অপরাধ ও বিচার

মুন্সিগঞ্জ জেলা যুবদলের সাবেক সভাপতি জেলহাজতে, ৫৫ আসামির জামিন

মুন্সিগঞ্জে পুলিশের ওপর হামলা মামলায় জেলা যুবদলের সাবেক সভাপতি সুলতান বেপারিকে জেলহাজতে পাঠানো হয়েছে।
পুলিশ-বিএনপি সংঘর্ষ,
স্টার অনলাইন গ্রাফিক্স

মুন্সিগঞ্জে পুলিশের ওপর হামলা মামলায় জেলা যুবদলের সাবেক সভাপতি সুলতান বেপারিকে জেলহাজতে পাঠানো হয়েছে।

আজ সোমবার দুপুরে মুন্সিগঞ্জ আমলি আদালত-১ এর বিচারক রহিমা আক্তার তাকে জেলহাজতে পাঠান।

মুন্সিগঞ্জ কোর্ট পুলিশ ইন্সপেক্টর জামাল উদ্দিন বিষয়টি দ্য ডেইলি স্টারকে নিশ্চিত করেছেন।

এর আগে, রোববার রাতে মুন্সিগঞ্জ পৌরসভার খালইস্ট এলাকা থেকে তাকে আটক করা হয়।

মুন্সিগঞ্জ সদর থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মো. তারিকুজ্জামান জানান, গত ২১ সেপ্টেম্বর মুন্সিগঞ্জ সদরের মুক্তারপুর এলাকায় পুলিশের ওপর বিএনপি নেতাকর্মীদের হামলার ঘটনায় সদর থানার সাব-ইন্সপেক্টর মাঈনউদ্দিন বাদী হয়ে অজ্ঞাতসহ ৩১০ জনের বিরুদ্ধে মামলা দায়ের করেন। এই মামলায় সুলতান বেপারিকে গ্রেপ্তার করা হয়। তাকে আজ সকালে আদালতে পাঠানো হয়।

একই মামলায় বিএনপির ৫৫ আসামি আদালতে আত্মসমর্পণ করলে মুন্সিগঞ্জ অতিরিক্ত জেলা ও দায়রা আদালতের বিচারক মোতাহারাত আখতার ভূঁইয়া তাদের জামিন প্রদান করেন।

মুন্সিগঞ্জ কোর্ট পুলিশ ইন্সপেক্টর জামাল উদ্দিন জানান, পুলিশের মামলায় জেলা যুবদলের সাবেক সভাপতি সুলতান বেপারিকে আদালতে হাজির করলে বিচারক তাকে জেলহাজতে প্রেরণের আদেশ দেন। এ ছাড়া, বিএনপির ৫৫ আসামি আদালতে আত্মসর্মপণ করলে মুন্সিগঞ্জ অতিরিক্ত জেলা ও দায়রা জজ আদালতের বিচারক তাদের জামিন আবেদন মঞ্জুর করেন।

উল্লেখ্য, ২১ সেপ্টেম্বর বিকেলে কেন্দ্রীয় কর্মসূচির অংশ হিসেবে মুন্সিগঞ্জের মুক্তারপুরে বিএনপির বিক্ষোভ মিছিলে পুলিশ ও বিএনপি নেতাকর্মীদের মধ্যে প্রায় ঘণ্টাব্যাপী সংঘর্ষের ঘটনায় অন্তত ৩০ পুলিশ সদস্যসহ কমপক্ষে ৫০ জন আহত হন। এ ঘটনায় মুন্সিগঞ্জের অতিরিক্ত পুলিশ সুপার মিনহাজ উল ইসলাম ও মুন্সিগঞ্জ সদর থানার ওসি তরিকুজ্জামানও আহত হয়েছিলেন।

Comments