দক্ষিণ এশিয়া

কারাগারে যেমন আছেন ইমরান খান

কারাগারের এক জ্যেষ্ঠ কর্মকর্তা জানান, পাকিস্তানের ১৯৭৮ সালের কারাগার আইনের আওতায় ‘অভিযুক্ত আসামী’ হিসেবে যেসব সুবিধা পাওয়ার কথা, তার সবই পাবেন ইমরান খান।
রয়টার্সের সঙ্গে সাক্ষাৎকারে ইমরান খান। ফাইল ছবি: রয়টার্স
রয়টার্সের সঙ্গে সাক্ষাৎকারে ইমরান খান। ফাইল ছবি: রয়টার্স

দুর্নীতি মামলায় কারাদণ্ড ভোগ করছেন পাকিস্তানের সাবেক প্রধানমন্ত্রী ইমরান খান। ইমরানের আইনজীবী ও রাজনৈতিক দল তেহরিক-ই-ইনসাফ (পিটিআই) দাবি করেছে, অ্যাটক কারাগারে ইমরানকে 'বি-ক্লাস' সুযোগসুবিধা দেওয়া হয়েছে এবং তার সঙ্গে কাউকে দেখা করতে দেওয়া হচ্ছে না।

আজ সোমবার পাকিস্তানের গণমাধ্যম ডন এ তথ্য জানিয়েছে।

পিটিআই চেয়ারম্যানের আইনি উপদেষ্টা নাঈম হায়দার পানজোতা জানান, কারাগারের আশেপাশে কোনো আইনজীবী বা স্থানীয়দের ভিড়তে দেওয়া হচ্ছে না।

ইমরানকে কাপড়, খাবার ও অন্যান্য প্রয়োজনীয় উপকরণ দেওয়ার পাশাপাশি কিছু কাগজে সাক্ষর নেওয়ার জন্য তার আইনজীবীরা তার সঙ্গে রবিবার দেখা করতে গেলে কর্তৃপক্ষ তাদেরকে ফিরিয়ে দেয় এবং সোমবার আবার আসার অনুরোধ জানায়।

পানজোতা বলেন, 'আমরা তাদেরকে জানাই, ইমরানের কাছ থেকে পাওয়ার অব অ্যাটর্নি ও অন্য কিছু নথিতে সাক্ষর নেওয়ার জন্য আমরা সেখানে গেছি। বেশ কিছু আবেদন ও আদালতের আদেশের বিরুদ্ধে চ্যালেঞ্জ জানাতে এটা আবশ্যক।'

কারাগারের এক জ্যেষ্ঠ কর্মকর্তা জানান, পাকিস্তানের ১৯৭৮ সালের কারাগার আইনের আওতায় 'অভিযুক্ত আসামী' হিসেবে যেসব সুবিধা পাওয়ার কথা, তার সবই পাবেন ইমরান খান।

তিনি জানান, আইন অনুযায়ী, কয়েদীদের ৩টি শ্রেণীতে ভাগ করা হয়—উচ্চতর, সাধারণ ও রাজনৈতিক শ্রেণী। উচ্চতর বা সুপিরিয়রের আওতায় এ ও বি ক্লাস রয়েছে।

বি-ক্লাসের আওতায় ইমরান বই, পছন্দ অনুযায়ী সংবাদপত্র, টেবিল, চেয়ার, ১ট ২১ ইঞ্চি টিভি, তোষক, জেলখানার খাবার ও তাকে যে ব্যারাকে রাখা হয়েছে, সে ব্যারাকের টয়লেট সুবিধা পাবেন বলে জানান কর্মকর্তা। তবে তাকে বাইরে থেকে খাবার দেওয়া যাবে না।

একইভাবে, বিদ্যুৎ চলে গেলে আলোর জন্য তার কক্ষে একটি লন্ঠন রাখা হয়েছে। এছাড়াও, কাপড় ধোঁয়া ও ইস্ত্রির সুবিধাও রয়েছে সেখানে।

তিনি বলেন, শনিবারে ইমরান খান যখন কারাগারে আসেন, তখন তিনি সুস্থ ছিলেন। তিনি আরও জানান, সাবেক প্রধানমন্ত্রী সপ্তাহে ১ বার পরিবার ও আইনজীবীদের সঙ্গে দেখা করতে পারবেন। বাড়তি কোনো সুবিধা পেতে হলে তাকে কারাগারের সুপারের কাছ থেকে অনুমতি নিতে হবে।

ইমরান খানকে গ্রেপ্তারের প্রতিবাদে অ্যাটক কারাগারের বাইরে পিটিআই সমর্থকদের বিক্ষোভের বিষয়টি অস্বীকার করেন তিনি।

Comments