রোমান্টিক সম্পর্কে বেঞ্চিং কী, আপনাকে কি বেঞ্চ করা হচ্ছে?

আপনি যদি ‘জেন জি’ হয়ে থাকেন তবে শব্দটার মানে আপনার জানাই থাকার কথা। আর যদি অন্য জেনারেশনের হয়ে থাকেন তবে মনে প্রশ্ন জাগতেই পারে বেঞ্চিং আসলে কী।
বেঞ্চিং
ছবি: সংগৃহীত

আজকাল সামাজিক যোগাযোগমাধ্যমের মিম, ফান পোস্ট থেকে শুরু করে সব জায়গাতেই বেঞ্চিং শব্দটা নিয়ে বেশ ভালোই মাতামাতি হচ্ছে। তো কী এই বেঞ্চিং? আপনি যদি 'জেন জি' হয়ে থাকেন তবে শব্দটার মানে আপনার জানাই থাকার কথা। আর যদি অন্য জেনারেশনের হয়ে থাকেন তবে মনে প্রশ্ন জাগতেই পারে বেঞ্চিং মানে কি পার্কের বেঞ্চে বসে বাদাম-বুট খাওয়া, নাকি শুধু শুধুই বেঞ্চে বসে থাকা! আদতে বিষয়টি কিন্তু এসবের কিছুই নয়!

 

বেঞ্চিং কী

বেঞ্চিংয়ের অর্থ হচ্ছে কাউকে রোমান্টিকভাবে পছন্দ করা, কিন্তু তাকে সেই পছন্দের ভিত্তিতে অতটাও পাত্তা না দেওয়া যে তিনি ভাববেন আপনারা কোনো সম্পর্কে আছেন। অর্থাৎ রোমান্টিক সম্পর্কে কাউকে যদি একটি 'অপশন' হিসেবে বসিয়ে রাখা হয়, সেটিই বেঞ্চিং। খুব সহজ ও প্রচলিত ভাষায় যাকে বলে 'ঝুলিয়ে রাখা'। এবার হয়তো বিষয়টি অনেকটাই সহজ মনে হচ্ছে। কারণ ইন্টারনেটের যুগেরও অনেক আগে থেকে এই টার্মের সঙ্গে আমাদের পরিচয় আছে।

বেঞ্চিংয়ের মনস্তত্ত্ব

বেঞ্চিংয়ের পেছনে ব্যক্তির প্রথম কারণ থাকে এই যে, যাকে তিনি পছন্দ করছেন, তাকে এত বেশিও পছন্দ করছেন না যে তার সঙ্গে পুরোপুরি একটা সম্পর্কে চলে যাওয়া বা সম্পর্কের পরিণয় বা বিয়ের প্রতিশ্রুতি, সবার সামনে স্বীকৃতি দেওয়া, সামাজিক মাধ্যমে পোস্ট দেওয়া ইত্যাদি করা ঠিক মনে করছেন। ব্যক্তি যদি এসবের প্রস্তুত না থাকেন এবং একইসঙ্গে তিনি নিজের জন্য অন্য বিকল্প বা অপশন রাখতে চান, তবে তার বেঞ্চিংকেই সবচেয়ে সহজ ও উপযোগী পদ্ধতি মনে হবে। সম্পর্কের ক্ষেত্রে ক্যাজুয়াল ট্রেন্ডে অভ্যস্তদের বেঞ্চিং একটু বেশি অভ্যস্ততা এনে দিতে পারে। কারণ তারা তাদের বিকল্পগুলো একটু 'বাজিয়ে দেখতে চান'।

কীভাবে বুঝবেন আপনার সঙ্গে বেঞ্চিং হচ্ছে কি না

বেঞ্চিং যিনি করছেন, তার জন্য বিষয়টি যত সহায়কই হোক না কেন, যাকে করা হচ্ছে তার জন্য এটি সমস্যার। কারণ এটি তাকে পরে মানসিকভাবে ভঙ্গুর অবস্থায় নিয়ে যেতে পারে।

একটি সম্পর্কে বেঞ্চিংয়ের সম্ভাব্য লক্ষণ হতে পারে–

স্বাভাবিকের চেয়ে সময় কম দেওয়া

এ কথা ঠিক যে সবসময় কারো জন্য সময় বের করা সম্ভব হয় না। কিন্তু এরপরও রোমান্টিক সম্পর্কে প্রতিশ্রুতিবদ্ধ যারা, তারা ধরেই নেন যে সঙ্গী তাদেরকে প্রয়োজনীয় ও পর্যাপ্ত একটা সময় দেবেন। কতটুকু সময়-সেটি সম্পর্কভেদে আলাদা হতে পারে।

কিন্তু বেঞ্চিংয়ের ঘটনাগুলোতে এই সময়ের পরিমাণ এতটাই বেশি সীমিত থাকে যে মনে হতে পারে, সঙ্গীর কাছ থেকে যেন অনেকটা শিডিউল বা অ্যাপয়েন্টমেন্ট ঠিক করে কথা বলতে ও দেখা করতে হচ্ছে। এমন বেঁধে দেওয়া সময়ের পেছনে যদি খুবই বিশ্বাসযোগ্য কোনো কারণ না থাকে, তাহলে আশঙ্কা আছে যে এখানে বেঞ্চিং হচ্ছে।

অনিয়মিত যোগাযোগ

প্রায়ই উধাও হয়ে যাওয়া, যখন নিজের সুবিধা হয় তখনই শুধু যোগাযোগের চেষ্টা করা এবং সঙ্গীর প্রয়োজনকে অতটা সময় বা সঙ্গ না দিয়ে সেই বিষয়টিকেই স্বাভাবিক বলে তুলে ধরা ইত্যাদি কার্যকলাপ থেকে বেঞ্চিংয়েরই আভাস পাওয়া যায়।

একপাক্ষিক প্রচেষ্টা

কথায় বলে, এক হাতে তালি বাজে না। সেটি ইতিবাচক ও নেতিবাচক, উভয় অর্থেই বলা হয়ে থাকে। কোনো মানবসম্পর্কও একপাক্ষিকভাবে খুব বেশিদূর এগোতে পারে না, যদি না এক পক্ষ সবসময় নিজেকে বিলিয়ে দিয়ে বিনিময়ে কিছুই না চেয়ে সন্তুষ্ট থাকে। তাই কোনো সম্পর্কে যদি একটানা একপাক্ষিক যোগাযোগ ও প্রচেষ্টাই দেখা যায় এবং অপর পক্ষ থেকে খুব জোরালোভাবে 'হ্যাঁ' বা 'না', কিছুই না আসে– তবে অনেকটা ধরেই নেওয়া যায়, প্রথম পক্ষ বেঞ্চিংয়ের শিকার হচ্ছেন।

বেঞ্চিংয়ের শিকার হলে কী করবেন

বেঞ্চিংয়ের শিকার ব্যক্তিরা যদি বুঝতে পারেন তাদের সঙ্গে ঠিক কী ঘটছে, তবে তাদের প্রথম কাজ হচ্ছে অপর পক্ষের সঙ্গে স্পষ্ট যোগাযোগে যাওয়া এবং কথা বলে বিষয়টা পরিষ্কার করা।

এরপর তারা সিদ্ধান্ত নিতে পারেন যে সম্পর্কে এইটুকু প্রাপ্তিতেই তারা খুশি আছেন, নাকি তাদেরও আরও এগিয়ে যাওয়া দরকার। তবে কোনো ধরনের বাধ্যবাধকতা বা দুর্বলতা থেকে নিজেকে সবসময় অপেক্ষমান রেখে মানসিক স্বাস্থ্যের অবনতি না ঘটানোই ভালো।

 

Comments

The Daily Star  | English

PM’s India Visit: Dhaka eyes fresh loans from Delhi

India may offer Bangladesh fresh loans under a new framework, as implementation of the projects under the existing loan programme is proving difficult due to some strict loan conditions.

11h ago