পলাশীতে চাঁদাবাজি করতে যাওয়া সাবেক ঢাবি ছাত্রলীগ নেতাকে পিটুনি

পরে দোকানদাররা ৯৯৯ নম্বরে কল করে তাকে পুলিশের কাছে হস্তান্তর করে।
পলাশী মার্কেট। ছবি: সংগৃহীত

রাজধানীর পলাশী মার্কেটে চাঁদাবাজি করতে যাওয়া ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের (ঢাবি) সাবেক এক ছাত্রলীগ নেতাসহ দুইজনকে পিটুনি দিয়েছে দোকানদাররা।

চাঁদাবাজির ঘটনায় আজ সোমবার ওই দুজনের বিরুদ্ধে চকবাজার থানায় অভিযোগ করেছেন দোকানদাররা।

দোকানদাররা জানান, গতকাল রোববার রাত ১১টার দিকে চাঁদাবাজি করতে যান মেহেদীসহ দুজন। পরে তাদের পুলিশের হাতে তুলে দেয়।

তারা হলেন-ঢাবির সলিমুল্লাহ মুসলিম হল শাখা ছাত্রলীগের সাবেক সভাপতি মেহেদী হাসান ও তার সহযোগী শহিদুল ইসলাম।

পলাশী দোকান মালিক সমিতির সাবেক সাধারণ সম্পাদক মাহবুবুল হক দ্য ডেইলি স্টারকে বলেন, 'গত এক মাস ধরে দোকানদারদের কাছে চাঁদা দাবি করছিল মেহেদী। আমরা রাজি না হওয়ায় তিনি আমাদের ধারালো অস্ত্র ও লোহার রড দিয়ে ভয় দেখায়।'

'মেহেদী গতকাল আরেকজনসহ এসে দোকানদারদের কাছে চাঁদা দাবি করেন। টাকা দিতে অস্বীকার করলে ওই নেতা তাদের ওপর হামলা চালায়,' বলেন তিনি।

পরে দোকানদাররা একজোট হয়ে তাদের পিটুনি দেয় এবং ৯৯৯ নম্বরে কল করে পুলিশ ডাকে বলে জানান তিনি। 

ভুক্তভোগী দোকানদার নজরুল ইসলাম ডেইলি স্টারকে বলেন, 'চাঁদা চাইতে এলে আমরা তাকে (মেহেদী) বাধা দেই। তিনি ক্ষিপ্ত হয়ে প্রথমে আমাকে ঘুষি মারেন এবং পরে ধারালো অস্ত্র (চাপাতি) নিয়ে আসেন। তাদের অত্যাচারে আমরা বিরক্ত।'

মার্কেটের আরেক দোকানদার ওবায়েদ উল্লাহ দ্য ডেইলি স্টারকে বলেন, 'এক মাস ধরে ওই নেতা দোকানদারদের বিরক্ত করছেন। আমরা তার বিরুদ্ধে মামলা করেছি।'

এ ঘটনার বিষয়ে ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় ছাত্রলীগের বর্তমান নেতারা কোনো মন্তব্য করতে রাজি হননি।

Comments