ক্যাম্পাস

ইডেনের কোনো শিক্ষার্থীকে অনৈতিক কাজে বাধ্য করার সত্যতা পায়নি তদন্ত কমিটি

ইডেন মহিলা কলেজের কোনো শিক্ষার্থীকে অনৈতিক কাজে বাধ্য করার সত্যতা পাওয়া যায়নি বলে জানিয়েছে তদন্ত কমিটি।
ইডেন মহিলা কলেজ। ছবি: সংগৃহীত

ইডেন মহিলা কলেজের কোনো শিক্ষার্থীকে অনৈতিক কাজে বাধ্য করার সত্যতা পাওয়া যায়নি বলে জানিয়েছে তদন্ত কমিটি।

আজ বৃহস্পতিবার কলেজের অধ্যক্ষ সুপ্রিয়া ভট্টাচাৰ্যের সই করা এক সংবাদ বিজ্ঞপ্তিতে এ তথ্য জানানো হয়েছে।

কলেজটির ছাত্রলীগের নেত্রীদের দ্বারা ছাত্রীনিবাস ও ক্যাম্পাসে সংঘটিত বিশৃঙ্খল পরিস্থিতির ঘটনা তদন্তে গত ২৫ সেপ্টেম্বর ৪ সদস্যের তদন্ত কমিটি গঠন করে কলেজ কর্তৃপক্ষ।

কমিটি প্রতিবেদন জমা দিয়েছে উল্লেখ করে সংবাদ বিজ্ঞপ্তিতে বলা হয়, গত ২৪ সেপ্টেম্বর রাতে ইডেন মহিলা কলেজ ক্যাম্পাসে সংঘটিত অনাকাঙ্ক্ষিত ঘটনা ও পরে অন্যান্য বিশৃঙ্খল পরিস্থিতির ঘটনা এবং বিভিন্ন সংবাদ মাধ্যমে প্রকাশিত কয়েকজন শিক্ষার্থীর বক্তব্যের পরিপ্রেক্ষিতে গঠিত তদন্ত কমিটি প্রতিবেদন দাখিল করেছেন।

এতে আরও বলা হয়, প্রতিবেদনে কোনো শিক্ষার্থীকে অনৈতিক কাজে বাধ্য করার কোনো সত্যতা পাওয়া যায়নি বলে তদন্ত কমিটি জানিয়েছে। 

এছাড়া সিট বাণিজ্য ও সংঘর্ষের ঘটনাসহ অন্যান্য অভিযোগের বিষয়ে তদন্ত প্রতিবেদনের ভিত্তিতে কলেজ প্রশাসন আইন অনুযায়ী পরবর্তী ব্যবস্থা নেবে।

কলেজের সিনিয়র শিক্ষক অধ্যাপক মোহাম্মদ জিয়াউল হক, অধ্যাপক কাজী আতিকুজ্জামান, অধ্যাপক সুফিয়া আখতার ও অধ্যাপক মেহেরুন্নেসা মেরীর সমন্বয়ে এ তদন্ত কমিটি গঠন করা হয়েছিল।

ক্যাম্পাস সূত্র জানায়, গত ২৪ সেপ্টেম্বর রাতে কলেজ ছাত্রলীগের সহসভাপতি (বহিষ্কৃত) জান্নাতুল ফেরদৌসীকে মারধরের ঘটনার অভিযোগ ওঠে কলেজ ছাত্রলীগের সভাপতি তামান্না জেসমিন রীভা ও সাধারণ সম্পাদক রাজিয়া সুলতানার বিরুদ্ধে৷

এ ঘটনার প্রতিবাদে ওই দিন রাতেই ক্যাম্পাসে বিক্ষোভ করেন ছাত্রলীগের একটি অংশের নেত্রীরা৷

ইডেন কলেজ ছাত্রলীগের সভাপতি ও সাধারণ সম্পাদকের বিরুদ্ধে শিক্ষার্থী নির্যাতন, সিট-বাণিজ্য ও চাঁদাবাজিরও অভিযোগ তোলেন প্রতিবাদ করা ছাত্রলীগ নেত্রীরা৷ ওই ২ নেত্রীর বিরুদ্ধে ছাত্রীদের অনৈতিক কর্মকাণ্ডে যুক্ত হতে বাধ্য করানোর অভিযোগও উঠেছে।

এসব অভিযোগের বিষয়ে প্রতিক্রিয়া জানাতে ২৫ সেপ্টেম্বর বিকেলে ক্যাম্পাসে একটি সংবাদ সম্মেলনের আয়োজন করেন সভাপতি তামান্না জেসমিন রীভা৷ সংবাদ সম্মেলন চলা অবস্থায় রীভা ও তার অনুসারীদের ওপর হামলা করেন তার প্রতিপক্ষ অংশের নেত্রীরা৷

এ ঘটনায় রোববার রাত ২টার দিকে ১৭ নেতাকর্মীকে স্থায়ী বহিষ্কার করে কেন্দ্রীয় ছাত্রলীগ৷ একইসঙ্গে ইডেন মহিলা কলেজ ছাত্রলীগের সাংগঠনিক কার্যক্রম স্থগিত ঘোষণা করে।

Comments