‘পাল্টাপাল্টি কর্মসূচি’

টেকনাফে আ. লীগ-বিএনপির সংঘর্ষে আহত ১৫

কক্সবাজারের টেকনাফ উপজেলার হ্নীলা বাজারে আওয়ামী লীগ ও বিএনপি নেতাকর্মীদের মধ্যে সংঘর্ষে উভয় দলের অন্তত ১৫ জন আহত হয়েছেন।
হ্নীলা বাজারে আওয়ামী লীগ ও বিএনপি নেতাকর্মীদের মধ্যে সংঘর্ষে উভয় দলের অন্তত ১৫ জন আহত হয়েছেন। এই সংঘর্ষের পর নেতাকর্মীদের রক্তমাখা পোশাক নিয়ে প্রতিবাদ সমাবেশ করে আওয়ামী লীগ। ছবি: সংগৃহীত

কক্সবাজারের টেকনাফ উপজেলার হ্নীলা বাজারে আওয়ামী লীগ ও বিএনপি নেতাকর্মীদের মধ্যে সংঘর্ষে উভয় দলের অন্তত ১৫ জন আহত হয়েছেন।

আজ শনিবার বিকাল সাড়ে ৫টায় এ ঘটনা ঘটে। সংঘর্ষে আওয়ামী লীগের ১০ ও বিএনপির ৫ নেতাকর্মী আহত হয়েছে এবং ২টি গাড়ি ভাঙচুর করা হয়েছে বলে দাবি করেছেন উভয় দলের নেতারা।

বিএনপি ও আওয়ামী লীগের পাল্টাপাল্টি কর্মসূচী ঘিরে এই সংঘর্ষের সূত্রপাত হয়। হ্নীলা বাজারে আজ বিকালে পদযাত্রা কর্মসূচী শুরু করে বিএনপি। একই সময়ে হ্নীলা বাজারের দক্ষিণ প্রান্তে আওয়ামী লীগের নেতাকর্মীরা শান্তি সমাবেশ শুরু করে। উভয় দলের নেতাকর্মীরা এক পর্যায়ে সংঘর্ষে জড়িয়ে পড়ে।

আওয়ামী লীগের উপজেলা সভাপতি নুরুল বশর অভিযোগ করেন, 'পূর্ব পরিকল্পিতভাবে হামলা চালিয়ে ভীতিকর পরিস্থিতি সৃষ্টি করেছে বিএনপির নেতাকর্মীরা। তাদের হামলায় হ্নীলায় ইউনিয়ন আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক আবুল হোসেনসহ অন্তত ১০ জন নেতাকর্মী গুরুতর আহত হয়েছেন।'

হ্নীলা ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান ও আওয়ামী লীগ নেতা রাশেদ মাহমুদ আলী বলেন, 'জেলা বিএনপির সভাপতি শাহজাহান চৌধুরীর নেতৃত্বে আওয়ামী লীগের কর্মসূচিতে হামলা ও গুলিবর্ষণ করা হয়েছে। আমার ব্যক্তিগত গাড়িতেও ভাঙচুর চালিয়েছে বিএনপির সন্ত্রাসীরা।'

কক্সবাজার জেলা বিএনপি সভাপতি, সাবেক সংসদ সদস্য ও হুইপ শাহজাহান চৌধুরী বলেন, 'হ্নীলায় বিএনপির শান্তিপূর্ণ কর্মসূচিতে আওয়ামী লীগের লোকজন হামলা চালিয়ে বিএনপির অন্তত ৫ জন নেতাকর্মীকে আহত করেছে। হ্নীলা দক্ষিণ শাখা বিএনপির সভাপতি নুরুল আমিন চৌধুরীর গাড়ি ভাঙচুর করেছে তারা।'

টেকনাফ থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মো. আব্দুল হালিম দ ডেইলি স্টারকে বলেন, 'হ্নীলায় পূর্ব ঘোষিত দলীয় কর্মসূচি পালন করতে গিয়ে উভয় দলের নেতাকর্মীদের মধ্যে ধাওয়া-পাল্টা ধাওয়া ও ইট-পাটকেল নিক্ষেপের ঘটনা ঘটেছে। এতে উভয় দলের নেতাকর্মী আহত হয়েছেন। সংঘর্ষের খবর পেয়ে ঘটনাস্থলে পুলিশ পাঠানো হয়েছে। পরিস্থিতি এখন নিয়ন্ত্রণে আছে।'

Comments