শাবিপ্রবি শিক্ষার্থী হত্যা: সন্দেহভাজন ৩ জনকে জিজ্ঞাসাবাদ করছে পুলিশ

শাহজালাল বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়ের লোকপ্রশাসন বিভাগের শিক্ষার্থী বুলবুল আহমদ হত্যার ঘটনায় ৩ জনকে জিজ্ঞাসাবাদের জন্য আটক করেছে পুলিশ।
বুলবুল আহমেদ। ছবি: সংগৃহীত

শাহজালাল বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়ের লোকপ্রশাসন বিভাগের শিক্ষার্থী বুলবুল আহমদ হত্যার ঘটনায় ৩ জনকে জিজ্ঞাসাবাদের জন্য আটক করেছে পুলিশ।

সিলেট মেট্রোপলিটন পুলিশের উপ-কমিশনার (উত্তর) আজবাহার আলী শেখ দ্য ডেইলি স্টারকে এ তথ্য নিশ্চিত করেছেন।

তিনি বলেন, 'এ হত্যাকাণ্ডে জড়িত সন্দেহে ৩ জনকে জিজ্ঞাসাবাদ করা হচ্ছে। জিজ্ঞাসাবাদ শেষে তাদের সম্পৃক্ততা থাকলে বিস্তারিত জানানো হবে।'

সোমবার সন্ধ্যা ৭টা ৪৫ মিনিটের দিকে বিশ্ববিদ্যালয়ের ভেতরে গাজী কালুর টিলা এলাকায় বেড়াতে গিয়ে দুর্বৃত্তদের ছুরিকাঘাতে নিহত হন বুলবুল আহমদ। লোকপ্রশাসন বিভাগের তৃতীয় বর্ষের এই শিক্ষার্থীর বাড়ি নরসিংদী সদরের চিনিশপুরম নন্দীপাড়া গ্রামে।

এ হত্যার ঘটনায় সোমবার মধ্যরাতে জালালাবাদ থানায় অজ্ঞাতনামা কয়েকজনের বিরুদ্ধে হত্যা মামলা দায়ের করেন বিশ্ববিদ্যালয়ের রেজিস্ট্রার মুহাম্মদ ইশফাকুল হোসেন।

হত্যার ঘটনায় রাতেই বিক্ষোভ ও প্রতিবাদ কর্মসূচি পালন করেন শিক্ষার্থীরা। রাত সাড়ে ১০টায় ক্যাম্পাসে প্রতিবাদ মিছিল, প্রশাসনিক কার্যালয়ের সামনে অবস্থান এবং মধ্যরাতে সিলেট-সুনামগঞ্জ মহাসড়ক অবরোধ করে প্রতিবাদ জানান শিক্ষার্থীরা।

আজ সকাল ১১টায় ক্যাম্পাসের কেন্দ্রীয় লাইব্রেরির সামনে মানববন্ধন করেন সাধারণ শিক্ষার্থীরা। পরে একটি বিক্ষোভ মিছিল করেন।

এসময় শিক্ষার্থীরা ২৪ ঘণ্টার মধ্যে হত্যাকারীদের গ্রেপ্তারসহ ৪ দফা দাবি জানান। দাবিগুলো হলো—আগামী ২৪ ঘণ্টার মধ্যে বুলবুল হত্যায় সম্পৃক্তদের গ্রেপ্তার করে দ্রুত আইনের আওতায় এনে সর্বোচ্চ শাস্তি কার্যকর; নিহত বুলবুলের পরিবারকে অতিদ্রুত সর্বোচ্চ ক্ষতিপূরণ নিশ্চিতের পাশাপাশি ক্ষতিপূরণের পরিমাণ ও প্রদানের উপায় সুস্পষ্টভাবে উল্লেখ করা; ক্যাম্পাসের সর্বোচ্চ নিরাপত্তা নিশ্চিত এবং বুলবুলের স্মৃতি রক্ষার্থে বুলবুল হত্যার স্থানে স্মৃতিস্তম্ভ নির্মাণ ও বুলবুল চত্বর ঘোষণা করা।

Comments

The Daily Star  | English
Awami League's peace rally

Relatives in UZ Polls: AL chief’s directive for MPs largely unheeded

Ministers’ and Awami League lawmakers’ desire to tighten their grip on grassroots seems to be prevailing over the AL president’s directive to have their family members and relatives withdrawn from the upazila polls. 

2h ago