রাজনীতি

২৮ অক্টোবর সহিংসতা করলে কঠোর হাতে দমন করা হবে: ডিএমপি কমিশনার

‘শুধু এ বিষয়ে না, দীর্ঘ দিন ধরে একটি স্বার্থান্বেষী মহল এ দেশের মানুষকে বিভ্রান্ত করার জন্য বিভিন্ন মাধ্যমে; সামাজিক যোগাযোগমাধ্যম, ফেসবুক, ইউটিউবসহ বিভিন্ন মাধ্যমে গুজব ছড়ানোর অপচেষ্টা করে আসছে।’
২৮ অক্টোবর সহিংসতা করলে কঠোর হাতে দমন করা হবে: ডিএমপি কমিশনার
ঢাকা মেট্রোপলিটন পুলিশ (ডিএমপি) কমিশনার হাবিবুর রহমান | ছবি: টেলিভিশন থেকে নেওয়া

আগামী ২৮ অক্টোবর ঢাকায় অনুষ্ঠেয় বিএনপির কর্মসূচির আড়ালে কেউ সহিংস পরিস্থিতি সৃষ্টির চেষ্টা করলে কঠোর হস্তে দমন করা হবে বলে জানিয়েছেন ঢাকা মেট্রোপলিটন পুলিশ (ডিএমপি) কমিশনার হাবিবুর রহমান।

আজ শনিবার দুপুরে রাজধানীর উত্তরা উত্তর মেট্রোরেল স্টেশনে গণমাধ্যমকর্মীদের প্রশ্নের জবাবে তিনি এ কথা বলেন।

এদিন মেট্রোরেলের নিরাপত্তায় দায়িত্ব পাওয়া এমআরটি পুলিশের কার্যক্রম পরিদর্শনে গিয়েছিলেন হাবিবুর রহমান।

আগামী ২৮ অক্টোবর বিএনপির মহাসমাবেশ ঘিরে এরই মধ্যে নিরাপত্তা শঙ্কা ও জনমনে আতঙ্ক তৈরি হয়েছে। উদ্বেগজনক পরিস্থিতি তৈরি হলে পুলিশ কীভাবে সামাল দেবে—গণমাধ্যমকর্মীদের প্রশ্নের জবাবে তিনি বলেন, 'বাংলাদেশ একটি গণতান্ত্রিক দেশ। যে কোনো শান্তিপূর্ণ রাজনৈতিক আন্দোলন, মিছিল-মিটিং সমাবেশ করার অধিকার সবার রয়েছে এবং সেখানে পুলিশ নিরাপত্তাও দিয়ে থাকে। কিন্তু যদি কেউ এটির আড়ালে কোনো সহিংস পরিস্থিতি সৃষ্টির চেষ্টা করে, ঢাকার দুই কোটি ২৪ লাখ সম্মনিত নাগরিকের জীবন শঙ্কা, মালামালের শঙ্কা দেখা দেয়—এমন যে কোনো পরিস্থিতি অত্যন্ত কঠোর হস্তে দমন করা হবে ঢাকা মেট্রোপলিটন পুলিশের পক্ষ থেকে।'

আগামী ২৮ অক্টোবর বিএনপির মহাসমাবেশ ঘিরে নানা ধরনের গুজব ছড়াচ্ছে—এ বিষয়ে দৃষ্টি আকর্ষণ করা হলে তিনি বলেন, 'গুজব শুধু এ বিষয়ে না, দীর্ঘ দিন ধরে একটি স্বার্থান্বেষী মহল এ দেশের মানুষকে বিভ্রান্ত করার জন্য বিভিন্ন মাধ্যমে; সামাজিক যোগাযোগমাধ্যম, ফেসবুক, ইউটিউবসহ বিভিন্ন মাধ্যমে গুজব ছড়ানোর অপচেষ্টা করে আসছে। আমি মনে করি, বাংলাদেশের মানুষ, ঢাকা শহরের মানুষ সবাই সচেতন। এসব গুজবে আদৌ কান দেবে না এবং সেগুলো প্রতিহত করার জন্য সচেষ্ট থাকবে।'

আরেক প্রশ্নের জবাবে ডিএমপি কমিশনার বলেন, '২০১৩-১৪ সালে এ ধরনের অপচেষ্টা করা হয়েছিল। সেটি কেবল ঢাকা নয়, সারা বাংলাদেশেই করা হয়েছিল। তখন বাংলাদেশের জনগণ, বাংলাদেশের পুলিশ শক্ত হাতে প্রতিহত করেছে এবং পরাজিত হয়েছে সন্ত্রাসীরা। আগামীতে এ ধরনের যে কোনো অপচেষ্টার বিরুদ্ধে জনগণ এবং পুলিশ একসঙ্গে প্রতিহত করতে সক্ষম হবে।'

Comments