ভারতে বিক্রি হচ্ছে ডোমিনোজের সবচেয়ে সস্তা পিৎজা

ভারতে মাত্র ৪৯ রুপিতে বা শূন্য দশমিক ছয় ডলার মূল্যে ডোমিনোজের পিৎজা বিক্রি হচ্ছে।
ভারত, ডোমিনোজের পিৎজা, ডোমিনোজ, পিৎজা, মূল্যস্ফীতি,
ভারতের নয়ডায় ডোমিনোজের একজন স্টাফ রেস্তোরাঁয় ৪৯ রুপির পিৎজা লেখা বিলবোর্ডের পাশে দাঁড়িয়ে আছেন। ছবি: রয়টার্স

ভারতে মাত্র ৪৯ রুপিতে বা শূন্য দশমিক ছয় ডলার মূল্যে ডোমিনোজের পিৎজা বিক্রি হচ্ছে। ভারত হলো যুক্তরাষ্ট্রের বাইরে ডোমিনোজের শীর্ষ বাজার। কিন্তু, সেখানে মূল্যস্ফীতির কারণে ভালো মুনাফা করতে পারছে না ডোমিনোজ।

আজ বৃহস্পতিবার বার্তা সংস্থা রয়টার্সের প্রতিবেদনে এ তথ্য জানানো হয়েছে।

ভারতে এই ফ্র্যাঞ্চাইজির প্রধান নির্বাহী সমীর খেতারপাল জানিয়েছেন, সাত ইঞ্চি চিজি পিৎজা এখন ডোমিনোজের সবচেয়ে সস্তা পিৎজা। অনেকে আউটলেটে আসছেন কিংবা অ্যাপে অর্ডার করছেন, কারণ এখানে ৪৯ রুপির কলআউট আছে। ডোমিনোজের গ্লোবাল টিম এই পরিকল্পনাকে সমর্থন জানিয়েছেন।

সমীর খেতারপাল জানান, বর্তমানে গ্রাহকরা কম খাচ্ছেন, কারণ সবকিছুর দাম অনেক বেশি। তাই আমরা মনে করছি, ভোক্তাদের সঙ্গে কোনো প্রতিযোগিতায় যাওয়া উচিত হবে না।

অনলাইন মূল্য তালিকা অনুযায়ী, সাংহাইতে ডোমিনোজের (ডিপিজেড.এন) সবচেয়ে সস্তা সুস্বাদু পিৎজার দাম প্রায় ৩ দশমিক ৮০ ডলার এবং সান ফ্রান্সিসকোতে প্রায় ১২ ডলার। ডোমিনোজের গ্লোবাল হেডকোয়ার্টার স্থানীয় ফ্র্যাঞ্চাইজিগুলোর কাছে ভারতীয় বাজার সম্পর্কে জানতে চেয়েছে।

ডোমিনোজের ৬ জন নির্বাহী এবং ১২ জন স্টোর ম্যানেজারের সঙ্গে কথা বলে রয়টার্স জানতে পেরেছে, ডোমিনোজ, পিৎজা হাট ও বার্গার কিংয়ের ফাস্ট ফুড জায়ান্টরা ভারতীয় বাজারে ব্যাপক মূল্যস্ফীতি মোকাবিলায় কৌশল পরিবর্তনে বাধ্য হচ্ছে। এসব কোম্পানি ৩ দশকেরও বেশি সময় ধরে দ্রুত প্রবৃদ্ধি অর্জন করা ভারতীয় বাজারে শেয়ার ধরে রাখার চেষ্টা চালিয়ে যাচ্ছে।

খেতারপালের জুবিল্যান্ট ফুডওয়ার্কস (জেইউবিআই.এনএস) ভারতে ডোমিনোজের ১ হাজার ৮১৬ টি আউটলেট পরিচালনা করে।

তিনি বলেন, মূল্যস্ফীতি মোকাবিলায় ও ব্যয় সংকোচনে প্রতি সোমবার স্টাফ মিটিং করেন তিনি। ২০২৩ সালের প্রথম তিন মাসে তার লাভ ৭০ শতাংশ কমেছে। গত বছর ডোমিনোজের ৬৩কোটি ৫০ লাখ ডলার আয়ের বেশিরভাগই ছিল জুবিল্যান্টের।

Comments