দক্ষিণ এশিয়া

এবার ইরানে পাকিস্তানের ক্ষেপণাস্ত্র হামলা, নিহত ৭

ইরানের গণমাধ্যম জানিয়েছে, এই হামলায় তিন নারী ও চার শিশু নিহত হয়েছে।
সামরিক কুচকাওয়াজে পাকিস্তানের শাহীন থ্রি ক্ষেপণাস্ত্র প্রদর্শন করা হচ্ছে। ফাইল ছবি: রয়টার্স
সামরিক কুচকাওয়াজে পাকিস্তানের শাহীন থ্রি ক্ষেপণাস্ত্র প্রদর্শন করা হচ্ছে। ফাইল ছবি: রয়টার্স

এবার ইরানে ক্ষেপণাস্ত্র হামলা চালিয়েছে পাকিস্তান। এ ঘটনার দুই দিন আগেই পাকিস্তানী ভূখণ্ডে হামলা চালিয়েছিল ইরান।

আজ বৃহস্পতিবার এই তথ্য জানিয়েছে বিবিসি।

পাকিস্তানের দাবি, তারা সীমান্তবর্তী সিসতান-ও-বেলুচিস্তান অঞ্চলে 'জঙ্গিদের গোপন আস্তানায়' হামলা চালিয়েছে।

ইরানের গণমাধ্যম জানিয়েছে, এই হামলায় তিন নারী ও চার শিশু নিহত হয়েছে।

বুধবার সন্ধ্যায় ইরানের গণমাধ্যমে জানানো হয়, পাকিস্তান-ইরান সীমান্তের কাছে অবস্থিত সারাভান শহরের কাছে বেশ কয়েকটি বিস্ফোরণের শব্দ শোনা গেছে।

পাকিস্তানের পররাষ্ট্রমন্ত্রণালয় এক বিবৃতিতে এই হামলার বিষয়টি নিশ্চিত করেছে। তারা জানায়, 'গোয়েন্দা তথ্যের ভিত্তিতে পরিচালিত এই অভিযানে বেশ কয়েকজন জঙ্গি নিহত হয়েছে'।

মঙ্গলবার ইরানের হামলায় পাকিস্তানের বেলুচিস্তান প্রদেশের এক গ্রামে দুই শিশু নিহত হলে দেশটি 'কড়া ভাষায়' এই উদ্যোগের নিন্দা জানায়।

ইরান জানায়, তারা পাকিস্তান-ভিত্তিক একটি জঙ্গি সংগঠনের বিরুদ্ধে এই হামলা চালায়। তবে পাকিস্তানের দাবি, এতে বেসামরিক ব্যক্তি নিহত হয়েছে।

মঙ্গলবার ইরানের হামলায় পাকিস্তানের বেলুচিস্তান প্রদেশের এক গ্রামে দুই শিশু নিহত হলে দেশটি 'কড়া ভাষায়' এই উদ্যোগের নিন্দা জানায়।

ইরান জানায়, তারা পাকিস্তান-ভিত্তিক একটি জঙ্গি সংগঠনের বিরুদ্ধে এই হামলা চালায়। তবে পাকিস্তানের দাবি, এতে বেসামরিক ব্যক্তি নিহত হয়েছে।

ইসলামাবাদে পাকিস্তানের পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয়। ছবি: রয়টার্স
ইসলামাবাদে পাকিস্তানের পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয়। ছবি: রয়টার্স

দেশটি তেহরানকে এই 'অবৈধ' উদ্যোগের জন্য 'গুরুতর পরিণামের' হুশিয়ারি দেয় এবং ইরানের রাষ্ট্রদূতকে নিষিদ্ধ করে। এ ছাড়া, ইরান থেকেও পাকিস্তানের রাষ্ট্রদূতকে প্রত্যাহার করে নেওয়া হয়।

ইরান দাবি করে, তারা জাইশ আল-আদিল নামে জঙ্গি সংগঠনের বিরুদ্ধে হামলা চালিয়েছিল।

আজ বৃহস্পতিবার পাকিস্তান আরও জানায়, সারমাচার নামে পরিচিত জঙ্গিদের বিরুদ্ধে তারা অভিযান পরিচালনা করেছে।

পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয় জানায়, 'সব ধরনের হুমকির বিরুদ্ধে পাকিস্তানকে রক্ষা করার উদ্যোগের অংশ হিসেবে এই অভিযান পরিচালনা করা হয়েছে'।

Comments