বৃষ্টির কারণেই আইরিশদের জয়ের ভালো সুযোগ ছিল, মত স্টার্লিংয়ের

ওভারপ্রতি গড়ে ১৩ রান লাগলেও আয়ারল্যান্ডের হাতে ছিল ১০ উইকেট। তাদের শুরুটাও হয়েছিল প্রত্যাশিত। তবে বাংলাদেশের পেসার তাসকিন আহমেদের তোপে পথ হারিয়ে ফেলে তারা।
ছবি: ফিরোজ আহমেদ

ব্যাটিং স্বর্গ যাকে বলা চলে! চট্টগ্রাম জহুর আহমেদ চৌধুরী স্টেডিয়ামের উইকেট ছিল তেমনটাই। বৃষ্টির কারণে ব্যাটারদের কাজটা সহজ হয়ে গিয়েছিল আরও। তারপরও ৮ ওভারে ১০৪ রানের জয়ের লক্ষ্য পূরণ করতে পারেনি আয়ারল্যান্ড। এতে তৈরি হওয়া হতাশা গোপন করেননি তাদের অধিনায়ক পল স্টার্লিং।

সোমবার সিরিজের প্রথম টি-টোয়েন্টিতে ডিএলএস পদ্ধতিতে ২২ রানে পরাস্ত হয়েছে আইরিশরা। টস হেরে আগে ব্যাট করে বাংলাদেশ ১৯.২ ওভারে ৫ উইকেটে ২০৭ রান তোলে। এরপর বৃষ্টির কারণে বন্ধ হয়ে যায় খেলা। দুই ঘণ্টার বেশি সময় পর সফরকারীরা পায় পরিবর্তিত লক্ষ্য। কিন্তু তারা ৫ উইকেট হারিয়ে ৮১ রানের বেশি করতে পারেনি।

ওভারপ্রতি গড়ে ১৩ রান লাগলেও আয়ারল্যান্ডের হাতে ছিল ১০ উইকেট। তাদের শুরুটাও হয়েছিল প্রত্যাশিত। ইনিংসের প্রথম দুই ওভারে বিনা উইকেটে স্কোরবোর্ডে ওঠে ৩২ রান। তবে এরপর বাংলাদেশের পেসার তাসকিন আহমেদের তোপে পথ হারিয়ে ফেলে তারা। সেই অবস্থান থেকে আর ঘুরে দাঁড়ানো হয়নি তাদের।

ছবি: ফিরোজ আহমেদ

নিয়মিত অধিনায়ক অ্যান্ড্রু বালবার্নি বিশ্রামে থাকায় নেতৃত্ব পাওয়া স্টার্লিং ম্যাচের পর প্রকাশ করেন হতাশা। সংবাদ সম্মেলনে তিনি বলেন, বৃষ্টির কারণে উইকেট ব্যাটিংয়ের জন্য আরও বেশি উপযুক্ত হয়ে গিয়েছিল, 'না, আমি মনে করি, বৃষ্টি নিশ্চিতভাবেই আমাদের সহায়তা করেছে। যতই ওভার কমেছে, ততই আমরা ম্যাচে ফিরেছি। আমি মনে করি, আমাদের (জয়ের) ভালো সুযোগ ছিল। বৃষ্টির কারণে উইকেট ভালো হয়েছে। ব্যাট করা সহজ হয়ে গিয়েছে। আমি আবারও বলছি, আমরা (রান তাড়ায়) সবচেয়ে উপযুক্ত কন্ডিশন পেয়েছি। সেকারণে এটা হতাশজনক যে প্রথম এক বা দুই ঘণ্টায় উইকেট কঠিন থাকলেও দিন যত গড়িয়েছে, তত এটা ভালো হয়েছে (ব্যাটিংয়ের জন্য)। বিশেষ করে, বৃষ্টির কারণে।'

আয়ারল্যান্ডের বিপক্ষে প্রথম টি-টোয়েন্টিতে জিতে তিন ম্যাচের সিরিজে ১-০ ব্যবধানে এগিয়ে গেছে স্বাগতিক বাংলাদেশ। আগামী বুধবার একই ভেন্যুতে দ্বিতীয় টি-টোয়েন্টিতে মুখোমুখি হবে দুই দল।

Comments

The Daily Star  | English

Rohingyas being forcibly recruited by Myanmar military: report

Community leaders have been pressured to compile lists of at least 50 men for each small village and at least 100 for each IDP camp and large village

12m ago