গাজায় ২৪ ঘণ্টায় ৮ ইসরায়েলি সেনা নিহত, গুরুতর আহত ৬

আইডিএফ নিহত সেনাদের বিস্তারিত পরিচয় প্রকাশ করেছে।
২৪ ঘণ্টার ব্যবধানে গাজায় নিহত হয়েছে ৮ ইসরায়েলি সেনা। ছবি: ইসরায়েলের প্রতিরক্ষা বাহিনীর মুখপাত্রের কার্যালয়
২৪ ঘণ্টার ব্যবধানে গাজায় নিহত হয়েছে ৮ ইসরায়েলি সেনা। ছবি: ইসরায়েলের প্রতিরক্ষা বাহিনীর মুখপাত্রের কার্যালয়

এক দিনের ব্যবধানে গাজা উপত্যকায় আট ইসরায়েলি সেনা নিহত হয়েছেন। ইসরায়েলি প্রতিরক্ষা বাহিনী আইডিএফের মুখপাত্র রোববার সকালে এই তথ্য জানিয়েছেন।

আজ রোববার ইসরায়েলি সংবাদমাধ্যম জেরুজালেম পোস্টের এক প্রতিবেদনে জানা গেছে, শনিবার এই আট সেনা নিহত হয়েছেন। সঙ্গে গুরুতর আহত হয়েছেন আরও ছয় জন।

আইডিএফ নিহত সেনাদের বিস্তারিত পরিচয় প্রকাশ করেছে।

দক্ষিণ গাজায় নিহত হন স্টাফ সার্জেন্ট ডেভিড বগদানোভস্কি (১৯), স্টাফ সার্জেন্ট ওরেল বাশান (২০), ৬০৩তম ব্যাটালিয়নের অন্যতম স্কোয়াড কমান্ডার স্টাফ সার্জেন্ট গ্যাল হের্শকো (২০) ও স্টাফ সার্জেন্ট ইতামার শেমেন (২১), যিনি প্যারামেডিকের দায়িত্ব পালন করছিলেন।

যুদ্ধের ফাঁকে বই পড়ছেন এক ইসরায়েলি সেনা। ছবি: রয়টার্স
যুদ্ধের ফাঁকে বই পড়ছেন এক ইসরায়েলি সেনা। ছবি: রয়টার্স

এই চার সেনাকে বহনকারী সামরিক পরিবহনে ট্যাংক বিধ্বংসী ক্ষেপণাস্ত্র আঘাত হানলে ঘটনাস্থলেই তাদের মৃত্যু হয়। এই হামলায় আরও দুই সেনা গুরুতর আহত হন।

গাজা উপত্যকার কেন্দ্রে যুদ্ধক্ষেত্রে প্রাণ হারান মাস্টার-সার্জেন্ট (রিজার্ভ) নাদাভ ইসসাশার ফারহি (৩০), মাস্টার-সার্জেন্ট (রিজার্ভ) এলিইয়াহু মেইর ওহানা (২৮), সার্জেন্ট ফার্স্ট-ক্লাস (রিজার্ভ) এলিয়াসসাফ শোশান (২৩) ও সার্জেন্ট-ফার্স্ট ক্লাস (রিজার্ভ) ওহাদ আশুর (২৩)। নিহতদের মধ্যে ফারহি যুদ্ধক্ষেত্রে চিকিৎসাকর্মীর (মেডিক) ভূমিকায় ছিলেন। বাকিরা সবাই যুদ্ধে সক্রিয়ভাবে অংশ নেন।

ফারহি ও ওহানা বিস্ফোরক উপকরণের বিস্ফোরণে নিহত হন। এই ঘটনায় অপর এক রিজার্ভ সেনা গুরুতর আহত হন। শোশান ও আশুর হামাসের যোদ্ধাদের বিরুদ্ধে বন্দুকযুদ্ধে অংশ নেওয়ার সময় বিস্ফোরকের আঘাতে প্রাণ হারান। এই ঘটনায় তিন যোদ্ধা গুরুতর আহত হন।

গত ৭ অক্টোবর ইসরায়েলি ভূখণ্ডে অতর্কিত হামলা চালায়। ইসরায়েল কর্তৃপক্ষের সর্বশেষ তথ্য মতে, এই হামলায় প্রায় এক হাজার ১৩৯ ইসরায়েলি নাগরিককে হত্যা করে ফিলিস্তিনি সশস্ত্র সংগঠন হামাসের সদস্যরা। তাদের হাতে জিম্মি হন প্রায় ২৪০ জন। এ ঘটনার পর একইদিনে হামাসকে নির্মূলের উদ্দেশ্যে গাজার বিরুদ্ধে সর্বাত্মক হামলা শুরু করে ইসরায়েল।

ইসরায়েলি সেনা সদস্যরা গাজায় হামলা চালাতে ড্রোনকে অস্ত্রসজ্জিত করছেন। ছবি: রয়টার্স
ইসরায়েলি সেনা সদস্যরা গাজায় হামলা চালাতে ড্রোনকে অস্ত্রসজ্জিত করছেন। ছবি: রয়টার্স

ইসরায়েলের নির্বিচার ও নিরবচ্ছিন্ন স্থল ও বিমানহামলায় এখন পর্যন্ত গাজার ২০ হাজার ২৫৮ ফিলিস্তিনি নিহত ও ৫৩ হাজার ৬৮৮ জন আহত হয়েছেন। ধ্বংসস্তূপের নিচে চাপা পড়ে আছে আরও অসংখ্য মরদেহ। নিহতদের বেশিরভাগই নারী ও শিশু। ফিলিস্তিনি হতাহতের তথ্য জানায় গাজার হামাস নিয়ন্ত্রিত স্বাস্থ্য মন্ত্রণালয়।

জেরুজালেম পোস্ট বলছে, এই সংঘাত শুরু পর মোট ৪৮৫ ইসরায়েলি সেনা প্রাণ হারিয়েছেন।

আল জাজিরার তথ্য মতে ১৫৩ ইসরায়েলি সেনা হামাসের বিরুদ্ধে অভিযানে অংশ নিয়ে প্রাণ হারিয়েছেন।

অভিযানে অংশ নিয়ে আহত হয়েছেন মোট ৮ হাজার ৭৩০ ইসরায়েলি সেনা।

নিহত ও আহত হামাস সদস্যদের সঠিক সংখ্যা জানার কোনো নির্ভরযোগ্য সূত্র নেই।

 

Comments

The Daily Star  | English

Five Transcom officials get bail in property dispute cases

A Dhaka court today granted bail to five officials of Transcom Group in connection with cases filed over property disputes

1h ago