স্বাদে ভিন্নতা আনতে রাঁধুন আনারস দিয়ে ইলিশ

এই বর্ষা মৌসুমে বাজারে মিলছে টাটকা ইলিশ।
আনারস দিয়ে ইলিশ
ছবি: সংগৃহীত

বাঙালির ভাতের থালা পূর্ণতা পায় মাছে। আর এই বর্ষা মৌসুমে বাজারে মিলছে টাটকা ইলিশ। ইলিশ পছন্দ করেন না এমন মানুষ খুঁজে পাওয়া দুষ্কর। ইলিশের নানা রকম পদ, রান্নার চল রয়েছে বহু বছর ধরে। সরষে ইলিশ, ভাপা ইলিশ, তেলে ইলিশ তো খাওয়া হয়। তবে আজ চেনা স্বাদের বাইরে গিয়ে জানাব আনারস ইলিশের রেসিপি।

প্রথমে এক কাপ আনারস ব্লেন্ড করে, আঁশ ফেলে আনারসের জুস আলাদা করে নিতে হবে। আধা কাপ পরিমাণ আনারস কিউব করে কেটে নিতে হবে। এবার একটি বাটিতে আধা চা চামচ হলুদ গুঁড়ো, আধা চা চামচ জিরা গুঁড়ো, আধা চা চামচ শুকনো মরিচের গুঁড়ো, এক টেবিল চামচ পেঁয়াজ বাটা, আধা টেবিল চামচ রসুন বাটা একটু পানি দিয়ে গুলিয়ে রাখুন। এতে করে রান্নায় বাটা মসলার স্বাদ পাওয়া যাবে।

এবার পাঁচ টুকরো মাছ হালকা হলুদ লবণ মাখিয়ে কিছুক্ষণ মেরিনেট করে রাখুন। এতে প্যানের গায়ে মাছ আটকে যাবে না। এবার একটি প্যানে তেল দিয়ে হালকা আঁচে মাছগুলো ভেজে নিন। তবে বেশি ভাজার প্রয়োজন নেই। বেশি ভাজা হয়ে গেলে রান্নায় মাছের স্বাদ তেমন পাওয়া যায় না।

এবার মাছ ভাজা তেলেই আধা কাপ পেঁয়াজকুচি, এক চিমটি আস্ত জিরা, তেজপাতা, কাঁচা মরিচ দিন। সেগুলো ভাজা হয়ে গেলে যে গুঁড়া আর বাটা মসলাগুলো পানিতে ভেজানো ছিল, সেগুলো ঢেলে দিন। মিনিট খানেক অপেক্ষা করুন। তাতে মসলা থেকে তেল বেরিয়ে আসবে। তখন জ্বাল কমিয়ে দিন।

এবার আনারসের জুস ঢেলে দিন। এরপর আনারসের কিউবগুলোও ছেড়ে দিন। পরিমাণমতো লবণ দিয়ে ৩-৪ মিনিট ধরে রান্না করতে হবে। এই পর্যায়ে হাফ কাপ যোগ করে অপেক্ষা করতে হবে ফুটে ওঠা পর্যন্ত। এরপর আস্তে করে মাছগুলো ছেড়ে দিন।এখন আরও তিন থেকে চার মিনিট ধরে রান্না করুন। সবকিছু ঠিকঠাক আছে কি না, তা চেখে নামিয়ে নিতে হবে।

আনারস ইলিশ খেতে ভীষণ মজা। গরম ভাত, খিচুড়ি কিংবা পোলাওর সঙ্গে খেতে পারেন এটি।

 

Comments