ভারত

চলে গেলেন ভারতের সমাজবাদী পার্টির প্রতিষ্ঠাতা মুলায়ম সিং যাদব

ভারতের সমাজবাদী পার্টির প্রতিষ্ঠাতা ও উত্তর প্রদেশের ৩ বারের মূখ্যমন্ত্রী মুলায়ম সিং যাদব আজ সকালে ৮২ বছর বয়সে মারা গেছেন।
ভারতের সমাজবাদী পার্টির প্রতিষ্ঠাতা মুলায়ম সিং যাদব । ফাইল ছবি: রয়টার্স
ভারতের সমাজবাদী পার্টির প্রতিষ্ঠাতা মুলায়ম সিং যাদব । ফাইল ছবি: রয়টার্স

ভারতের সমাজবাদী পার্টির প্রতিষ্ঠাতা ও উত্তর প্রদেশের ৩ বারের মূখ্যমন্ত্রী মুলায়ম সিং যাদব আজ সকালে ৮২ বছর বয়সে মারা গেছেন।

তিনি ভারতের বিরোধীদলীয় রাজনীতিতে গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা পালন করেছেন।

দলের সমর্থক, নেতা ও কর্মীরা তাকে 'নেতাজি' বলে অভিহিত করে থাকেন। মূখ্যমন্ত্রীর পদের পাশাপাশি তিনি ভারতের প্রতিরক্ষা মন্ত্রী হিসেবেও কাজ করেছেন।  

সমর্থকদের অভিবাদনের উত্তর দিচ্ছেন মুলায়ম সিং যাদব। ফাইল ছবি: রয়টার্স
সমর্থকদের অভিবাদনের উত্তর দিচ্ছেন মুলায়ম সিং যাদব। ফাইল ছবি: রয়টার্স

গত কয়েক বছর অসুস্থ থাকার কারণে তিনি সক্রিয় রাজনীতি থেকে দূরে ছিলেন।

স্বাস্থ্য পরিস্থিতির অবনতি হলে গত ২ অক্টোবর মেদান্তা হাসপাতালের নিবিড় পরিচর্যা কেন্দ্রে মুলায়ম সিং যাদবকে ভর্তি করা হয়। সূত্রদের মতে, তিনি শ্বাসযন্ত্রের জটিলতায় ভুগছিলেন। এই হাসপাতালেই তিনি শেষ নিশ্বাস ত্যাগ করেন।

সমাজবাদী পার্টির বর্তমান প্রধান ও মুলায়মের ছেলে অখিলেশ যাদব এক টুইটার বার্তায় তার বাবার মৃত্যু সংবাদ প্রকাশ করেন। তিনি বলেন, 'আমার সম্মানিত পিতা ও সবার নেতাজি মারা গেছেন।'

মুলায়ম সিং যাদব (বাঁয়ে) ও অখিলেশ সিং যাদব (ডানে)। ফাইল ছবি: রয়টার্স
মুলায়ম সিং যাদব (বাঁয়ে) ও অখিলেশ সিং যাদব (ডানে)। ফাইল ছবি: রয়টার্স

মেদান্তা হাসপাতাল কতৃপক্ষের দেওয়া তথ্য অনুযায়ী, মুলায়ম যাদবের মুত্রনালীতে সংক্রমণ হয়েছিল।

সাবেক কুস্তিগির মুলায়ম প্রায় ৫০ বছর সক্রিয় রাজনীতিতে অংশগ্রহণ করেছেন। ১৯৬৭ সালে ২৮ বছর বয়সে তিনি আইনপ্রণেতা হিসেবে নির্বাচিত হন।

১৯৯২ সালে তিনি সমাজবাদী দল প্রতিষ্ঠা করেন এবং উত্তর প্রদেশ ও দক্ষিণ ভারতের অন্যান্য অংশে দলের সম্প্রসারণ করেন।

বাবার হাত ধরেই ছেলে অখিলেশের রাজনীতিতে হাতেখড়ি। সমাজবাদী দল রাজ্যের ক্ষমতা পুনর্দখল করার পর মুলায়ম অবসর নেন এবং তার ছেলেকে মূখ্যমন্ত্রী হওয়ার সুযোগ করে দেন।  

Comments