবে সামনের মাসগেুলোতে। 

সূত্র: জেডনেট, টেকক্রাঞ্চ, বিজনেস ইনসাইডার
গ্রন্থনা: আহমেদ হিমেল

Comments

The Daily Star  | English

Banking sector abused by oligarchs: CPD

Oligarchs are using banks to achieve their goals, harming good governance, transparency, and accountability in the financial sector, said economists and experts yesterday.

1h ago