অবৈধ সম্পদ অর্জনের মামলায় সাহেদের বিচার শুরু

রিজেন্ট গ্রুপের চেয়ারম্যান সাহেদ করিমের বিরুদ্ধে ১ কোটি ৬৯ লাখ টাকার অবৈধ সম্পদ অর্জনের অভিযোগে দায়ের করা মামলায় বিচার কাজ শুরু হয়েছে।
সাহেদ করিম। ছবি: সংগৃহীত

রিজেন্ট গ্রুপের চেয়ারম্যান সাহেদ করিমের বিরুদ্ধে ১ কোটি ৬৯ লাখ টাকার অবৈধ সম্পদ অর্জনের অভিযোগে দায়ের করা মামলায় বিচার কাজ শুরু হয়েছে।

আজ সোমবার ঢাকার একটি আদালতে অভিযোগকারীর জবানবন্দির মধ্য দিয়ে এই বিচার শুরু হয়ে।

ঢাকার বিশেষ জজ আদালত-১০ এর বিচারক মোহাম্মদ নজরুল ইসলাম দুর্নীতি দমন কমিশনের উপ-পরিচালক ফরিদ আহমেদ পাটোয়ারীর জবানবন্দি রেকর্ড করেন।

পরে আসামিপক্ষের আইনজীবী সাক্ষীকে আংশিকভাবে জেরা করেন এবং তাদের জেরা সম্পন্ন না হওয়ায় বিচারকাজ মুলতবি করার আবেদন করেন।

আগামী ২৭ জুন মামলার পরবর্তী শুনানির দিন ধার্য করেছেন বিচারক।

গত ১৭ এপ্রিল একই আদালত সাহেদের বিরুদ্ধে এ মামলায় অভিযোগ গঠন করেন।

অবৈধ সম্পদ অর্জনের সঙ্গে জড়িত থাকার অভিযোগে দুর্নীতি দমন কমিশনের উপ-পরিচালক ফরিদ আহমেদ পাটোয়ারী গত বছরের ১ মার্চ সাহেদের বিরুদ্ধে ঢাকা ইন্টিগ্রেটেড অফিস-১ এ মামলাটি করেন ।

তদন্ত শেষে গত ২ ফেব্রুয়ারি সাহেদের বিরুদ্ধে অভিযোগ গঠন করে দুদক।

সাহেদকে ২০২০ সালের ১৫ জুলাই সাতক্ষীরার দেবহাটা এলাকা থেকে গ্রেপ্তার করা হয়। তিনি দেশ থেকে পালানোর চেষ্টা করছিলেন।

পরে তার বিরুদ্ধে সারাদেশের বিভিন্ন থানায় অস্ত্র মামলাসহ ৩৬টিরও বেশি মামলা দায়ের করা হয়।

২০২০ সালের ২৮ সেপ্টেম্বর সাহেদকে অস্ত্র মামলায় যাবজ্জীবন কারাদণ্ড দেওয়া হয়।

২০২০ সালের ১৮ আগস্ট ঢাকার আরেকটি আদালত চেক জালিয়াতির মামলায় সাহেদকে ৬ মাসের কারাদণ্ড ও ৫৩ লাখ টাকা জরিমানা করেন।

Comments