প্রার্থীরা আন্তরিক না হলে সুষ্ঠু নির্বাচন করা দুরূহ হবে: সিইসি

‘প্রার্থীরা আমাদের কথা দিয়েছেন, তারা পারস্পরিক বিশ্বাস ও আস্থা রেখে নির্বাচন প্রক্রিয়ায় সহযোগিতা করবেন।’
cec
সাংবাদিকদের সঙ্গে কথা বলছেন সিইসি কাজী হাবিবুল আউয়াল। ছবি: সংগৃহীত

প্রার্থীরা যদি নিজেদের মধ্যে পারস্পরিক সম্পর্ক বজায় রেখে আচরণবিধি মেনে না চলেন, তাহলে অবাধ ও সুষ্ঠু নির্বাচন করা দুরূহ হবে বলে জানিয়েছেন প্রধান নির্বাচন কমিশনার (সিইসি) কাজী হাবিবুল আউয়াল।

আজ মঙ্গলবার দুপুরে রংপুরের সার্কিট হাউসে নির্বাচনে অংশ নেওয়া রংপুর জেলার ৩৬ জন প্রার্থীর সঙ্গে মতবিনিময় শেষে সাংবাদিকদের এ কথা জানান সিইসি।

দ্বাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচনকে অবাধ, সুষ্ঠু ও গ্রহণযোগ্য করতে প্রার্থীদের বার্তা দেওয়া হয়েছে উল্লেখ করে কাজী হাবিবুল আউয়াল বলেন, প্রশাসন ভোটে নিরপেক্ষ থেকে নির্বাচনকে অবাধ, সুষ্ঠু ও নিরপেক্ষ করবে বলে স্পষ্ট করে বলা হয়েছে। রাজনৈতিক দলগুলোর প্রার্থী বা ইনডিপেনডেন্ট (স্বতন্ত্র) প্রার্থী যারা আছেন, তারা যদি আন্তরিক না হন, তারা যদি সচেতন না হন, তাদের প্রতি যদি পারস্পরিক আস্থা সংরক্ষণ না করেন, সঠিক আচরণ না করেন, তাহলে অবাধ, সুষ্ঠু ও নিরপেক্ষ নির্বাচন করাটা দুরূহ হয়ে পড়বে। নির্বাচন কমিশনের পক্ষ থেকে প্রার্থীদের এই বার্তাটা দেওয়া হয়েছে।

তিনি আরও বলেন, প্রার্থীরা আমাদের কথা দিয়েছেন, তারা পারস্পরিক বিশ্বাস ও আস্থা রেখে নির্বাচন প্রক্রিয়ায় সহযোগিতা করবেন এবং তারাও আশাবাদী যে, এবারের নির্বাচনটা অবাধ, সুষ্ঠু ও নিরপেক্ষ হবে।

আজ সকাল ১০টায় মতবিনিময় সভা শুরু হয়ে চলে দুপুর সাড়ে ১২টা পর্যন্ত। পরে রংপুর জেলা শিল্পকলা একাডেমিতে আইন-শৃঙ্খলা বিষয়ক বৈঠকে বসেন সিইসি।

প্রার্থীদের সঙ্গে সিইসির এই মতবিনিময় সভায় নির্বাচন কমিশনার রাশেদা সুলতানা, নির্বাচন কমিশন সচিব জাহাঙ্গীর আলম, রংপুর বিভাগীয় কমিশনার হাবিবুর রহমান, রংপুর রেঞ্জের ডিআইজি আব্দুল বাতেন, রংপুর মেট্রোপলিটন পুলিশ কমিশনার মনিরুজ্জামানসহ ঊর্ধ্বতন কর্মকর্তারা উপস্থিত ছিলেন।

Comments

The Daily Star  | English
Land Minister Saifuzzaman Chowdhury

Ex-land minister admits to having properties abroad

Former land minister Saifuzzaman Chowdhury admitted today to having businesses and assets abroad but denied any involvement in corrupt practices related to acquiring those properties

3h ago