ক্রিকেট
আইপিএল

ওয়ার্নারের স্ট্রাইকরেট নিয়ে চিন্তায় দিল্লি

৪ ম্যাচে মধ্যে করেছেন তিন ফিফটি। সর্বোচ্চ রান সংগ্রাহকে এই পর্যন্ত শেখর ধাওয়ানের ঠিক পরে দ্বিতীয় অবস্থানে আছেন ডেভিড ওয়ার্নার। এমন রানের মধ্যে থাকা ওপেনার নিশ্চয়ই দলের জন্য আশীর্বাদ?  আসলে উল্টো।
David Warner
ডেভিড ওয়ার্নার। ফাইল ছবি: আইপিএল

৪ ম্যাচে মধ্যে করেছেন তিন ফিফটি। সর্বোচ্চ রান সংগ্রাহকে এই পর্যন্ত শেখর ধাওয়ানের ঠিক পরে দ্বিতীয় অবস্থানে আছেন ডেভিড ওয়ার্নার। এমন রানের মধ্যে থাকা ওপেনার নিশ্চয়ই দলের জন্য আশীর্বাদ?  আসলে উল্টো। ওয়ার্নার রান করছেন ঠিকই কিন্তু রান তোলার গতি বড় মন্থর। দিল্লি ক্যাপিটালস টানা হারের মধ্যে থাকায় এই রান যে কাজে লাগছে না, সেটাও প্রমাণিত। টপ অর্ডারের বাকিদের ব্যর্থতা আর অধিনায়কের আড়ষ্ট ব্যাটিং নিয়ে বেশ চিন্তায় দিল্লি।

আইপিএলে এবার দশ দলের মধ্যে কেবল দিল্লি কোন ম্যাচ জিততে পারেনি। হেরেছে চার ম্যাচের সবগুলোতে। মঙ্গলবার রাতে ১৭২ রান করে তারা শেষ বলের উত্তেজনা হারে মুম্বাই ইন্ডিয়ান্সের কাছে। আগে ব্যাট করতে গিয়ে ওয়ার্নার করেন ৪৭ বলে ৫১ রানের মন্থর ইনিংস।

মূলত আকসার প্যাটেল ২৫ বলে ৫৪ রানের ঝড়ো ইনিংস না খেললে দিল্লির দেড়শো করাই হতো কঠিন।

এর আগে রাজস্থান রয়্যালসের বিপক্ষে ২০০ রান তাড়ায় ওয়ার্নার করেছিলেন ৫৫ বলে ৬৫। ওইদিন তিনি আর ললিত যাদব ছাড়া কেউই পাননি রানের দেখা। ওয়ার্নারের ১১৮ স্ট্রাইকরেটের ইনিংসও লাগেনি কোন কাজে।

লক্ষ্ণৌ সুপার জায়ান্টের বিপক্ষে ১৯৪ রান তাড়াতেও শুরুতে উইকেট পড়ার পর ওয়ার্নার ঢুকে যান খোলস। খেলেন ৪৮ বলে ৫৬ রানের ইনিংস। যাতে কেবল হারের ব্যবধানই কমেছে।

১১৪.৮৩ স্ট্রাইকরেটে ২০৯ রান করা ওয়ার্নার যে প্রত্যাশার ধারেকাছেও নেই তা বলার অপেক্ষা রাখে না। দিল্লির টপ অর্ডারে উইকেট পতনের সঙ্গে ওয়ার্নারের মন্থর খেলাও চিন্তার কারণ। অনেকে মনে করছেন তার খোলসবন্দি হওয়ার চাপ পড়ছে মিডল অর্ডারের উপর, সেই চাপ সামাল দিতে ব্যর্থতার চক্রে ঘুরপাক খাচ্ছে তারা।

মুম্বাইর বিপক্ষে লোয়ার মিডল অর্ডারে ঝড় তোলা আকসার সংবাদ সম্মেলনে এসে জানান, ওয়ার্নারের স্ট্রাইকরেট নিয়ে আলাপ হচ্ছে তাদের দলেও, 'গত দুই তিন ম্যাচে উনি চেষ্টা করছে কিন্তু হচ্ছে না (দ্রুত রান), লাগছে না। এরকম সময়ে একজন ব্যাটার কি ভাবেন বুঝতে পারছি না। অ্যাঙ্কর রোল তখনই হবে যখন পৃথ্বী একদিক থেকে মারবে। উনার সামনে উইকেট পড়বে তখন হয়ত দুদিক থেকে মারা আদর্শ না। এই বিষয়ে আর কি বলব? (হাসি)। উনি চেষ্টা করছে, না লাগলে তো…।'

দিল্লির ডাক আউটে আছেন নামকরা বেশ কজন তারকা। প্রধান কোচ রিকি পন্টিং, ব্যাটিং কোচ শেন ওয়াটস আর মেন্টর সৌরভ গাঙ্গুলি আন্তর্জাতিক ক্রিকেটে বড় নাম। তারা সবাই ওয়ার্নারের সঙ্গে এই বিষয়ে কথা বলছেন, ওয়ার্নারও জড়তা কাটাতে চালাচ্ছেন চেষ্টা,  'সবাই কথা বলছে তার সঙ্গে। রিকি (পন্টিং), (শেন)ওয়াটসন, দাদা (সৌরভ গাঙ্গুলি) সবাই কথা বলছেন এই নিয়ে। স্ট্রাইকরেট নিয়ে কি করা যায় এসব নিয়ে আলাপ হচ্ছে, ভিডিও দেখছেন। আমার মনে হয় সে এটা নিয়ে কাজ করছে।'

Comments