অপরাধ ও বিচার

ঠাকুরগাঁওয়ে ভুয়া চিকিৎসককে ২ বছরের কারাদণ্ড, ক্লিনিক সিলগালা

একইসঙ্গে তাকে ১ লাখ টাকা জরিমানাও করা হয়েছে।
দণ্ডপ্রাপ্ত শরিফুল ইসলাম। ছবি: সংগৃহীত

ঠাকুরগাঁওয়ে যথাযথ সনদ না থাকা সত্ত্বেও একটি ক্লিনিকে চিকিৎসা দেওয়ার অভিযোগে এক ব্যক্তিকে ২ বছরের বিনাশ্রম কারাদণ্ড ও ১ লাখ টাকা জরিমানা করেছেন ভ্রাম্যমাণ আদালত। একইসঙ্গে সেই ক্লিনিকটি সিলগালা করে দেওয়া হয়েছে।

আজ শনিবার দুপুরে সহকারী কমিশনার ও নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট মো. শামছুজ্জামান আসিফের নেতৃত্বে এই ভ্রাম্যমাণ আদালত পরিচালনা হয়।

বিষয়টি দ্য ডেইলি স্টারকে নিশ্চিত করেছেন নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট মো. শামছুজ্জামান আসিফ।

দণ্ডপ্রাপ্ত ব্যক্তির নাম শরিফুল ইসলাম (৩৯)। তার দাবি, তিনি ভারতের পশ্চিমবঙ্গের ২৪ পরগনা জেলার বেলঘরিয়া থানার নন্দনপুর আমতলা গ্রামের আমির শেখের ছেলে।

মো. শামছুজ্জামান আসিফ জানান, ঠাকুরগাঁও পৌরসভার পুরাতন বাসস্ট্যান্ড এলাকার 'আমাদের হাসপাতালে' মেডিসিন বিশেষজ্ঞ পরিচয়ে বেশকিছুদিন ধরে ওই ব্যক্তি রোগী দেখছিলেন। গোপন সংবাদের ভিত্তিতে আজ দুপুরে সেখানে অভিযান চালানো হয়। সেই সময় ওই ব্যক্তির কাছে তার শিক্ষাগত যোগ্যতার সনদ দেখতে চাইলে তিনি দেখাতে পারেননি। পরে তাকে আটক করে তাৎক্ষণিক শুনানি শেষে ভ্রাম্যমাণ আদালতের বিচারক এই রায় দেন।

অভিযানের সময় স্থানীয় স্বাস্থ্য বিভাগের কর্মকর্তা, পুলিশ ও আনসার বাহিনীর সদস্যরা উপস্থিত ছিলেন।

Comments