অপরাধ ও বিচার

নিখোঁজের ৩ দিন পর নদীতে ভেসে উঠলো সৌদিফেরত যুবকের মরদেহ

মাঝ নদী থেকে ওই যুবকের মরদেহ উদ্ধার করা হয়।
নিখোঁজের ৩ দিন পর নদীতে ভেসে উঠলো সৌদিফেরত যুবকের মরদেহ
ইয়াজুল ইসলাম | ছবি: সংগৃহীত

মানিকগঞ্জের ঘিওর উপজেলায় নিখোঁজের ৩ দিন পর নদী থেকে ইয়াজুল ইসলাম নামে এক সৌদিফেরত যুবকের মরদেহ উদ্ধার করেছে পুলিশ।

আজ মঙ্গলবার রাত সাড়ে ৮টার দিকে ঘিওর থানা পুলিশ ও নৌ পুলিশের সদস্যরা কালীগঙ্গা নদী থেকে ওই যুবকের মরদেহ উদ্ধার করেন।

ইয়াজুল উপজেলার সিংজুরী ইউনিয়নের পূর্ব আশাপুর গ্রামের ছানো মিয়ার ছেলে। সম্প্রতি সৌদি আরব থেকে দেশে ফিরে তিনি কৃষি কাজ শুরু করেছিলেন।

তার স্বজন জানান, ইয়াজুল বিবাহিত ও ৪ বছর বয়সী এক ছেলের জনক। গত ২০ আগস্ট রাত ৯টার দিকে তার মোবাইল ফোনে একটি কল আসে। তারপর ইয়াজুল ঘর থেকে বের হয়ে যান, আর বাসায় ফিরে আসেননি। অনেক খুঁজেও না পেয়ে আজ সকালে ঘিওর থানায় একটি সাধারণ ডায়েরি (জিডি) করা হয়।

তাদের আশঙ্কা, ইয়াজুলকে হত্যা করা হয়েছে। এর পরে মরদেহ নদীতে ফেলে দেওয়া হয়েছে।

ইয়াজুলের চাচাতো ভাই সাইফুল দ্য ডেইলি স্টারকে বলেন, 'ইয়াজুল দেশে এসে কৃষি কাজ করতো। কারো সঙ্গে তার বিবাদ ছিল না। তার এমন মৃত্যু আমরা মেনে নিতে পারছি না।'

ঘিওর থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মো. আমিনুর রহমান ডেইলি স্টারকে বলেন, 'মরদেহ ভাসতে দেখে স্থানীয় বাসিন্দারা থানায় জানায়। এরপর মাঝ নদী থেকে ওই যুবকের মরদেহ উদ্ধার করা হয়। ময়নাতদন্ত শেষে তদন্ত সাপেক্ষে আইনানুগ ব্যবস্থা নেওয়া হবে।'

Comments