বিনোদন

পরীমনি হাসপাতালে, রাজ প্রাথমিক চিকিৎসা শেষে আলাদা বাসায়

মাথায় চারটি সেলাই নিয়ে প্রাথমিক চিকিৎসা শেষে নিজের বাসায় ফিরে যান রাজ।
শরীফুল রাজ ও পরীমনি। ছবি: সংগৃহীত

আবারো এক হয়েছেন পরীমনি ও শরীফুল রাজ—এমনটা শোনা গেলেও বাস্তবে আলাদা থাকছেন এই তারকা দম্পতি।

গতকাল শুক্রবার থেকে জ্বরের কারণে রাজধানীর একটি হাসপাতালে ভর্তি হয়েছেন পরীমনি। সেসময়ে স্ত্রীর পাশে দেখা যায়নি শরীফুল রাজকে।

একইদিনে শুক্রবার ভোররাতে শরীফুল রাজ দুর্ঘটনার শিকার হয়ে মাথায় আঘাত পান। রাজধানীর একটি হাসপাতালে চিকিৎসা নিতে হয় তাকে। সেখানে মাথায় চারটি সেলাই নিয়ে প্রাথমিক চিকিৎসা শেষে নিজের বাসায় ফিরে যান রাজ।

আবার এক হলেন রাজ-পরী
শরীফুল রাজ ও পরীমণি | ছবি: সংগৃহীত

একাধিক সূত্র দ্য ডেইলি স্টারকে জানায়, তাদের দুজনের মধ্যকার সম্পর্ক ঠিক হয়নি, আগের মতোই আছে। রাজ্যের কারণে তারা একদিন একসঙ্গে কাটিয়েছিলেন। কিন্তু দুজনেই আলাদা থাকছেন।

সাংসারিক টানাপোড়েন নিয়ে দীর্ঘদিন ধরেই আলোচনায় আছেন পরীমনি ও শরিফুল রাজ।

গত ১০ আগস্ট এই দম্পতির ছেলে শাহীম মুহাম্মদ রাজ্যের প্রথম জন্মবার্ষিকী উদযাপিত হয় রাজধানীর একটি ৫ তারকা হোটেলে। কিন্তু অনুষ্ঠানে দেখা যায়নি বাবা শরীফুল রাজকে।

জন্মবার্ষিকী অনুষ্ঠানের ঠিক ২ দিন আগে কলকাতা থেকে দেশে ফেরেন রাজ। জানা যায়, অনুষ্ঠানের আগের রাতে পরীর বাসায় গিয়ে ছেলের সঙ্গে দেখা করেন তিনি।

কলকাতা থেকে আনা উপহার ছেলের হাতে তুলে দেন। ছেলের সঙ্গে কিছুক্ষণ সময় কাটিয়ে চলে আসেন। অনেকে ধারণা করেছিলেন, ছেলের জন্মদিনের অনুষ্ঠানে রাজ যাবেন কিন্তু তাকে দেখা যায়নি।

নোবেল শান্তি পুরস্কার জয়ী এবং আলবুখারি ইন্টারন্যাশনাল ইউনিভার্সিটির চ্যান্সেলর প্রফেসর মুহাম্মদ ইউনূস বিশ্ববিদ্যালয়ের তৃতীয় সমাবর্তনে বক্তৃতা দিচ্ছেন। ছবি: সংগৃহীত

পরে গত বুধবার রাতে ছেলে রাজ্যকে নিয়ে একসঙ্গে কেক কাটতে দেখা যায় রাজ-পরীকে। গানবাংলার স্টুডিওতে কৌশিক হোসেন তাপস ও ফারজানা মুন্নীর সঙ্গে দেখা গেছে তাদের।

সেসময় রাজ-পরী সংশ্লিষ্ট একাধিক সূত্রে জানা যায়, ফের নতুন করে সংসার শুরু করেছেন এই দম্পতি। বেশ কিছুদিন ধরে রাজ বসুন্ধরা আবাসিক এলাকায় পরীর সঙ্গে থাকছেন বলেও শোনা যাচ্ছিল।

পরীমনি, শরিফুল রাজ,
পরীমনি ও শরিফুল রাজ। সংগৃহীত ফাইল ছবি

'গুণিন' সিনেমার শুটিং করতে গিয়ে প্রেমের সম্পর্কে জড়ান পরীমনি ও শরীফুল রাজ। গত বছরের ১৭ অক্টোবর গোপনে বিয়ে করেন তারা। এরপর গত ১০ জানুয়ারি সেই খবর প্রকাশ্যে আনেন। গত ১০ আগস্ট তাদের ঘরে আসে ছেলে শাহীম মুহাম্মদ রাজ্য।

Comments