ফারদিনকে ৪ নভেম্বর রাত সোয়া ২টায় যাত্রাবাড়ী মোড়ে দেখা গেছে: ডিবি

বুয়েটের শিক্ষার্থী ফারদিন নূর পরশকে ৪ নভেম্বর ভোররাত সোয়া ২টায় রাজধানীর যাত্রাবাড়ী মোড়ে দেখা গেছে।
ফারদিন নূর পরশ। ছবি: সংগৃহীত

বুয়েটের শিক্ষার্থী ফারদিন নূর পরশকে ৪ নভেম্বর ভোররাত সোয়া ২টায় রাজধানীর যাত্রাবাড়ী মোড়ে দেখা গেছে।

ঢাকা মেট্রোপলিটন পুলিশের (ডিএমপি) গোয়েন্দা শাখার (ডিবি) প্রধান হারুন অর রশিদ আজ বৃহস্পতিবার সাংবাদিকদের সঙ্গে আলাপকালে এ তথ্য জানান।

তিনি জানান, সাদা টি-শার্ট পরা এক যুবককে লেগুনায় উঠতে দেখা গেছে। গাড়িতে আরও ৪ জন ছিলেন। গাড়িটি তারাবোর দিকে যাচ্ছিলেন।

ওই গাড়ির চালক ও সহযোগীদের নজরদারিতে রাখা হয়েছে বলেও জানান ডিবি প্রধান।

তিনি বলেন, 'ফারদিনের মৃত্যুর পেছনের কারণ আমরা এখনো জানতে পারিনি। তাকে ঠিক কোথায় হত্যা করা হয়েছে, তাও এখনো জানা যায়নি।'

র‌্যাপিড অ্যাকশন ব্যাটালিয়নের (র‌্যাব) দাবি, চনপাড়া বস্তির মাদক চোরাকারবারি রায়হান মাহমুদ ও তার চক্রের সদস্যরা এ হত্যাকাণ্ডের পেছনে জড়িত।

গত ৪ নভেম্বর ভোররাত ২টা ৩৪ মিনিটে চনপাড়া বস্তির কাছে ফারদিনের মোবাইল ফোনের অবস্থান নিশ্চিত হওয়া গেছে। তবে, রায়হান ও এর সঙ্গে জড়িত অন্যরা গ্রেপ্তার হলেই বিষয়টি পরিষ্কার জানা যাবে।

মামলার তদন্তকারী কর্মকর্তারা জানান, যাত্রাবাড়ী থেকে ছেড়ে আসা লেগুনার ৩ যাত্রীকে বিশ্বরোডে ও অপর যাত্রীকে পরের স্টপেজে নামানো হয়।

নাম প্রকাশ না করার শর্তে এক তদন্তকারী কর্মকর্তা জানান, ওই জায়গা থেকে চনপাড়া পৌঁছাতে অন্তত ১ ঘণ্টা সময় লাগার কথা।

'সুতরাং, ভোররাত আড়াইটার দিকে চনপাড়া বস্তিতে ফারদিনের উপস্থিতি সম্ভব নয়', বলেন ওই কর্মকর্তা।

তদন্তকারীরা আরও জানান, ফারদিনের মরদেহ চনপাড়ায় প্রাইভেট কারে নিয়ে যাওয়া হয়েছে, তাও সত্য নয়।

নিখোঁজ হওয়ার ৩ দিন পর গত ৭ নভেম্বর বাংলাদেশ প্রকৌশল বিশ্ববিদ্যালয়ের (বুয়েট) পুরকৌশল বিভাগের তৃতীয় বর্ষের ছাত্র ফারদিনের মরদেহ নারায়ণগঞ্জের সিদ্ধিরগঞ্জের শীতলক্ষ্যা নদী থেকে উদ্ধার করা হয়।

Comments