ফরিদপুর-৩

এ কে আজাদের নির্বাচনী ক্যাম্পে হামলা-ভাঙচুর, সমন্বয়ককে কুপিয়ে আহত

প্রত্যক্ষদর্শীরা জানায়, পৌরসভার কাউন্সিলর মোবারক খলিফা, আতিয়ার শেখের নেতৃত্বে শতাধিক লোক নির্বাচনী ক্যাম্পে অতর্কিত হামলা চালায়।
ফরিদপুরে হামলা
ফরিদপুর পৌরসভার ১৪ নম্বর ওয়ার্ডে গ্রাসরুট কলেজের সামনে মামুদপুর এলাকায় স্বতন্ত্র প্রার্থী এ কে আজাদের নির্বাচনী ক্যাম্পে হামলা চালানো হয়। ছবি: সংগৃহীত

আসন্ন সংসদ নির্বাচনে ফরিদপুরে সদরে স্বতন্ত্র প্রার্থী এ কে আজাদের নির্বাচনী ক্যাম্পে হামলা ও ভাঙচুরের ঘটনা ঘটেছে।

জানা গেছে, ফরিদপুর পৌরসভার ২১ নম্বর ওয়ার্ড কাউন্সিলর মো. মোবারক খলিফার নেতৃত্বে হামলাকারীরা এ কে আজাদের ১৪ নম্বর ওয়ার্ডের নির্বাচনী প্রচারণার সমন্বয়ক আব্দুর রহমান জনককে কুপিয়ে আহত করেছে। 

আজ মঙ্গলবার সন্ধ্যা সাড়ে ৬টার দিকে ফরিদপুর পৌরসভার ১৪ নম্বর ওয়ার্ডের অধীনে গ্রাসরুট কলেজের সামনে মামুদপুর এলাকায় এ ঘটনা ঘটে।

ফরিদপুরের অতিরিক্ত পুলিশ সুপার (সদর সার্কেল) মো. সালাউদ্দিন দ্য ডেইলি স্টারকে এসব তথ্য নিশ্চিত করেছেন।

প্রত্যক্ষদর্শীরা জানায়, পৌরসভার কাউন্সিলর মোবারক খলিফা, আতিয়ার শেখের নেতৃত্বে শতাধিক লোক নির্বাচনী ক্যাম্পে অতর্কিত হামলা চালায়। এ সময় তারা সেখানে ভাঙচুর করে। 

ক্যাম্পে সে সময় উপস্থিত ছিলেন এ কে আজাদের সমর্থক আশরাফ হোসেন, পরেশ চন্দ্রসহ আরও কয়েকজন। 

তারা ডেইলি স্টারকে বলেন, 'নৌকার স্লোগান দিয়ে আমাদের অফিসে হামলা চালানো হয়। সন্ত্রাসীরা রামদা দিয়ে ঈগল মার্কার নির্বাচন পরিচালনা কমিটির যুগ্ম-আহ্বায়ক ও এ ওয়ার্ডের সমন্বয়ক আব্দুর রহমান জনকের মাথায় রামদা দিয়ে আঘাত করে।'

স্থানীয়রা আব্দুর রহমানকে উদ্ধার করে ফরিদপুর বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিব মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে নিয়ে যায়।

১৪ নম্বর ওয়ার্ডে এ কে আজাদের নির্বাচনী পরিচালনা কমিটির সভাপতি মুন্নু মোল্লা ডেইলি স্টারকে বলেন, 'হামলার নেতৃত্ব দেওয়া পৌরসভার ২১ নম্বর ওয়ার্ড কাউন্সিলর মো. মোবারক খলিফা এ আসনে আওয়ামী লীগের মনোনীত প্রার্থী শামীম হকের সমর্থক।'

হামলার অভিযোগের বিষয়ে মন্তব্য জানতে কাউন্সিলর মোবারক খলিফাকে কল করা হলে, ফোন বন্ধ পাওয়া যায়।

ঘটনাস্থল ১৪ নম্বর ওয়ার্ডে মামুদপুর কেন্দ্রে আওয়ামী লীগের দায়িত্বরত কর্মী সমরেশ কুমার সিকদারকে পাওয়া যায়। তিনি ডেইলি স্টারকে বলেন, 'আমাদের ক্যাম্প থেকে একটি মিছিল বের হয়ে নদী গবেষণা ইনস্টিটিউটের দিকে যাচ্ছিল। সে সময় এ কে আজাদের ক্যাম্প থেকে মিছিলের ওপর হামলা চালালে এ ঘটনা ঘটে।'

তবে, হামলায় আওয়ামী লীগের কোনো কর্মী আহত হয়েছে কি না, তা তিনি জানাতে পারেননি।

শামীম হকের সমর্থক ১৪ নম্বর ওয়ার্ড আওয়ামী লীগের সভাপতি মো. আব্দুস সালাম শেখ ডেইলি স্টারকে বলেন, 'মামুদপুর এলাকায় একটি নির্বাচনী ক্যাম্পে একটি ঘটনা ঘটেছে বলে শুনেছি। তবে কী ঘটেছে তা আমার জানা নেই।'

খবর পেয়ে স্থানীয় থানা পুলিশ ঘটনাস্থল পরিদর্শন করেছে।

এ ঘটনার প্রতিবাদে ফরিদপুর বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিব মেডিকেল কলেজ এলাকায় এ কে আজাদের সমর্থকরা বিক্ষোভ মিছিল করে হামলাকারীদের দৃষ্টান্তমূলক শাস্তি দাবি করে।

জানতে চাইলে অতিরিক্ত পুলিশ সুপার মো. সালাউদ্দিন ডেইলি স্টারকে বলেন, 'হাসপাতালে চিকিৎসাধীন আহত কর্মীর সঙ্গে কথা বলেছি। ঘটনাস্থল পরিদর্শন করেছি। এলাকাবাসী জানিয়েছে মোবাররক খলিফার নেতৃত্বে এ হামলা হয়েছে।'

এর আগে, গতকাল সোমবার রাতে সদরের ঈশান গোপালপুর ইউনিয়নের বিষ্ণপুর গ্রামে ঈগল প্রতীকের স্বতন্ত্র প্রার্থী এ কে আজাদের সমর্থকদের হামলায় আওয়ামী লীগ প্রার্থী শামীমুল হকের নৌকার দুই সমর্থক আহত হওয়ার অভিযোগ ওঠে।

এসব ঘটনায় ফরিদপুরে উভয় পক্ষের কর্মী-সমর্থকদের মধ্যে  উত্তেজনা বিরাজ করছে।

Comments

The Daily Star  | English

Indian Polls: How just 0.8pc vote cost Modi 63 seats

A miscalculation and a drop of just .8 percent of the vote share cost the ruling BJP 63 seats and also the aura of invincibility it created around its leader Narendra Modi

28m ago