অপরাধ ও বিচার

কুমিল্লায় গৃহবধূ হত্যার দায়ে ৩ আসামির ফাঁসি

কুমিল্লার মেঘনায় ২০১৬ সালে এক গৃহবধূকে হত্যার অপরাধে ৩ আসামির মৃত্যুদণ্ড এবং ১ জনকে খালাস দিয়েছেন আদালত।
রায় ঘোষণার পর সাংবাদিকদের সঙ্গে কথা বলেন আইনজীবীরা। ছবি: সংগৃহীত

কুমিল্লার মেঘনায় ২০১৬ সালে এক গৃহবধূকে হত্যার অপরাধে ৩ আসামির মৃত্যুদণ্ড এবং ১ জনকে খালাস দিয়েছেন আদালত।

আজ মঙ্গলবার সকাল ১১টায় কুমিল্লা জেলা ও দায়রা জজ মো. হেলাল উদ্দিন এ রায় দেন।

কুমিল্লা জেলা ও দায়রা আদালতের পুলিশ পরিদর্শক মোহম্মদ মজিবুর রহমান দ্য ডেইলি স্টারকে বলেন, 'মামলায় মৃত্যুদণ্ড দেওয়া হয়েছে মেঘনা উপজেলার সিকেরগাঁও এলাকার সুমন, রাকিব ও মানিকারচর এলাকার তাসিরকে। তাদের মধ্যে তাসির পলাতক।'

রাষ্ট্রপক্ষে মামলাটি পরিচালনা করেন পাবলিক প্রসিকিউটর জহিরুল ইসলাম সেলিম।

তিনি বলেন, '২০১৬ সালে ২০ জুন সন্ধ্যায় মেঘনা উপজেলার মানিকারচর এলাকার গৃহবধূ জামিলা বেগম নিখোঁজ হন। পরবর্তীতে ২৪ জুন তার মরদেহ উদ্ধার করা হয়। ২৫ জুন নিহতের স্বামী আবদুল হাকিম মামলা করেন। তদন্তের পর ৪ জনকে আসামি হিসেবে মামলায় অন্তর্ভুক্ত করে পুলিশ।'

তিনি আরও বলেন, 'দীর্ঘ তদন্ত ও সাক্ষ্য-প্রমাণ শেষে বিচারক অভিযুক্ত আসামি সুমন, রাকিব ও তাসিরকে মৃত্যুদণ্ড দেন। হত্যায় জড়িত থাকার প্রমাণ না পাওয়ায় খালাস দেওয়া হয় টিটুকে।'

পিপি সেলিম জানান, জামিলা বেগমের স্বর্ণালংকার ও টাকা ছিনতাইয়ের জন্য তাকে হত্যা করা হয়েছিল।

Comments