অপরাধ ও বিচার

বিকেলে ৩০ লাখ টাকা মুক্তিপণ দাবি, রাতে শিক্ষার্থীর মরদেহ উদ্ধার

খুলনার ডুমুরিয়ার এক স্কুল শিক্ষার্থীকে অপহরণের পর হত্যার অভিযোগ উঠেছে। ডুমুরিয়া উপজেলার গুটু‌দিয়া এসিজিবি মাধ্যমিক বিদ্যালয়ের একটি কক্ষ থেকে তার মরদেহ উদ্ধার করা হয়েছে।
মিরপুরে নির্মাণাধীন ভবন থেকে পড়ে ২ শ্রমিকের মৃত্যু
প্রতীকী ছবি। স্টার ডিজিটাল গ্রাফিক্স

খুলনার ডুমুরিয়ার এক স্কুল শিক্ষার্থীকে অপহরণের পর হত্যার অভিযোগ উঠেছে। ডুমুরিয়া উপজেলার গুটু‌দিয়া এসিজিবি মাধ্যমিক বিদ্যালয়ের একটি কক্ষ থেকে তার মরদেহ উদ্ধার করা হয়েছে।

সেই শিক্ষার্থীর নাম নিরব মণ্ডল (১৩)। সে ওই এলাকার শেখর মণ্ডলের ছেলে এবং গুটু‌দিয়া এসিজিবি মাধ্যমিক বিদ‌্যালয়ের শিক্ষার্থী।

পরিবারের সদস্যদের বরাত দিয়ে এসিজিবি মাধ‌্যমিক বিদ‌্যালয়ের সাবেক সভাপতি মোস্তফা সারোয়ার ডেইলি স্টারকে বলেন, 'বৃহস্পতিবার দুপুরে নিরব বাড়ি থেকে গুটু‌দিয়া মাধ‌্যমিক বিদ‌্যালয়ের যায়। পরে বিকেল ৪টার দিকে তার বাবার কাছে ২টি নম্বর থেকে ফোন করে ৩০ লাখ টাকা মুক্তিপন দাবি করা হয়। বিষয়টি নিরবের বাবা ডুমুরিয়া থানা পুলিশকে অবহিত করেন এবং থানায় একটি সাধারণ ডায়েরি করেন। পরে ওই নম্বর ২টিতে কল দিলে বন্ধ পাওয়া যায়। এক পর্যায়ে খোঁজাখুঁজির পর রাত ১টার দিকে বিদ্যালয়ের পরিত্যক্ত শ্রেণিকক্ষে নিরবের মরদেহ পাওয়া যায়।'

ডুমু‌রিয়া থানার অফিসার্স ইনচার্জ (ওসি) সেখ ক‌নি মিয়া বলেন, 'ওই শিশুর মরদেহ উদ্ধার করা হয়েছে। এ ঘটনায় জিজ্ঞাসাবাদের জন্য ৬ জনকে আটক করা হয়েছে। তাদেরও বয়স ১২ থেকে ১৫ বছরের মধ্যে।'

Comments