ইউনিয়ন স্বাস্থ্যকেন্দ্রে ২৪ ঘণ্টা মাতৃস্বাস্থ্য সেবা পাওয়া যাবে: স্বাস্থ্যমন্ত্রী

পরিবার পরিকল্পনা অধিদপ্তরের অধীনে দেশে ৫০০টি ‘মডেল ইউনিয়ন স্বাস্থ্য ও পরিবার কল্যাণ কেন্দ্রে ২৪ ঘণ্টা মা ও নবজাতকের স্বাস্থ্যসেবা পাওয়া যাবে বলে স্বাস্থ্যমন্ত্রী জাহিদ মালেক জানিয়েছেন।
স্বাস্থ্যমন্ত্রী
স্বাস্থ্যমন্ত্রী জাহেদ মালিক। ফাইল ছবি

পরিবার পরিকল্পনা অধিদপ্তরের অধীনে দেশে ৫০০টি 'মডেল ইউনিয়ন স্বাস্থ্য ও পরিবার কল্যাণ কেন্দ্রে ২৪ ঘণ্টা মা ও নবজাতকের স্বাস্থ্যসেবা পাওয়া যাবে বলে স্বাস্থ্যমন্ত্রী জাহিদ মালেক জানিয়েছেন।

শেখ রাসেলের জন্মদিন উপলক্ষে আজ মঙ্গলবার রাজধানীর হোটেল ইন্টারকন্টিনেন্টালে এ সেবা উদ্বোধনের সময় তিনি এ কথা জানান।

এ জন্য প্রতি উপজেলার একটি ইউনিয়ন স্বাস্থ্যকেন্দ্রে প্রয়োজনীয় লোকবল ও যন্ত্রপাতি নিশ্চিত করা হয়েছে জানান তিনি।

মন্ত্রী জাহিদ মালেক বলেন, 'অনেক শিশু জন্মের সময় মারা যায়, অনেকে অসুস্থতা নিয়ে জন্মায়। আমরা এগুলো রোধ করতে কাজ করে যাচ্ছি। এজন্য আমাদের প্রাতিষ্ঠানিক ডেলিভারির সংখ্যা বাড়াতে হবে।'

'দেশের মোট ডেলিভারির ৫০ শতাংশ হাসপাতালে হয়, বাকিটা বাড়িতে' উল্লেখ করে তিনি বলেন, 'এসব কেন্দ্রে বছরে ১২ লাখ সাধারণ ডেলিভারি করা সম্ভব। এতে মাতৃ ও শিশু মৃত্যুর হার কমবে। আমাদের যে পরিকল্পনা তা বাস্তবায়ন করতে পারলে ৯০ থেকে শতভাগ ডেলিভারি প্রাতিষ্ঠানিক হয়ে যাবে।'

স্বাস্থ্যমন্ত্রী বলেন, 'আমাদের দেশে মোট ডেলিভারির ৬০ শতাংশ সিজারিয়ান হয়, যা বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থার মতে ১৫ শতাংশের বেশি হওয়ার কথা না। আমরা সিজারিয়ান কমিয়ে আনতে চাই। এ লক্ষ্যে এসব স্বাস্থ্যকেন্দ্র উন্নয়নের উদ্যোগ নিয়েছি। এখন ৫০০ করেছি, সামনে আরও ৫০০ করার পরিকল্পনা রয়েছে।'

স্বাস্থ্য মন্ত্রণালয়ের অধীনে পরিবার পরিকল্পনা অধিদপ্তর দেশের ৪ হাজার ৫৬২টি ইউনিয়নের প্রতিটিতে স্বাস্থ্য ও পরিবার কল্যাণ কেন্দ্র পরিচালনা করে। কিন্তু লোকবল ও অন্যান্য সুযোগ-সুবিধার অভাবে সেগুলো থেকে স্থানীয়রা মানসম্মত স্বাস্থ্যসেবা পান না।

চলতি বছরের ২২ জুলাই পরিবার পরিকল্পনা অধিদপ্তর দেশের প্রতিটি উপজেলার একটি কেন্দ্রকে 'মডেল হেলথ সেন্টারে' উন্নীত করতে সব উপজেলার স্বাস্থ্য ও পরিবার কল্যাণ কর্মকর্তাকে নির্দেশ দেয়।

Comments

The Daily Star  | English

Ghost loans: Krishi Bank issues loans in name of 4 persons who died before 1971

'I recently received a notice from Krishi Bank saying that my father had taken a loan of Tk 50,000 in 2014 from the bank. But my father died in 1969, how could he take the loan in 2014?' questions Abul Bashar, a retired policeman

15m ago