ট্রেনের ধাক্কায় শ্রবণ প্রতিবন্ধী প্রবীণ নারীর মৃত্যু

লালমনিরহাটের পাটগ্রামে ট্রেনের ধাক্কায় শ্রবণ প্রতিবন্ধী এক প্রবীণ নারীর মৃত্যু হয়েছে। আজ মঙ্গলবার বিকেলে নবীনগর গ্রামে লালমনিরহাট-বুড়িমারী রেলপথে এ দুর্ঘটনা ঘটে। 
পাটগ্রাম-বুড়িমারী রেললাইনে ট্রেনের ধাক্কায় মারা যান শ্রবণ প্রতিবন্ধী প্রবীণ নারী। ছবি: স্টার

লালমনিরহাটের পাটগ্রামে ট্রেনের ধাক্কায় শ্রবণ প্রতিবন্ধী এক প্রবীণ নারীর মৃত্যু হয়েছে। আজ মঙ্গলবার বিকেলে নবীনগর গ্রামে লালমনিরহাট-বুড়িমারী রেলপথে এ দুর্ঘটনা ঘটে। 

মারা যাওয়া কফিরন বেওয়া (৭০) নবীনগর গ্রামের মৃত সহর আলীর স্ত্রী। স্থানীয় জনপ্রতিনিধি জানান, দিনমজুরি করে জীবিকা নির্বাহ করতেন ওই নারী। শ্রবণ প্রতিবন্ধী হওয়ায় ট্রেনের শব্দ শুনতে পাননি তিনি।

পাটগ্রাম থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) ওমর ফারুক বলেন, রেলওয়ে থানা পুলিশ মরদেহ উদ্ধার করেছে। করতোয়া এক্সপ্রেস ট্রেনের ধাক্কায় তিনি মারা যান। ট্রেনটি লালমনিরহাট থেকে বুড়িমারী স্থলবন্দর স্টেশনে যাচ্ছিল।

বাউড়া ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান রাবিউল হক দ্য ডেইলি স্টারকে বলেন, কফিরন বেওয়া একটি স্কুল মাঠে বিনামূল্যে ইফতার সামগ্রী সংগ্রহ করতে গিয়েছিলেন। সেখান থেকে বাড়ি ফেরার পথে দুর্ঘটনায় পড়েন। রেল লাইনের পাশ দিয়ে যাওয়ার সময় ট্রেন ধাক্কা দেয় তাকে। মাথায় আঘাত লেগে ঘটনাস্থলে মারা যান তিনি। 

নিহতের নাতি মমিনুর রহমান দ্য ডেইলি স্টারকে বলেন, তার দাদী রেললাইনের ধারে বাস করতেন। তিনি শ্রবণ প্রতিবন্ধী ছিলেন। বয়স্ক হলেও তিনি রোজা রেখেছিলেন।

Comments