রাজনীতি

কৃষিমন্ত্রীর বক্তব্য ব্যক্তিগত, বিএনপিকে আমরা কোনো প্রস্তাব দেইনি: কাদের

‘এ ধরনের কোনো প্রস্তাব আমাদের সরকারও দেয়নি, আমাদের দলও দেয়নি।’
কৃষিমন্ত্রীর বক্তব্য ব্যক্তিগত, বিএনপিকে আমরা কোনো প্রস্তাব দেইনি: কাদের
আওয়ামী লীগ সাধারণ সম্পাদক এবং সড়ক পরিবহন ও সেতুমন্ত্রী ওবায়দুল কাদের | ছবি: টেলিভিশন থেকে নেওয়া

দ্বাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচনে বিএনপির অংশগ্রহণ নিশ্চিত করতে নেওয়া উদ্যোগ প্রসঙ্গে কৃষিমন্ত্রী যা বলেছেন, সেটি তার ব্যক্তিগত মত বলে জানিয়েছেন আওয়ামী লীগ সাধারণ সম্পাদক এবং সড়ক পরিবহন ও সেতুমন্ত্রী ওবায়দুল কাদের।

আজ সোমবার দুপুরে রাজধানীর ধানমন্ডিতে আওয়ামী লীগ সভাপতির রাজনৈতিক কার্যালয়ে গণমাধ্যমকর্মীদের সঙ্গে আলাপকালে তিনি এ কথা বলেন।

একজন গণমাধ্যমকর্মী জানতে চান, একটি বেসরকারি টেলিভিশনে সাক্ষাৎকারে আওয়ামী লীগের প্রেসিডিয়াম সদস্য ও কৃষিমন্ত্রী বলেছেন, বিএনপিকে নির্বাচনে আসার জন্য প্রস্তাব দেওয়া হয়েছিল। যদি আসতো তারা, তাহলে রাতারাতি ২০ হাজার নেতাকর্মীকে ছেড়ে দেওয়া হতো। এই ব্যাপারটা বিচারের জায়গা থেকে প্রশ্নবিদ্ধ হয় কি না—জবাবে কাদের বলেন, 'কৃষিমন্ত্রীর নামে খবরটি ইন্টারভিউতে প্রকাশ করেছে। তিনি যে বক্তব্য দিয়েছেন, সেটা তার ব্যক্তিগত মতামত।'

ওবায়দুল কাদের বলেন, 'আওয়ামী লীগ কোনো দেউলিয়া দল নয়। আওয়ামী লীগ দলীয় নিয়ম-নীতি ভঙ্গ করে; গণতন্ত্রের প্রতি আওয়ামী লীগের যে কমিটমেন্ট, সেটা বিনষ্ট করে এ ধরনের উদ্ভট প্রস্তাব বিএনপি বা আর কাউকে দেবে, এটা কখনো সঠিক হতে পারে না।'

তিনি আরও বলেন, 'এ ধরনের কোনো প্রস্তাব আমাদের সরকারও দেয়নি, আমাদের দলও দেয়নি। আমরা দলীয়ভাবে এ ধরনের প্রস্তাব দেইনি। আর বিএনপির ২০ হাজার নেতাকর্মী জেলে আছে এটাও তো আমরা স্বীকার করি না!

'তাদের জেলে আছে কত সে হিসাবটা আমি মির্জা ফখরুলের কাছে অনেকবার চেয়েছি। তাদের জেলে কত আছে সেই তালিকাটা তারা বের করুক। এ রকম উদ্ভট ২০ হাজার, একটা সংখ্যা বলে দিলো—সেটা সবাই বিশ্বাস করবে, এমন তো নয়! এটা বিশ্বাস করার তো কোনো কারণ নেই। এত লোক গ্রেপ্তারও হয়নি,' বলেন কাদের।

তিনি বলেন, 'আইন ভঙ্গ করে, পুলিশকে হত্যা করে যারা জেলে আছে, প্রধান বিচারপতির বাড়িতে হামলা করে, কোর্টের এজলাসে হামলা করে, পুলিশ হাসপাতালে হামলা করে, প্রকাশ্য দিবালোকে একজন পুলিশকে পিটিয়ে, তার মাথা ফেটে গেছে, সেখানে পর্যন্ত তাকে পেটানো হচ্ছিল; বারবার! লাশ হয়ে যাওয়ার পরও তাকে আঘাত করা হয়েছে। এত অমানবিক, এত নিষ্ঠুরতা যারা ঘটিয়েছে তাদের তো আইনের আওতায় আসতেই হবে। এখানে নির্বাচনে কাউকে আনার জন্য অপরাধকে ক্ষমা করব—এ দল আওয়ামী লীগ না।'

আপনি বলছেন যাদের আটক করা হয়েছে তাদের বিভিন্ন ঘটনার পরিপ্রেক্ষিতে, মামলার কারণে আটক করা হয়েছে কিন্তু তিনি (কৃষিমন্ত্রী) বলেছেন, সুচিন্তিতভাবে আমরা তাদের আটক করেছি; এ ব্যাপারে গণমাধ্যমকর্মী জানতে চাইলে কাদের বলেন, 'আমি বললাম, উনার সমুদয় বক্তব্য উনার ব্যক্তিগত।'

ব্যক্তিগত বক্তব্যের কারণে দল কোনো ব্যবস্থা নেবে কি না জানতে চাইলে আওয়ামী লীগ সাধারণ সম্পাদক বলেন, 'দল ব্যবস্থা নেবে কি না এটা দলের ব্যাপার। কীভাবে নেবে সেটাও দলের ব্যাপার।'

Comments