দুর্ঘটনা ও অগ্নিকাণ্ড

ট্রলার থেকে পড়ে নিখোঁজ ছাত্র ইউনিয়নের সাবেক নেতার মরদেহ উদ্ধার

যে স্থানে অন্তর নিখোঁজ হয়েছিলেন সেখানেই তার মরদেহ পাওয়া গেছে।
অন্তর চক্রবর্তী। ছবি: সংগৃহীত

কিশোরগঞ্জে নিকলী হাওরে ঘুরতে গিয়ে নিখোঁজ বরিশাল জেলা ছাত্র ইউনিয়নের সাবেক সভাপতি অন্তর চক্রবর্তীর মরদেহ উদ্ধার করা হয়েছে।

কিশোরগঞ্জ ফায়ার সার্ভিসের স্টেশন অফিসার আবুজর গিফারী জানান, ফায়ার সার্ভিসের ডুবুরি দল আজ রোববার সকাল ৯টার দিকে নিকলী হাওরের ক্যান্টনমেন্ট এলাকার কাছে ভেসে ওঠা মরদেহটি উদ্ধার করে পুলিশের কাছে হস্তান্তর করে।

গত শুক্রবার দুপুর আড়াইটার দিকে নবনির্মিত সেনানিবাসের ঘাটের বিপরীত দিকে ট্রলার থেকে হাওরে পড়ে যান অন্তর।

মিঠামইন থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা কলিন্দ্রনাথ গোলদার জানান, যে স্থানে অন্তর নিখোঁজ হয়েছিলেন সেখানেই তার মরদেহ পাওয়া গেছে। আইনগত প্রক্রিয়া শেষে মরদেহটি পরিবারের কাছে হস্তান্তর করা হবে।

অন্তরের আত্মীয় সুমন চক্রবর্তী বলেন, 'আমরা অন্তরের মরদেহ চিহ্নিত করেছি। তার শেষকৃত্য হবে ঝালকাঠীতে।'

এর আগে তিনি বলেছিলেন, 'শুক্রবার ফ্যামিলি ট্যুরে ১০ জনের একটি দল ঢাকা থেকে কিশোরগঞ্জের মিঠামইন যান। দুপুর ১২ টার দিকে একটি ট্রলার ভাড়া করে নিকলীর দিকে যাচ্ছিলেন তারা। এসময় দুপুর ২টা ১০ মিনিটের দিকে অন্তর হঠাৎ ট্রলার থেকে পড়ে যান। তাকে উদ্ধার করতে আমরা ৩ জন ঝাঁপ দিলেও খুঁজে পাইনি।'

অন্তরের সঙ্গে থাকা তার অফিসের সহকর্মী সুব্রত দে বলেন, 'আমরা পরিবারসহ ১০ জন ছিলাম এই ভ্রমণে। ট্রলারের সামনে অন্তর মাথায় পানি দিচ্ছিল। আমরা কয়েকবার বারণ করেছিলাম। আচমকা সে ট্রলার থেকে পড়ে যায়। অনেক খোঁজাখুঁজি করেও তাকে না পাওয়ায় ৯৯৯ এ খবর দেই।'

অন্তর চক্রবর্তী ২০২১ সাল থেকে ঢাকায় একটি বেসরকারি প্রতিষ্ঠানে কর্মরত। এর আগে তিনি সরকারী ব্রজমোহন কলেজে পড়ার সময় ছাত্র ইউনিয়নের জেলা কমিটির সভাপতি নির্বাচিত হন।  তার বাড়ি ঝালকাঠী জেলার কাটপট্টি এলাকায়।

 

Comments