উইকেটে কোন জুজু দেখছেন না বাংলাদেশের পেস বোলিং কোচ

শুক্রবার সিলেট টেস্টের প্রথম দিন শেষে খানিকটা এগিয়ে শ্রীলঙ্কা। তাদের ২৮০ রানের জবাবে ৩ উইকেট হারিয়ে ৩২ রান তুলে দিন শেষ করেছে বাংলাদেশ।
Taijul Islam & Mahmudul Hasan Joy
ছবি: ফিরোজ আহমেদ

৫৭ রানে ৫ উইকেট পড়ে গিয়েছিল শ্রীলঙ্কার। স্বাভাবিকভাবে দিনটা হওয়ার কথা ছিলো পুরোপুরি বাংলাদেশের। কিন্তু দুই সেঞ্চুরিতে তারা ২৮০ করার পর বাংলাদেশ ব্যাট করতে নেমে হারিয়ে ফেলল ৩ উইকেট। প্রথম দিন শেষে ম্যাচে বরং লঙ্কানদের দাপট। বাংলাদেশের পেস বোলিং কোচ আন্দ্রে অ্যাডামস মনে করছেন, উইকেট ব্যাট করার জন্য কঠিন নয়। দ্বিতীয় দিনের তাদের ব্যাটিংয়ের উপরই নির্ভর করছে খেলার গতিপথ।

শুক্রবার সিলেট টেস্টের প্রথম দিন শেষে খানিকটা এগিয়ে শ্রীলঙ্কা। তাদের ২৮০ রানের জবাবে ৩ উইকেট হারিয়ে ৩২ রান তুলে দিন শেষ করেছে বাংলাদেশ।

ছয় বিশেষজ্ঞ ব্যাটার নিয়ে খেলা বাংলাদেশের লেজ এবার বেশ লম্বা। প্রতিপক্ষের রান টপকে লিড নেওয়া নিয়ে তাই শঙ্কা আছেই।

দিন শেষে দলের হয়ে কথা বলতে এসে অ্যাডামস জানান, উইকেটে পেসাররা ভালো করলেও ব্যাট করার জন্যও সিলেটের বাইশগজ বেশ আদর্শ। নিজেদের খেলার উপরই তাই আস্থা রাখতে বলছেন তিনি,  'দেখা যাক আমরা কেমন ব্যাট করি। পাঁচ উইকেট পড়ার পর তারা কিছু আলগা রান পেয়ে গিয়েছে। এটা ভালো উইকেট। এখানে কোন জুজু নেই। বাউন্স ও ক্যারি আছে।  আমাদেরকে ভালো ব্যাট করতে হবে। এটা এমন কিছু না যে উইকেটই ম্যাচের ভাগ্য গড়ে দেবেন। আমরা কীভাবে খেলি সেটা ঠিক করে দেবে ম্যাচের গতিপথ।'

টস জিতে বোলিং বেছে খালেদ আহমেদের তোপে প্রথম সেশনেই প্রতিপক্ষের ৫ উইকেট ফেলে দেয় বাংলাদেশ। তবে এরপর কামিন্দু মেন্ডিস ও ধনঞ্জয়া ডি সিলভা মিলে গড়েন ২০২ রানের জুটি। দুজনেই করেন সেঞ্চুরি। দ্বিতীয় সেশনে আগ্রাসী ব্যাট চালিয়ে তারা তুলেন ১২৫ রান। এই সময় বাংলাদেশের বোলিং হয় গড়পড়তা।

Comments