সিট বাণিজ্য-চাঁদাবাজি: ইডেন কলেজ ছাত্রলীগ সভাপতি-সম্পাদককে অবাঞ্ছিত ঘোষণা

ইডেন কলেজ ছাত্রলীগের সভাপতি তামান্না জেসমিন রিভা ও সাধারণ সম্পাদক রাজিয়া সুলতানার বিরুদ্ধে ছাত্রী নিবাসের সিট বাণিজ্য, চাঁদাবাজি, শিক্ষার্থী নির্যাতনসহ বেশ কয়েকটি অভিযোগ এনে অবাঞ্ছিত ঘোষণা করেছেন কলেজ ছাত্রলীগের ২৫ নেত্রী।
আজ রোববার দুপুরে এক সংবাদ সম্মেলনে রিভা ও রাজিয়াকে কলেজে অবাঞ্ছিত ঘোষণা করা হয়। ছবি: সংগৃহীত

ইডেন কলেজ ছাত্রলীগের সভাপতি তামান্না জেসমিন রিভা ও সাধারণ সম্পাদক রাজিয়া সুলতানার বিরুদ্ধে ছাত্রী নিবাসের সিট বাণিজ্য, চাঁদাবাজি, শিক্ষার্থী নির্যাতনসহ বেশ কয়েকটি অভিযোগ এনে অবাঞ্ছিত ঘোষণা করেছেন কলেজ ছাত্রলীগের ২৫ নেত্রী।

রিভা ও রাজিয়ার বিরুদ্ধে সাংগঠনিক ব্যবস্থা না নিলে এই ২৫ নেত্রী পদত্যাগের হুমকিও দিয়েছেন।

আজ রোববার দুপুরে এক সংবাদ সম্মেলনে রিভা ও রাজিয়াকে কলেজে অবাঞ্ছিত ঘোষণা করা হয়।

গতকাল রাত সাড়ে ১০টার দিকে রিভা ও রাজিয়ার উপস্থিতে তাদের অনুসারীরা ইডেন কলেজ ছাত্রলীগের সহসভাপতি জান্নাতুল ফেরদৌসীর ওপর হামলা করেছে বলে অভিযোগ উঠে। ওই হামলার ঘটনাকে কেন্দ্র করে আজ ইডেন কলেজে সংবাদ সম্মেলন করা হয়। 

সংবাদ সম্মেলনে অভিযোগ করা হয়, রিভা ও রাজিয়ার অনুমতি ছাড়া কলেজ প্রশাসন শিক্ষার্থীদের কোনো কাগজে সই করেন না।

এ অভিযোগের বিষয়ে জানতে কলেজের অধ্যক্ষ সুপ্রিয়া ভট্টাচার্যকে ফোন দিলে তিনি তা রিসিভ করেননি।

ইডেন কলেজ ছাত্রলীগের সভাপতি ও সাধারণ সম্পাদক বিরুদ্ধে বারবার কলেজ প্রশাসন ও কেন্দ্রীয় ছাত্রলীগের কাছে বিচার দেওয়ার পরেও কোনো সমাধান না পাওয়ায় তাদেরকে অবাঞ্ছিত ঘোষণা করা হয়েছে।

রিভা ও রাজিয়ার বিরুদ্ধে আনিত অভিযোগ তদন্তে ছাত্রলীগের কেন্দ্রীয় কমিটির সহসভাপতি তিলোত্তমা শিকদার ও যুগ্ম-সাধারণ সম্পাদক বেনজির হোসেন নিশির সমন্বয়ে গঠিত ২ সদস্যের কমিটিকেও ইডেন কলেজে অবাঞ্ছিত ঘোষণা করা হয়েছে।

সংবাদ সম্মেলনে কয়েকটি দাবি তুলে ধরা হয়। উল্লেখযোগ্য কয়েকটি দাবি হলো—

১. কলেজে একচেটিয়া রাজনীতি ও চাঁদাবাজি বন্ধ করতে হবে।

২. প্রত্যেক শিক্ষার্থীর নিরাপত্তা নিশ্চিত করতে হবে।

৩. সিট বাণিজ্য বন্ধ করতে হবে।

৪. জান্নাতুল ফেরদৌসীর ওপর হামলার ঘটনায় জড়িতদের বিরুদ্ধে সাংগঠনিক ব্যবস্থা নিতে হবে।

৫. কলেজের সিসিটিভির ফুটেজ গায়েব করা যাবে না।

Comments