এসএস বিদ্যুৎকেন্দ্র নিয়ে ফেসবুক পোস্ট

প্রকৌশলী শাহনেওয়াজের বিরুদ্ধে ডিজিটাল নিরাপত্তা আইনের মামলা স্থগিত

বাঁশখালীর এসএস পাওয়ার প্ল্যান্ট নিয়ে ফেসবুক পোস্ট দেওয়ায় ২০২১ সালের মে মাসে তার বিরুদ্ধে এ মামলা করেছিল পাওয়ার প্ল্যান্ট কর্তৃপক্ষ।
বিতর্কিত ডিজিটাল নিরাপত্তা আইন বাতিল
ছবি: স্টার

চট্টগ্রামের বাঁশখালী উপজেলার ডিপ্লোমা প্রকৌশলী শাহনেওয়াজ চৌধুরীর বিরুদ্ধে ডিজিটাল নিরাপত্তা আইনে করা মামলার বিচার কার্যক্রম স্থগিত করেছেন হাইকোর্ট। 

বাঁশখালীর এসএস পাওয়ার প্ল্যান্ট নিয়ে ফেসবুক পোস্ট দেওয়ায় ২০২১ সালের মে মাসে তার বিরুদ্ধে এ মামলা করেছিল পাওয়ার প্ল্যান্ট কর্তৃপক্ষ।

শাহনেওয়াজের আবেদনের পরিপ্রেক্ষিতে আজ বুধবার বিচারপতি এস এম কুদ্দুস জামান ও বিচারপতি শাহেদ নুরুদ্দিনের হাইকোর্ট বেঞ্চ মামলার কার্যক্রম স্থগিতের আদেশ দেন।

এছাড়া, এ মামলার বিচার কার্যক্রম কেন বাতিল করা হবে না, আগামী ৪ সপ্তাহের মধ্যে তার জবাব চেয়ে একটি রুলও জারি করেছেন আদালত।

রুল নিষ্পত্তি না হওয়া পর্যন্ত স্থগিতাদেশ বহাল থাকবে।

ডেপুটি অ্যাটর্নি জেনারেল সুজিত চ্যাটার্জি বাপ্পী দ্য ডেইলি স্টারকে এসব তথ্য নিশ্চিত করেছেন।

তিনি অবশ্য বলেছেন যে রাষ্ট্রপক্ষ হাইকোর্টের আদেশকে চ্যালেঞ্জ করে আপিল বিভাগে আবেদন করবে।

শাহনেওয়াজের আইনজীবী আবদুল্লাহ আল নোমান ডেইলি স্টারকে বলেন, 'এস আলম গ্রুপের বাঁশখালী বিদ্যুৎকেন্দ্র প্রকল্পের তৎকালীন প্রধান সমন্বয়কারী ফারুক আহমেদ ২০২১ সালের ২৭ মে বাঁশখালী থানায় মামলাটি করেছিলেন।'

প্রকৌশলী শাহনেওয়াজের বিরুদ্ধে ডিজিটাল নিরাপত্তা আইনের ২৫, ২৯ ও ৩১ ধারায় অভিযোগ আনা হয়।

এজাহারে বলা হয়, 'ইঞ্জিনিয়ার শাহনেওয়াজ চৌধুরী তার ফেসবুক আইডি থেকে গন্ডামারায় নির্মাণাধীন এসএস পাওয়ার লিমিটেডের প্রতি এলাকার মানুষের ঘৃণা ও বিদ্বেষ সৃষ্টির উদ্দেশ্যে মিথ্যা তথ্য ছড়িয়ে দিয়ে আইন-শৃঙ্খলার অবনতি করতে লোকজনকে প্ররোচিত করেছেন।'

গত বছরের ১৭ মে চট্টগ্রাম সাইবার ট্রাইব্যুনাল শাহনেওয়াজের বিরুদ্ধে অভিযোগ গঠন করেন।

আইনজীবী নোমান জানান, বর্তমানে জামিনে থাকা শাহনেওয়াজ চট্টগ্রাম সাইবার ট্রাইব্যুনালের অভিযোগ গঠনের আদেশ চ্যালেঞ্জ করে চলতি বছরের ৬ জুলাই হাইকোর্টে আবেদন করেন।

 

Comments

The Daily Star  | English

Cyclones now last longer

Remal was part of a new trend of cyclones that take their time before making landfall, are slow-moving, and cause significant downpours, flooding coastal areas and cities. 

7h ago