দক্ষিণ-পূর্ব এশিয়া

১ সপ্তাহের মধ্যে চতুর্থবার ক্ষেপণাস্ত্র ছুড়ল উত্তর কোরিয়া

উত্তর কোরিয়া শনিবার তার পূর্ব উপকূলে সমুদ্রের দিকে ২টি স্বল্প পাল্লার ব্যালিস্টিক ক্ষেপণাস্ত্র নিক্ষেপ করে। দক্ষিণ কোরিয়ার একটি বড় সামরিক অনুষ্ঠানের কয়েক ঘণ্টা আগে এ ঘটনা ঘটে।
উত্তর কোরিয়ার গিজুংডংয়ের প্রোপাগান্ডা গ্রামে উত্তর কোরিয়ার পতাকা উড়ছে। রয়টার্স ফাইল ফটো

উত্তর কোরিয়া শনিবার তার পূর্ব উপকূলে সমুদ্রের দিকে ২টি স্বল্প পাল্লার ব্যালিস্টিক ক্ষেপণাস্ত্র নিক্ষেপ করে। দক্ষিণ কোরিয়ার একটি বড় সামরিক অনুষ্ঠানের কয়েক ঘণ্টা আগে এ ঘটনা ঘটে।

রয়টার্সের প্রতিবেদনে বলা হয়েছে, এ নিয়ে এক সপ্তাহের মধ্যে পিয়ংইয়ং চতুর্থবার ক্ষেপণাস্ত্র ছুড়ল। এরমধ্যে মার্কিন ভাইস প্রেসিডেন্ট কমলা হ্যারিস চলতি সপ্তাহে এই অঞ্চল সফর করেছেন, বৃহস্পতিবার সিউলে দক্ষিণ কোরিয়ার প্রেসিডেন্ট ইউন সুক-ইয়োলের সঙ্গে বৈঠকও করেছেন তিনি।

রয়টার্সের প্রতিবেদনে আরও বলা হয়েছে, উত্তর কোরিয়ার সাম্প্রতিক সামরিক উসকানির নিন্দা জানিয়েছে দক্ষিণ কোরিয়া। একইসঙ্গে যুক্তরাষ্ট্রের সঙ্গে যৌথ সামরিক মহড়া জোরদারের প্রতিশ্রুতি দিয়েছে।

টেলিভিশনে দেওয়া এক ভাষণে বলেন দক্ষিণ কোরিয়ার প্রেসিডেন্ট ইউন বলেন, সরকার কোরিয়া-মার্কিন সম্পর্ক আরও শক্তিশালী করবে। যৌথ মহড়ায় উত্তর কোরিয়ার উসকানি ও হুমকির কড়া জবাব দেওয়া হবে এবং তাদের 'অ্যালায়েন্স ইন অ্যাকশন' দেখানো হবে।

জাপানের প্রতিরক্ষা মন্ত্রণালয় জুলাইয়ে এক প্রতিবেদনে বলেছে, উত্তর কোরিয়া স্বল্প পাল্লার ক্ষেপণাস্ত্র উৎক্ষেপণ করছে যা কম এবং অনিয়মিত ট্র্যাজেক্টরি ছোঁড়া হয়। এগুলো ২০১৯ সালের মে থেকে পর্যবেক্ষণ করা হয়েছে, সম্ভবত এগুলো উচ্চতর যুদ্ধের কার্যকারিতার জন্য বানানো হয়েছে।

ব্যালিস্টিক ক্ষেপণাস্ত্র ও পারমাণবিক পরীক্ষার জন্য উত্তর কোরিয়ার ওপর নিষেধাজ্ঞা আরোপ করেছে জাতিসংঘের নিরাপত্তা পরিষদ। পিয়ংইয়ং এ ধরনের পদক্ষেপকে আত্মরক্ষা ও মহাকাশ অনুসন্ধানের সার্বভৌম অধিকার লঙ্ঘন বলে প্রত্যাখ্যান করেছে।

Comments