বাংলাদেশ

গাজীপুরে সড়ক দুর্ঘটনা: ২০ গাড়ি ভাঙচুর-অগ্নিসংযোগ, যান চলাচল বন্ধ

গাজীপুর মহানগরীর গাছা থানার হারিকেন এলাকায় সড়ক দুর্ঘটনার পর ঢাকা-ময়মনসিংহ মহাসড়ক অবরোধ করে গাড়ি ভাঙচুর ও অগ্নিসংযোগের ঘটনা ঘটেছে। 
'বাসচাপায় মানুষ মারা গেছে' এমন গুজবের পর উত্তেজিত জনতা কমপক্ষে ২০টি গাড়ি ভাঙচুর ও ৬টি গাড়িতে আগুন দেয়। ছবি: সংগৃহীত

গাজীপুর মহানগরীর গাছা থানার হারিকেন এলাকায় সড়ক দুর্ঘটনার পর ঢাকা-ময়মনসিংহ মহাসড়ক অবরোধ করে গাড়ি ভাঙচুর ও অগ্নিসংযোগের ঘটনা ঘটেছে। 

জানা গেছে, 'বাসচাপায় মানুষ মারা গেছে' এমন গুজবের পর উত্তেজিত জনতা কমপক্ষে ২০টি গাড়ি ভাঙচুর ও ৬টি গাড়িতে আগুন দেয়। 

স্থানীয়দের বরাতে গাজীপুর মহানগর পুলিশের উপ পুলিশ কমিশনার (ট্রাফিক) আলমগীর হোসেন ডেইলি স্টারকে বলেন, 'মঙ্গলবার সন্ধ্যা ৭টার দিকে গাছা থানার ওই এলাকায় নানী ও নাতিন ঢাকা-ময়মনসিংহ মহাসড়ক পার হচ্ছিলেন। এ সময় ঢাকামুখী লেনে অনাবিল পরিবহনের একটি বেপরোয়া যাত্রীবাহী বাস তাদের দুজনকে চাপা দেয়। স্থানীয় লোকজন তাদেরকে উদ্ধার করে নিকটস্থ তায়রুন্নেছা মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতালে নিয়ে যায়।'

তাৎক্ষণিকভাবে আহত দুজনের পরিচয় পাওয়া যায়নি।

'এ ঘটনার পর "বাসচাপায় মানুষ মারা গেছে" এমন গুজব আশেপাশে ছড়িয়ে পড়ে। এতে উত্তেজিত জনতা ১টি অনাবিল, ১টি উজানভাটি, ১টি বলাকা, ১টি আজমেরীসহ ৬টি যাত্রীবাহী গাড়িতে আগুন দেয়,' বলেন তিনি।  

খবর পেয়ে পুলিশ ঘটনাস্থলে গিয়ে পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণের চেষ্টা করছে। আগুন নিয়ন্ত্রণে কাজ করছে ফায়ার সার্ভিস। এ ঘটনার পর সব লেনে যান চলাচল বন্ধ রয়েছে বলে জানান তিনি। 

গাড়ি ভাঙচুর ও আগুনের ঘটনা নিশ্চিত করে গাজীপুর ফায়ার সার্ভিসের সহকারী উপ পরিচালক (ডিএডি) আব্দুল্লাহ আল আরেফিন বলেন, 'অগ্নিসংযোগ ও ভাঙচুরের সময় বিভিন্ন পরিবহন থেকে নেমে যাত্রীরা আত্মরক্ষা করেন। কোনো গাড়ির যাত্রী হতাহত হয়েছেন কি না, তা তাৎক্ষণিকভাবে জানা  যায়নি।'

আহত ২ জনের শারীরিক অবস্থা সম্পর্কে তায়রুন্নেছা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালের জরুরী বিভাগের চিকিৎসক আশরাফ হোসেন বলেন, 'আহতদের অবস্থা গুরুতর। তাদেরকে প্রাথমিক চিকিৎসা দিয়ে ঢাকা মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতালে পাঠানো হয়েছে।'

 

Comments