ইসরায়েলের কারাগারে অনশনরত ফিলিস্তিনির মৃত্যু

ফিলিস্তিনের সংবাদ সংস্থা ওয়াফা জানিয়েছে, অধিকৃত পশ্চিম তীরের আররাবা শহরের বাসিন্দা আদনানকে (৪৪) সুনির্দিষ্ট অভিযোগ ছাড়াই আটকে রাখা হয়েছিল।
৩ মাস কারাগারে অনশন করার পর মারা গেছেন ফিলিস্তনি নাগরিক খাদের আদনান। ছবি: রয়টার্স
৩ মাস কারাগারে অনশন করার পর মারা গেছেন ফিলিস্তনি নাগরিক খাদের আদনান। ছবি: রয়টার্স

ইসরায়েলের কারাগারে প্রায় ৩ মাস ধরে অনশন করছিলেন ফিলিস্তিনের নাগরিক খাদের আদনান।

আজ মঙ্গলবার কাতারভিত্তিক গণমাধ্যম আল জাজিরা এ তথ্য জানিয়েছে।

ইসরায়েলের কারাগার কর্তৃপক্ষ জানিয়েছে, খাদের আদনান ' চিকিৎসা নিতে' রাজি ছিলেন না। তাকে আজ সকালে 'সেলে অজ্ঞান অবস্থায় পাওয়া যায়।'

গত ৫ ফেব্রুয়ারি গ্রেপ্তারের পর থেকে তিনি অনশন শুরু করেন।

এর আগেও তাকে বেশ কয়েকবার গ্রেপ্তার করা হয়েছে। বেশিরভাগ সময়ই তিনি আটকের প্রতিবাদে অনশন করেন।

২০১৫ সালে তাকে প্রশাসনিক ডিটেনশন প্রক্রিয়ার মাধ্যমে আটক করা হলে তিনি ৫৫ দিন অনশন করেন। এ প্রক্রিয়ায় ইসরায়েলে অভিযোগ গঠন বা বিচারিক কার্যক্রম ছাড়াই কোনো ব্যক্তিকে অনির্দিষ্টকালের জন্য আটকে রাখা যায়।

ইসরায়েলের মানবাধিকার সংস্থা হামোকেদের তথ্য অনুসারে, ইসরায়েল এ মুহূর্তে ১ হাজার ফিলিস্তিনিকে এ প্রক্রিয়া আটকে রেখেছে, যা ২০০৩ সালের পর সর্বোচ্চ।

ফিলিস্তিনের সংবাদ সংস্থা ওয়াফা জানিয়েছে, অধিকৃত পশ্চিম তীরের আররাবা শহরের বাসিন্দা আদনানকে (৪৪) সুনির্দিষ্ট অভিযোগ ছাড়াই আটকে রাখা হয়েছিল।

ফিলিস্তিনি কয়েদিদের সংগঠন প্রিজনার্স সোসাইটি জানায়, আদনানকে আটক রাখার প্রতিবাদে তিনি টানা ৮৭ দিন না খেয়ে ছিলেন।

ওয়াফা সংবাদ সংস্থা আরও জানায়, ৯ সন্তানের জনক আদনান ১২ বার গ্রেপ্তার হয়েছিলেন। বেশ কয়েকবার তিনি এর প্রতিবাদে অনশন করেন।

গত সপ্তাহে আদনানের স্ত্রী রানদা মুসা বার্তা সংস্থা এএফপিকে জানিয়েছিলেন,  'আদনান কোনো সহায়তা নিচ্ছেন না। মেডিকেল পরীক্ষা করতে দিচ্ছেন না। তাকে খুবই বৈরী পরিবেশে,নিম্নমানের কারাগারে রাখা হয়েছে। ইসরায়েল তাকে বেসামরিক হাসপাতালেও যেতে দিচ্ছে না। এমনকি, আইনজীবীকেও তার সঙ্গে দেখা করতে দিচ্ছে না।'

Comments

The Daily Star  | English
Sheikh Hasina's Sylhet rally on December 20

Hasina doubts if JP will stay in the race

Prime Minister Sheikh Hasina yesterday expressed doubt whether the main opposition Jatiya Party would keep its word and stay in the electoral race.

3h ago