রাজনীতি

রাজশাহী ও রংপুর বিভাগের মনোনয়ন চূড়ান্ত হয়েছে: কাদের

‘কিছু কিছু সংসদ সদস্য বাদ পড়েছেন’
রাজশাহী ও রংপুর বিভাগের মনোনয়ন চূড়ান্ত
আওয়ামী লীগ সাধারণ সম্পাদক এবং সড়ক পরিবহন ও সেতুমন্ত্রী ওবায়দুল কাদের | ছবি: টেলিভিশন থেকে নেওয়া

দ্বাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচনে আওয়ামী লীগ দুই বিভাগের প্রার্থী মনোনয়ন চূড়ান্ত করেছে বলে জানিয়েছেন দলটির সাধারণ সম্পাদক এবং সড়ক পরিবহন ও সেতুমন্ত্রী ওবায়দুল কাদের।

আজ বৃহস্পতিবার দুপুরে রাজধানীর তেজগাঁওয়ে ঢাকা জেলা আওয়ামী লীগের কার্যালয়ে সংবাদ সম্মেলনে তিনি এ কথা বলেন।

কাদের বলেন, 'আমাদের পার্লামেন্টারি বোর্ড আজকে দুটি বিভাগ—রংপুরে ৩৩টি ও রাজশাহীতে ৩৬টি, মোট ৬৯টি আসনের ব্যাপারে সিদ্ধান্ত নিয়েছে। তবে আমরা পুরোপুরি সব বিভাগের মনোনয়ন শেষ হওয়া পর্যন্ত ফল প্রকাশ করব না।'

তিনি বলেন, 'আমরা একসঙ্গে আমাদের মনোনয়ন ঘোষণা করব আনুষ্ঠানিকভাবে। আগামীকাল সকাল ১০টা পর্যন্ত সভা মূলতবি। আবারও আমরা এখানে এসে মিলিত হবো।'

আজকে যাদের চূড়ান্ত করা হলো, তাদের মধ্যে রাজনীতির বাইরে কেউ আছেন কি না জানতে চাইলে কাদের বলেন, 'আজকে বোর্ডের যে সিদ্ধান্ত হয়েছে, এখানে রাজনীতির বাইরে কেউ আসেননি। হয়তো আসবে পরবর্তীতে। রংপুর এবং রাজশাহী বিভাগে রাজনীতির বাইরে কেউ বিবেচিত হয়েছে বলে আমার জানা নেই।'

বর্তমান সংসদ সদস্যদের মধ্যে কতজন বাদ পড়েছেন জানতে চাইলে আওয়ামী লীগ সাধারণ সম্পাদক বলেন, 'কয়জন এটা আমি এই মুহূর্তে বলতে পারছি না। তবে বাদ পড়েছেন। কিছু কিছু বাদ পড়েছেন।'

জনগণের কাছে গ্রহণযোগ্যতা প্রার্থী বাছায়ের ক্ষেত্রে গুরুত্ব দেওয়া হয়েছে বলেও এ সময় জানান তিনি।

ওবায়দুল কাদের আরও জানান, আগামী ২৫ নভেম্বরের মধ্যে মনোনয়ন চূড়ান্ত করার কাজ শেষ হয়ে যাবে।

এক প্রশ্নের জবাবে তিনি বলেন, 'নির্বাচনে এবার কেবলমাত্র প্রক্রিয়া শুরু। এর আগেও অনেক নির্বাচন হয়ে গেছে কিন্তু এর আগে যে অবরোধটা ডাকা হয়েছিল সেই অবরোধের কি কোনো ইতি আছে? অবরোধ ডেকে, অবরোধ প্রত্যাহার করার নজির কি আছে? সেটা তো আমাদের মনে নেই।'

জোটের জন্য কতগুলো আসন ছাড়বেন—আলোচনা হয়েছে কি না জানতে চাইলে তিনি বলেন, 'এ রকম আলোচনা হয়নি। তবে এ ব্যাপারে আমরা আশ্বস্ত করছি যে, দেশের মানুষ এই নির্বাচনকে গ্রহণ করেছে, যে কারণে সারা দেশে একটা উৎসবমুখর পরিবেশ দৃশ্যমাণ। জোট হতে পারে বিভিন্নভাবে। কার সঙ্গে কার জোট হবে, শেষ পর্যন্ত জোটের বিষয়টি কোথায় গিয়ে ঠেকবে বলা মুশকিল। নির্বাচনে এটা হতেও পারে, সময় আছে। কাজেই অনেকে আসতে পারে। এমন অনেকেই আসতে পারে যেটা আপনি ভাবছেন না, আমিও ভাবছি না কিন্তু এসে যাবে।'

তরুণরা কতটা গুরুত্ব পাবে জানতে চাইলে কাদের বলেন, 'তরুণরা গুরুত্ব পাবে কিন্তু আমরা সবচেয়ে বেশি গুরুত্ব দিচ্ছি জনগণের কাছে প্রার্থীর গ্রহণযোগ্যতা।'

জোট এখনো চূড়ান্ত হয়নি, আপনি বললেন আরও কেউ আসতে পারে। আপনারা কি জোটের জন্য রেখে মনোনয়ন দিচ্ছেন, জানতে চাইলে আওয়ামী লীগ সাধারণ সম্পাদক বলেন, 'আমরা কারও জন্য কিছু রাখিনি। আমাদেরটা নিয়েই আমরা অগ্রসর হচ্ছি। আমরা দুই বিভাগের মনোনয়ন ইতোমধ্যে চূড়ান্ত করেছি, এখানে কারও জন্য কোনো আসন অপেক্ষা করছে না। আমরা সব আসনে প্রার্থী চূড়ান্ত করেছি।'

Comments

The Daily Star  | English

Loan default now part of business model

Defaulting on loans is progressively becoming part of the business model to stay competitive, said Rehman Sobhan, chairman of the Centre for Policy Dialogue.

7h ago