রাজনীতি

নাশকতা মামলায় বিএনপির ২৫ নেতাকর্মীর ৩ বছরের কারাদণ্ড

মামলার এজাহারে বলা হয়, বিএনপি চেয়ারপারসন খালেদা জিয়ার মুক্তির দাবিতে ২০১৮ সালের ৬ সেপ্টেম্বর রাজধানীর বংশালে বিএনপি ও এর অঙ্গ সংগঠনের একদল নেতা-কর্মী যানবাহন, দোকানপাট ভাঙচুর করে এবং স্থানীয় জনগণের মধ্যে নৈরাজ্য সৃষ্টি করে।

রাজনৈতিক সহিংসতার অভিযোগে রাজধানীর বংশাল থানায় করা মামলায় বিএনপি ও এর অঙ্গ সংগঠনের ২৫ নেতাকর্মীকে তিন বছরের সশ্রম কারাদণ্ড দিয়েছেন আদালত।

মামলায় দণ্ডপ্রাপ্তদের মধ্যে নগরীর ৬৮ নম্বর ওয়ার্ড বিএনপির সভাপতি মো. তাইজুদ্দিন ওরফে 'লম্বা' তাইজু ও মহিলা দলের ঢাকা দক্ষিণ সিটির সভাপতি রাজিয়া আলম ওরফে রাজিয়া সুলতানা রয়েছেন।

ঢাকা মহানগর হাকিম মোহাম্মদ শেখ সাদীর আদালতে আসামিদের অনুপস্থিতিতে এ রায় ঘোষণা করা হয়।

রায় ঘোষণার আগে ম্যাজিস্ট্রেট তাদের জামিন বাতিল করে পলাতক ঘোষণা করেন এবং সাজা দেন।

ম্যাজিস্ট্রেট তাদের বিরুদ্ধে সাজা পরোয়ানা জারি করেন এবং বংশাল থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তাকে আদালতের আদেশ কার্যকর করার নির্দেশ দেন।

তাদের গ্রেপ্তার বা আত্মসমর্পণের দিন থেকে তাদের শাস্তি কার্যকর হবে বলে ম্যাজিস্ট্রেট তার রায়ে বলেছেন।

এর আগে রাষ্ট্রপক্ষ ও আসামিপক্ষ তাদের যুক্তিতর্ক উপস্থাপন শেষ করে এবং মামলার অভিযোগকারীসহ প্রসিকিউশনের তিন সাক্ষীর জবানবন্দি রেকর্ড করেন আদালত।

মামলার এজাহারে বলা হয়, বিএনপি চেয়ারপারসন খালেদা জিয়ার মুক্তির দাবিতে ২০১৮ সালের ৬ সেপ্টেম্বর বিকাল পৌনে ৪টার দিকে রাজধানীর বংশাল এলাকার আহমেদ বাওয়ানী স্কুলের সামনে তাইজুর নেতৃত্বে বিএনপি ও এর অঙ্গ সংগঠনের একদল নেতা-কর্মী জড়ো হন। তারা যানবাহন, দোকানপাট ভাঙচুর করে এবং স্থানীয় জনগণের মধ্যে নৈরাজ্য সৃষ্টি করে।

এ ঘটনায় তাইজু, রাজিয়াসহ ২৩ জনকে আসামি করে বংশাল থানায় মামলা করে পুলিশ।

তদন্তের পর, পুলিশ ২০১৯ সালের ৩০ জুন তাদের বিরুদ্ধে একটি চার্জশিট জমা দেয়। ২০২২ সালের ২৭ ফেব্রুয়ারি তাদের বিরুদ্ধে আদালত অভিযোগ গঠন করেন।

Comments